ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৯ এপ্রিল ২০২০, ২৬ চৈত্র ১৪২৬, ১৪ শাবান ১৪৪১ হিজরী

লাইফস্টাইল

এ সময় পাঁচ খাবার

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১০ মার্চ, ২০২০, ১২:০১ এএম

গরম বাড়তে শুরু করেছে। মৌসুম পরিবর্তনে জ্বর-সর্দি-কাশি হওয়াটা স্বাভাবিক ব্যাপার। এর বাইরে বাড়তি বিষফোঁড়া হয়ে দেখা দিয়েছে করোনাভাইরাস। দেশে মাত্র তিনজনের দেহে করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে। গতকালের সর্বশেষ খবরে আইইডিসিআর বলেছে নতুন করে কেউ করোনা আক্রান্ত হননি।
মৌসুম বদলে দিনে গরম, আর রাতে কিছুটা শীত অনুভূত হচ্ছে। ভোর কোথাও কোথাও হালকা থেকে ঘন কুয়াশা দেখা যায়। এমন অবস্থায় কেউ কেউ ভাইরাল জ্বরেও ভুগছেন।
এ সময় জ্বর কিংবা ফ্লু থেকে রক্ষা পেতে প্রয়োজন ব্যালেন্স-ডায়েট। বাইরের জাঙ্ক ফুড সরিয়ে রেখে পুষ্টিকর খাবার খাওয়া খুব দরকার। এমন খাবার খান যা শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াবে। বিশেষজ্ঞরা মূলত পাঁচ ধরনের খাবারের কথা বলছেন।
রঙিন শাক-সবজি : শাক-সবজি খেলে তা শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। তাই সব ধরনের শাক-সবজি খাওয়ার অভ্যেস করুন। যে সব ফল বা সবজিতে বিটা ক্যারোটিন, ক্লোরোফিল থাকে, সেসব খান। ব্রুকলি, বেরি, লাল বাধাকপি জাতীয় সবজি খেতে পারেন।
ভিটামিন সি : ভিটামিন সি রয়েছে এমন খাবার শরীরের পক্ষে খুবই উপকারী। প্রাথমিকভাবে নানা সংক্রমণ রোগে সাহায্য করে ভিটামিন সি। পাশাপাশি শরীরের কোষগুলোকেও সুরক্ষিত রাখে। সে জন্য পাতিলেবু, কমলা লেবু, পেয়ারা, আমলকী ইত্যাদি নিয়মিত খান।
কাঁচা হলুদ: জানেন তো রান্নার মসলা কাঁচা হলুদ খাওয়া শরীরের জন্য কতটা উপকারী? এতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেক বেড়ে যায়। শরীর অনেক বেশি সচল থাকে। আর্থারাইটিস রোধেও অনেক কার্যকর কাঁচা হলুদ। যাদের ঠান্ডা লাগে, তারা দুধের সঙ্গে কাঁচা হলুদ মিশিয়ে খেলে তারা উপকার পাবেন।
আদা : ঠান্ডা লাগলে বাড়ির অভিভাবকরা নিশ্চয়ই অনেক সময় আদা মুখে রাখার পরামর্শ দেন। দীর্ঘস্থায়ী ব্যথা, গলা ধরা, জ্বালানি কমাতে সাহায্য করে আদা। এতে দেহের অতিরিক্ত কোরেস্টেরলও কমে।
অন্যান্য : যে সমস্ত খাবারে প্রিরায়োটিক বা প্রোবায়োটিক উপাদান রয়েছে, তা খেলে উপকৃত হবেন। খাদ্যতালিকায় নিয়মিত দই, সয়াবিন জাতীয় খাবার, ফাইবার-যুক্ত খাবার রাখুন।
তবে মনে রাখবেন শুধু সঠিক খাবার খেলেই হবে না, নিজেকে চিন্তামুক্ত রাখাটাও অত্যন্ত জরুরি। দুশ্চিন্তা মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমিয়ে দিতে পারে। তাই সঠিক সময় ঘুমানো, পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুম এবং দুশ্চিন্তা মুক্ত থাকাও জরুরি। তবেই নিজেকে সুস্থ রাখতে পারবেন। সূত্র : ডেইলি পাইওনার।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন