ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০২ এপ্রিল ২০২০, ১৯ চৈত্র ১৪২৬, ০৭ শাবান ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

বাংলাদেশসহ বিশ্বের কাছে করোনা সুরক্ষার মেডিকেল সরঞ্জাম চাইলেন ট্রাম্প

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ মার্চ, ২০২০, ৩:৫৮ পিএম

করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় যুক্তরাষ্ট্রে চিকিৎসার সরঞ্জামের ভয়াবহ সংকট দেখা দিয়েছে। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে হিমশিম খাচ্ছে পুরোবিশ্ব। আর তাই এশিয়া ও ইউরোপের বন্ধুদেশগুলোর কাছ থেকে করোনা সুরক্ষার মেডিকেল সরঞ্জাম চেয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ট ট্রাম্প। গতকাল মঙ্গলবার হোয়াইট হাউজে এক বক্তৃতায় ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের বেসরকারি খাতকে এই সংকট মোকাবেলায় এগিয়ে আসার অনুরোধ করেন।

ট্রাম্প জনসম্মুখে এমন বক্তব্য দিলেও পর্দার আড়ালে হোয়াইট হাউজ প্রশাসন এশিয়া ও ইউরোপের মিত্র দেশগুলোর কাছ থেকে করোনা সুরক্ষা সরঞ্জাম ও করোনা পরীক্ষার কিট চেয়েছে বলে গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। গত মঙ্গলবার ট্রাম্প দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জ্যা ইন এর সঙ্গে ফোনে কথা বলেন এবং কোরিয়ার কাছে করোনার মেডিকেল সরঞ্জাম চান।

বিভিন্ন রাজ্য থেকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের প্রশাসনের কাছে সহায়তা চাওয়া হচ্ছে। কিন্তু সরঞ্জাম না থাকায় সেই সহায়তা দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। এরই মধ্যে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ইউরোপ ও ইউরেশিয়াভুক্ত বিভিন্ন দেশের কাছে সরঞ্জাম সহায়তা হিসেবে চেয়েছেন। বাংলাদেশের কাছেও সহায়তা চেয়েছে ওয়াশিংটন।
জনপ্রিয় মিডিয়া ফরেন পলিসি ম্যাগাজিন এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, কূটনীতিকদের কাছে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় এক নির্দেশনা পাঠিয়েছে। এতে বলা হয়েছে, পূর্ব ইউরোপ এবং ইউরেশিয়াভুক্ত দেশের সরকার ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কাছে তারা যেন চাপ সৃষ্টি করেন, যাতে তারা প্রয়োজনীয় চিকিৎসা ও সুরক্ষামূলক সরঞ্জাম উৎপাদন করে এবং যুক্তরাষ্ট্রে কাছে রপ্তানি করে। উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা হু হু করে বাড়ছে। দেশটি এখন তৃতীয় আক্রান্ত দেশ।

যুক্তরাষ্ট্রের আবেদন এমন সময়ে এলো যখন ইউরোপও করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে লড়াই করছে। ১৯১৮ সালে স্প্যানিশ ফ্লুর পর এই প্রথম মহামারি করোনাকে মোকাবিলা করছে ইউরোপ। যুক্তরাষ্ট্রের এই আবেদন তার ইতিহাসের সঙ্গেও সংগতিপূর্ণ নয়। কারণ দেশটি তৃতীয় বিশ্বের অনুন্নত দেশগুলোকে বরাবরই বিভিন্ন দুর্যোগ মোকাবিলায় সহায়তা দিয়ে আসছে। এমনকি ওয়াশিংটনের এই অনুরোধ তার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের দাবির সঙ্গেও মিলছে না। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প গত ২১ মার্চ জানান, তার দেশে করোনা প্রতিরোধে ব্যবহারযোগ্য সব ধরনের সরঞ্জাম (কিট, মেডিক্যাল ও সুরক্ষা সরঞ্জামসহ) আছে। তিনি সরকার কর্তৃক উৎপাদনের জন্য ডিফেন্স প্রডাকশন অ্যাক্ট পুরোপুরি কার্যকর করতে অস্বীকৃতি জানান। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, ‘আমাদের অনেক কোম্পানি আছে, যারা এসব সরঞ্জাম উৎপাদন করতে পারে।’

চীন তার সংকট অনেকটা কাটিয়ে উঠেছে। দেশটি এখন আক্রান্ত অন্যান্য দেশে চিকিৎসক ও চিকিৎসা সরঞ্জাম পাঠাচ্ছে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের তৃতীয় শীর্ষ কূটনীতিক ডেভিড হ্যালে সব ব্যুরোর কাছে জানতে চেয়েছেন, বিদেশি রাষ্ট্রগুলো কী পরিমাণ সরঞ্জামাদি বিক্রি করতে পারবে। গত ২২ মার্চ ইউরোপ এবং ইউরেশিয়ার দেশগুলোর দূতাবাসের কাছে পাঠানো এক ইমেইল বার্তায় এই নির্দেশনা পাঠানো হয়েছে। ফরেন পলিসি ম্যাগাজিনের কাছে সেই ইমেইল এসেছে। শত শত মিলিয়ন ডলারের সরঞ্জাম যুক্তরাষ্ট্র ক্রয় করবে বলে বার্তায় জানানো হয়েছে, সরঞ্জামের মধ্যে ভেন্টিলেটরও রয়েছে।

বাংলাদেশের কাছেও সহায়তা চেয়েছে
যুক্তরাষ্ট্র তাদের দেশে চিকিৎসার সরঞ্জাম পাঠানোর জন্য ঢাকার কাছে অনুরোধ করেছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। গতকাল সন্ধ্যায় গণমাধ্যমে পাঠানো এক ভিডিও বার্তায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এই তথ্য দেন। তিনি বলেন, ‘আমাদের ব্যাবসায়িক মহল তাদের অনুরোধ বিবেচনা করছে। সৌভাগ্যের বিষয় যে, আমাদের দেশে অনেক ব্যাবসায়িক প্রতিষ্ঠান এগুলো তৈরির প্রচেষ্টা চালাচ্ছে।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
সাইফ ২৫ মার্চ, ২০২০, ৪:১১ পিএম says : 0
কোথায় তোমাদের সেই দম্ভ-সেই শক্তির মহড়া??? এত সামান্যতেই নুয়ে গেলে??? ভেবেছিলে কেউই তোমাদের কিছু করতে পারবেনা??? অসহায় মানুষের হাঁহাঁ কার তমাদের এটম বোমার ছেয়েও শক্তি শালী। আল্লাহ্‌ সকলকে হিদায়েত দান করুণ।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন