ঢাকা, বুধবার, ০১ এপ্রিল ২০২০, ১৮ চৈত্র ১৪২৬, ০৬ শাবান ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

তামিম-মুশফিকদের পথে বাবর-সরফরাজরা

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ মার্চ, ২০২০, ১২:০৬ এএম

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধে নেমেছেন বিশ্ববাসী। এই লড়াইয়ে সক্রীয় ক্রীড়াবিদরাও। বাংলাদেশেও তার ব্যতিক্রম হচ্ছে না। জাতীয় দলের ২৭জন ক্রিকেটার মিলে আর্ত-মানবতার সেবার জন্য ৩০ লাখ টাকার তহবিল গড়েছেন। তাদের দেখে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কর্তা-ব্যক্তিরাও এগিয়ে আসার ঘোষণা দিয়েছেন। এবার তামিম-মুশফিকদের অনুসরনকরে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সামিল হয়েছেন পাকিস্তান জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। দেশটির সরকারের জরুরি তহবিলে বড় অঙ্কের আর্থিক সাহায্য দিতে যাচ্ছেন তারা। কেবল ক্রিকেটাররাই নয়, সংকট মোকাবিলায় এগিয়ে এসেছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও।

পরশু নিজেদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে দেওয়া একটি বিবৃতিতে আর্থিক সহায়তার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে পিসিবি। তারা বলেছে, ‘কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকা ক্রিকেটাররা মিলে জরুরি তহবিলে দান করবেন ৫০ লাখ পাকিস্তানি রুপি। আর বোর্ডের সিনিয়র ম্যানেজার পদমর্যাদা পর্যন্ত সবাই এক দিনের বেতন এবং জেনারেল ম্যানেজার ও এর উপরের পদে থাকা সবাই দুই দিনের বেতন দান করবেন।’

পিসিবি চেয়ারম্যান এহসান মানি বলেছেন, ‘পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড কঠিন সময়গুলোতে সবসময় পাকিস্তানের জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছে। আমরা আমাদের স্বাস্থ্যকর্মীদের সুস্থতা ও সাফল্যের জন্য প্রার্থনা করে যাচ্ছি, যেন আমাদের সমাজ স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসে। আর আমরা যারা পিসিবিতে আছি, তারা সামান্য অবদান রাখছি, যা সরকারকে কোভিড-১৯ মহামারির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সাহায্য করবে।’

এর আগে, একই দিনে মহতী উদ্যোগ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররাও। মোট ২৭ জন খেলোয়াড়দের প্রত্যেকে দান করছেন তাদের এক মাসের বেতনের অর্ধেক।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) চুক্তিভুক্ত ও গেল তিন মাসে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলা বিভিন্ন গ্রেডের ক্রিকেটারদের এই তহবিলে জমা পড়বে ৩০ লাখ টাকারও বেশি।

তবে কর কাটার পর ২৬ লাখ টাকার মতো থাকবে বলে মনে করছেন তামিম ইকবাল-মুশফিকুর রহিমরা। সংকটকালে এই অর্থ তারা পোঁছে দিতে চান করোনাভাইরাস প্রতিরোধের কাজে।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন