ঢাকা, বুধবার, ২৭ মে ২০২০, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৩ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

পুলিশকে বিনয়ী-পেশাদার হওয়ার নির্দেশ আইজিপির

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩০ মার্চ, ২০২০, ১২:০২ এএম

করোনাভাইরাস
করোনাভাইরাসের প্রভাবে দেশজুড়ে সৃষ্ট সংকট মোকাবিলায় মাঠপর্যায়ে কাজ করছেন সেনাবাহিনী, র‌্যাব ও পুলিশ। এ অবস্থায় পুলিশ সদস্যদের সাধারণ মানুষের সঙ্গে বিনয়ী ও পেশাদার আচরণ বজায় রাখার নির্দেশ দিয়েছেন আইজিপি ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী। গত শুক্রবার রাতে পুলিশের সব ইউনিটের প্রধান, বিভাগীয় রেঞ্জের ডিআইজি, পুলিশ সুপার (এসপি), মেট্রাপলিটন এলাকার ডিসি, থানার ওসিদের কাছে পাঠানো এক বার্তায় এমন নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।
পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের দেয়া বার্তায় আইজিপি লিখেছেন, জনজীবন সচল রাখতে চিকিৎসা, ওষুধ, নিত্যপণ্য, খাদ্যদ্রব্য, বিদ্যুৎ, ব্যাংকিং ও মোবাইল ফোনসহ আবশ্যক সব জরুরি সেবার সঙ্গে সম্পৃক্ত ব্যক্তি ও যানবাহনের অবাধ চলাচল নিশ্চিত করুন। দায়িত্ব পালনকালে সাধারণ জনগণের সঙ্গে বিনয়ী, সহিষ্ণু ও পেশাদার আচরণ বজায় রাখুন। এ বার্তাটিকে অধীনস্থ সবার কাছে পৌঁছে দিয়ে এর বাস্তহবায়ন নিশ্চিত করতে বলেছেন আইজিপি।
সূত্র জানায়, করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত এবং বিদেশফেরতদের হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করতে মাঠপর্যায়ে কাজ করছে পুলিশ সদস্যরা। এর মধ্যে গত দু’দিনে প্রয়োজনে বাড়ির বাইরে বের হয়েও অনেকে পুলিশি হয়রানির শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে আইজিপি পুলিশ সদস্যদের বিনয়ী ও পেশাদারিত্বের সঙ্গে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ দেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
ম নাছিরউদ্দীন শাহ ২৯ মার্চ, ২০২০, ৫:১৭ এএম says : 0
মাননীয় আইজিপি মহোদয় অত্যন্ত শ্রদ্ধা বিনয়ের সাথে বলছি বাংলাদেশের কঠিন বিপদের সময়ে অদৃশ্য ভাইরাসের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রের আটার কোটি মানুষের জান মাল ঈমান ইজ্জতের উপরে মহান আল্লাহ্, জমিন আইন শৃংখলায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী র‍্যাব পুলিশ বাহিনী। এই মুহূর্তে বিশ্ব পরিস্থিতি কতটা নাজুক সংকটে আপনাদের অবশ্যই জানা আছে। কিছু আইন অমান‍্য ব‍্যাক্তি আছে। কিছু সূবিদাবাদী মতলব বাজ আছে কিছু গাদ্দার আছে। কিছু সাধু শয়তান আছে। এদের আর্মি এষ্টাইলে পিটিতে হবে এরা জানোয়ার। এখন ফেজবুক সোশ্যাল মিড়িয়া ইউটিউবে নেটিজনের কিছু দুষ্টু চক্র করোনা ভাইরাসের আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে হয় শান্ত হবে না হয় বেপরোয়া হবে। এখন আমাদের জীবনের নিরাপত্তার জন‍্য বীর সৈনিক সাহসী সন্তানরা রাজপথে যুদ্ধের ময়দানে দিনরাত। সারাদেশের মানুষের জন‍্য আপনাদের এই ত‍্যাগ ভালবাসা শ্রদ্ধাভরে দেশের সাধারণ মানুষ শান্তি প্রীয় মানুষ দেখছে। এখন আমাদের বাচার জন‍্য একজন আক্রান্ত ব‍্যাক্তি হতে গোটা সমাজ কে বাচাবার জন‍্য কঠিন শাসন জরুরী। আপনার বাহিনী ঝুঁকিপূর্ণ সময়ে শৃংখলা আনতে শাসন প্রয়োজন বিশ্ব পরিস্থিতি তাই বলে। এসিল‍্যান্ড মাক্স না পরার কারনে বৃদ্ধ কে কান ধরার অপরাধে বাড়িতে গিয়ে ক্ষমা দশ কেজি চাল দিয়েও প্রত‍্যাহার।একজন বিচারক করোনা ভাইরাস থেকে বাচার জন‍্য নিরাপদ থাকির জন্য রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে বৃদ্ধের কান ধরিয়ে বলেছেন উপদেশ দিয়েছেন। কার জীবনের স্বার্থে। সমাজ ও রাষ্ট্রের স্বার্থে পড়ে। জনাব এই পরিস্থিতিতে এই দরনের পেশাদার বিনয়ী হওয়ার ভদ্রলোক দিয়ে জরুরী অবস্থায় কাজ করা উচিত বা যাবে??? যেখানে রাষ্ট্রের আটার কোটি মানুষের জীবনের নিরাপত্তাব্যবস্থা জড়িত রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ স্বার্থ জড়িত। আগামীকাল কে আক্রান্ত হয় জানিনা। সেখানে শৃংখলার জন‍্য শাসন জরুরী। বাংলাদেশের গৌরবময় বীর সৈনিক গন আইন শৃংখলা বাহিনী আমরা সাধারণ মানুষের দোয়া আপনাদের সাথে আছে।। ইনশাআল্লাহ। আল্লাহ্ আপনাদের সহায়।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন