ঢাকা, বুধবার, ০৫ আগস্ট ২০২০, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

প্রবাসীদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যে সামাজিক মাধ্যমে তোপের মুখে পররাষ্ট্রমন্ত্রী

আব্দুল মোমিন | প্রকাশের সময় : ১৬ মার্চ, ২০২০, ৯:০১ পিএম

করোনা আতঙ্কে বিদেশফেরত প্রবাসীরা কোয়ারেন্টাইনে না যেতে চাওয়ায় তাদেরকে‌ ‌‌‌‘নবাবজাদা’ বলে মন্তব্য করে তোপের মুখে পড়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। রেমিটেন্সযোদ্ধাদের নিয়ে তার এই বিতর্কিত মন্তব্য ব্যাপক সমালোচনার জন্ম দেয় সামাজিক মাধ্যমে। নিন্দার ঝড় তুলেছেন সকল শ্রেণি-পেশার মানুষ।

রোববার রাজধানীতে বাংলাদেশ ইন্সটিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজে (বিআইআইএসএস) এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রবাসীরা দেশে আসলে নবাবজাদা হয়ে যান। তারা কোয়ারেন্টাইনে যাওয়ার বিষয়ে খুব অসন্তুষ্ট হন। ফাইভ স্টার হোটেল না হলে তারা অপছন্দ করেন।

মন্ত্রীর বিতর্কিত মন্তব্যের সমালোচনা করে ফেইসবুকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল লিখেছেন, ‘‘নবাবজাদা, নাকি হারামজাদা। পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিজে দীর্ঘদিন প্রবাসে ছিলেন। তিনি বলেছেন, বিদেশ থেকে ফিরে প্রবাসীরা নবাবজাদা হয়ে যায়।আমার মতে, এটাই হওয়া উচিত। আমাদেরও উচিত তাদের নবাবজাদার মতো ট্রিট করা। কারণ এদেশটা টিকে আছে প্রবাসীদেরই ঘামে-পরিশ্রমে, রেমিটেন্সে। বিদেশ থেকে ফিরে নবাবজাদা হলে তাই সমস্যা নেই। সমস্যা হচ্ছে বিদেশ থেকে ফিরে কেউ হারামজাদা হয়ে ওঠলে। হারামজাদা হওয়ার চেয়ে নবাবজাদা হওয়া ভালো।’’

সাংবাদিক তাজুল ইসলামি তপন লিখেছেন, ‘‘তারা তো আপনাদের মতো ভোট চুরি, টেন্ডারবাজি, দূর্নীতি কিংবা কালো টাকার পাহাড় গড়ে তুলেনা। তারাতো জনগণের টাকায় পোদ্দারি দেখায় না। হে গর্দভ মন্ত্রী জানেন কি, তাদের ঘামে সচল থাকে দেশের অর্থনীতির চাকা। তারা নবাব হবেনা তো রাতের বেলায় ভোট চোরেরা নবাব হবে! অপদার্থদের হাতে মন্ত্রীত্ব গেলে যা হয় আরকি!’’

শামিসুজ জামান নায়েম লিখেছেন, ‘‘আসুন দেখে নেই কে নবাবজাদা আর কে হারামজাদা। নবাবজাদা- বিদেশের টাকা আয় করে দেশে আনে হারামজাদা- দেশের টাকা চুরি করে বিদেশে পাচার করে।’’

মোস্তফা ফিরোজ লিখেছেন, ‘‘নবাবজাদাদের নবাবজাদা বলার কি আছে? আমরাইতো এই প্রজাতন্ত্রের মালিক। শুধু প্রবাসী কেন দেশের সাধারণ মানুষ সবাই নবাবজাদা। আর যারা এই নবাবজাদাদের সেবা করতে চাকরি করেন তারা হচ্ছেন সেবক। সেবকদের কাজই হচ্ছে নবাবজাদাদের সেবা করে যাওয়া।’’

সাইদুর রহমান লিখেছেন, ‘‘কি বলবো যে শ্রেণীর লোকদের কারনে আজ দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা উন্নতির দিকে তারা আজ অবহেলিত।আর যারা দিব্যি এসি গাড়ি বাড়িতে আলীসান ভাবে জীবন যাপন করছে তাদের মুখে নেই কৃতজ্ঞতা। কি করে যে এরা মন্ত্রীত্ব পায়।’’

আবু ইশা লিখেছেন, ‘‘সমস্যা হলো শিক্ষা দ্বিক্ষা এতো করেছে এই বিষয়টি তার মধ্যে হারিয়ে গেছে। সব কর্মচারীরা ভাবা শুরু করছে তারা দেশের মালিক, আমজনতা চাকর বাকর। তারা লক্ষ করছে তারা লাঠি তুললে আমজনতা লেজ গুটিয়ে পালায়। এটার মজা তারা নিবে না?’’

ইয়েসমিন বারি লিখেছেন, ‘‘এরা জীবনে সাধারণ জনগণের সাথে মিশতে পেরেছে কিনা সন্দেহ আছে। উড়ে এসে জুড়ে বসা মন্ত্রী হয়ে জনগণের ট্যাক্সের টাকা শ্রাদ্ধ করে চামারের মতো কথা এরাই বলতে পারে! এক ভাই জনগণের চারশো কোটি টাকা চুরি কে কিছুই না আর রাবিশ, ভোগাস বলে হুংকার ছাড়ে আর এই অসভ্য.. প্রবাসীদের বলে নবাবজাদা!!! কতো বড় সাহস!!।’’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (4)
Shafiur Rahman ১৬ মার্চ, ২০২০, ১০:৫০ পিএম says : 0
It is our bad Luck that we have some ministers like him. No proper education and no respect to our beloved hard worker people working overseas .
Total Reply(0)
কবির হোসাইন ১৬ মার্চ, ২০২০, ১০:৫১ পিএম says : 0
সব প্রতিবদ্ধিদের ধরে ধরে এনে মন্ত্রী বানানো হয়েছে এরা রাত্র কে দিন মনে করে নিজেরা নিজেদের ভোট দিয়ে বিয়য় ঘোষনা করে তাদের বিজয় করতে জঙ্গলের হায়না আর কুকুর গুলো পাহারায় ছিল যারা তাদের মন মত যাকে খুশি দল বেঁধে পেঁড়ে ছিঁড়ে খাবে মানুষ বড় অসহায় দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে দেখা চাড়া কি আর করবে৷
Total Reply(0)
ম নাছিরউদ্দীন শাহ ১৬ মার্চ, ২০২০, ১১:০৪ পিএম says : 0
মাননীয় মন্ত্রী প্রবাসীদের বলেছেন দেশে আসলে নবাব জাদা হয়ে য়ায়। এই বাক‍্যটি কোন পরিস্থিতিতে কি ঘটনায় বলেছেন বাংলাদেশের জন‍্য বলেছেন। মানুষের জীবনের জন‍্য বলেছেন। ওনি হারামজাদা হারামি বলেননি হারামজাদা হারামি বলা উপযুক্ত ছিলো।নবাবজাদা শব্দটি ওনাদের জন‍্য ওনাদের আচরণের জন‍্য মানানসই হয়নি। ইতালি ভয়ংকর করোনা ভাইরাসের দেশ ঐ দেশের প্রবাসীদের দেশের কোটি কোটি মানুষের স্বার্থে হজ্ব কেম্পে হাজীদের পবিত্র জায়গায় কিছু দিন থাকতে হবেই। দেশের প্রয়োজনে এখানে কে কোন নবাব সলিমুল্লাহ দেখার জানার বিষয় না। এই ভয়াবহ সময়ে মাতৃভূমিতে আসা উচিত ছিলো??? একটি মাত্র সান্ত্বনা পুরুষ্কার দিতে চায় হজ্ব কেম্পে নামাজ প্রতিষ্টা করুন এবং হালাল উপারর্জনের অর্থে হজ্বে য়াওয়ার নিয়ত করুন। আমরা গরিবের জন‍্য সাধারণ মানুষের জন‍্য মন্তী মহোদয়ের নবাব জাদা বলা খুবই নগন‍্য ছিল। আপনাদের কে মহান রাব্বুল আল আমিন আল্লাহ্ শারীরিক ভাবে সুস্হ‍্য রেখে সহিসালামতে আপনাদের পরিবারের সাথে সাক্ষাৎ করার সুযোগ দিন। আমিন আমিন।
Total Reply(0)
Md Shafiqul Islam ১৬ মার্চ, ২০২০, ৯:১৮ পিএম says : 0
ভোট চোর মন্ত্রীদের হয়তো মনে নাই প্রবাসীদের টাকায় এই গরিব দেশ ঠিকে আছে। কথায় আছে চোরের মায়ের বড় গলা।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন