ঢাকা শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ৭ কার্তিক ১৪২৭, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

সিইসির বক্তব্যে চট্টগ্রামবাসী সন্তুষ্ট

স্থগিতের পথে ভোট

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৮ মার্চ, ২০২০, ১২:০২ এএম

আগামী ২৯ মার্চ অনুষ্ঠেয় চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন (চসিক) নির্বাচন স্থগিত করার ইঙ্গিত দিয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা বলেছেন, ভোটের বিষয়ে এখনও বিবেচনা করা হয়নি, এটা নিয়েও আমরা চিন্তা করব। পরিস্থিতি আরেকটু দেখি। আমরা আরও দুয়েকদিন দেখে তখন সবগুলো নির্বাচনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেব। গতকাল মঙ্গলবার ঢাকায় নির্বাচন ভবনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের তিনি একথা বলেন।

নির্বাচন নিয়ে সিইসির এমন বক্তব্যে চট্টগ্রামবাসী সন্তুষ্ট। নভেল করোনাভাইরাস আতঙ্ক দেশজুড়ে। সংক্রমণ ঠেকাতে বন্ধ হয়ে গেছে স্কুল-কলেজসহ সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। জনসমাগম এড়িয়ে চলছে সাধারণ মানুষ। বেসরকারি উদ্যোগে চিটাগাং চেম্বার আয়োজিত দেশের সর্ববৃহৎ আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলাও স্থগিত করা হয়েছে। তবে চসিক নির্বাচন নিয়ে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় চট্টগ্রাম নগরবাসী। মহানগরীতে জনসংখ্যা প্রায় ৭০ লাখ। পাঁচটি সংসদীয় আসনের সিটি কর্পোরেশন এলাকায় ভোটার প্রায় ২০ লাখ। ছয় মেয়র প্রার্থী এবং ২১৭ জন কাউন্সিলর প্রার্থী ও তাদের সমর্থকেরাও ভোট নিয়ে চিন্তিত। করোনাভাইরাস নিয়ে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় ভোট নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে নেই কোন আগ্রহ। ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসসহ টানা তিন দিন ছুটির মধ্যে ভোট নিয়ে আপত্তি আছে বিএনপিসহ অনেকের। এরমধ্যে করোনাভাইরাস আতঙ্ক যোগ করে নতুন মাত্রা। দৈনিক ইনকিলাবে গত ১৫ মার্চ ‘ভোটে আতঙ্ক অনীহা’ এবং ১৭ মার্চ ‘নির্বাচন নাকি জীবন’ শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এ অবস্থায় জনমত সিটির ভোট পেছানোর পক্ষে।

গত ১৪ মার্চ চট্টগ্রামে মতবিনিময় সভায় চসিক নির্বাচন পেছানোর ব্যাপারে সুস্পষ্ট সিদ্ধান্ত না জানালেও যদি পরিস্থিতি দুর্যোগময় হয় তাহলে নির্বাচন পেছানোর ইঙ্গিত দিয়েছিলেন সিইসি কে এম নুরুল হুদা। সে ধারাবাহিকতায় আরও এক ধাপ এগিয়ে গতকাল বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত আমরা নির্বাচন বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিইনি। করোনাভাইরাস কতখানি প্রভাব ফেলবে, সেটা আমরা বিশ্লেষণ করতে চাচ্ছি। আমরা আরও একটা-দুইটা দিন দেখব। তখন সবগুলো নির্বাচনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেব। আগামী ২১ মার্চ ঢাকা-১০, গাইবান্ধা-৩ ও বাগেরহাট-৪ সংসদীয় আসনের উপ নির্বাচন হবে। চসিক নির্বাচন ২৯ মার্চ। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, ২১ মার্চের নির্বাচন করার চিন্তা আছে এখনও। যদি পরিস্থিতি একেবারেই নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়, তখন অবশ্যই আমরা বিবেচনা করব। কিন্তু এখন পর্যন্ত আমরা চাচ্ছি, নির্বাচনটা হয়ে যাক।
ভোটের প্রচারে সতর্কতামূলক ব্যবস্থারউপর গুরুত্ব দিয়ে তিনি বলেন, তারা যেন জনসমাগমের বিষয়টা এড়িয়ে চলেন। যেন বিকল্পভাবে তারা ভোটারদের কাছে ভোট চান জনসমাগম না করে। এর আগে ইসি সচিবালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও সহকর্মীদের নিয়ে নির্বাচন ভবনে কেক কেটে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার।

থেমে গেছে প্রচার
নির্বাচন স্থগিতের ইঙ্গিত দিয়ে সিইসির বক্তব্যের পর নগরীতে থেমে যায় ভোটের প্রচার। প্রার্থীদের প্রচারণায়ও ভাটার টান দেখা গেছে। এমনিতেই ভোটের প্রচারে নগরবাসীর সাড়া নেই। এরপরও বড় দুই দলের মেয়র এবং কাউন্সিলর প্রার্থীরা নগরীর বিভিন্ন এলাকায় ভোটের প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। করোনাভাইরাস সংক্রমণ আতঙ্কে নগরবাসী ভোটের ব্যাপারে তেমন কোন আগ্রহ দেখাচ্ছে না। প্রার্থীরাও প্রচারে গিয়ে মানুষের সাড়া না পেয়ে হতাশ হচ্ছেন। তবে নিয়ম রক্ষার খাতিরে প্রচারে বের হচ্ছেন বড় দুই দলের মেয়র প্রার্থী ও তাদের সমর্থকেরা। স্কুল-কলেজ থেকে শুরু করে সব ধরনের সরকারি অনুষ্ঠান একে একে স্থগিত হয়ে যাওয়ায় ভোটারদের প্রত্যাশা ভোটও স্থগিত হবে।

গৃহবন্দি ভোট
করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকিতে থাকা মহানগরীতে প্রচারে গণজমায়েত ও মিছিল-সমাবেশ এড়িয়ে চলার পরামর্শ দেয়ার মাধ্যমে স্বাস্থ্য প্রশাসন কার্যত ভোটকে গৃহবন্দি করে দিয়েছে। চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি চসিক নির্বাচনের প্রচারে বেশকিছু নির্দেশনা দেন। তিনি বলেন, দেশে নির্বাচন মানে মিছিল, শোডাউন, গণজমায়েত। এবার জনস্বাস্থ্য বিবেচনায় এটা অবশ্যই বিসর্জন দিতে হবে। ব্যক্তি পর্যায়ে সচেতনতার পাশাপাশি কিছু সামষ্টিক প্রস্তুতিও নিতে হবে। যেখানেই সভা-মিছিল, সমাবেশ বা গণজমায়েত সেখানেই সংক্রমের আশঙ্কা সর্বোচ্চ। এগুলো করা যাবে না। এর পরিবর্তে ডিজিটাল প্রচারণা, এসএমএম, ফোন কল, রেডিও টিভির মাধ্যমে প্রয়োজনে স্ক্রল দিয়ে ভোটের প্রচার করতে হবে। নির্বাচন কমিশনও অনুষ্ঠান আয়োজন করতে পারে। সেখানে সব প্রার্থীরা গিয়ে তাদের কথা বলবে। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমেও এমন আয়োজন করা যেতে পারে।

চসিকের জরুরি সভা
আজ বুধবার সকাল সাড়ে ৯ টায় টাইগারপাস্থ চসিক নগর ভবনের সম্মেলন কক্ষে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত বিষয়ে প্রশাসনসহ নগরীর সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানসমূহের প্রধানদের নিয়ে এক জরুরি সভার আয়োজন করা হয়েছে। সিটি কর্পোরেশন আয়োজিত এ সভায় সভাপতিত্ব করবেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন