মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২২ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

করোনায় আক্রান্তদের চিকিৎসা দিতে রোবট ভাড়া করল আইরিশ হাসপাতাল

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ মার্চ, ২০২০, ৬:২৭ পিএম

আয়ারল্যান্ডের একটি হাসপাতাল করোনভাইরাস মহামারীর সময় রোগীদের সাথে সময় কাটাতে রোবট ব্যবহার শুরু করেছে। এর ফলে সেখানকার নার্সদের উপর চাপ কমছে।

ডাবলিনের ম্যাটার মিসেরিকর্ডিয়া বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে এখন প্রশাসনিক এবং কম্পিউটার-ভিত্তিক দায়িত্ব পালন করছে রোবটরা। এই দায়িত্বগুলো আগে সাধারণত নার্সরা পালন করত। আশা করা হচ্ছে এর ফলে ওই হাসপাতালের নার্সরা আরও বেশি সময় পাবে যা তারা কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত গুরুতর অসুস্থ রোগীদের সেবায় কাজে লাগাতে পারবে।

প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ইউআইপ্যাথের সফ্টওয়্যার ডেভেলপাররা একটি গ্যাজেট তৈরি করেছে যাতে স্বাস্থ্যসেবা খাতের নিয়মিত প্রক্রিয়াগুলো আরো দ্রুত সম্পাদন করা যাবে। আশা করা হচ্ছে যে বেশিরভাগ নিয়মিত দায়িত্ব পালনের জন্য কম্পিউটার ব্যবহার করায় নার্সরা রোগীদের সাথে আরও ৫০ শতাংশ পর্যন্ত বেশি সময় ব্যয় করতে পারবেন। প্রযুক্তিটি বিশ্বজুড়ে রোগী এবং সংস্থাগুলোর জন্য কোভিড-১৯ পরীক্ষার ফলাফল বিশ্লেষণ ও রিপোর্ট লেখার পদ্ধতিও গতিময় করবে।

নার্সিং, সংক্রমণ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ বিভাগের সহকারী পরিচালক জিন্সি জেরি দাবি করেছেন, নিয়মিত নার্সরা তাদের দিনের প্রায় ৩০ শতাংশ প্রশাসনিক কাজে ব্যয় করেন। সুতরাং, তিনি সফটওয়্যার ভিত্তিক রোবটগুলোকে তাদের প্রতিদিনের কাজের অংশ হিসাবে তৈরি করার চেষ্টা করছেন। তার মতে, রোগীদের সাথে সময় কাটাতে যতটা সম্ভব সব ফ্রন্টলাইন কর্মীদের প্রশাসনিক কাজ থেকে মুক্তি দেয়া উচিত। তিনি ডেইলিমেইলকে বলেন, ‘এটি হাসপাতালের চাপও কমিয়ে দেবে কারণ এটি কোভিড -১৯ এর সুনির্দিষ্ট তথ্য ছাড়াও সব রোগীর রুটিন ডেটা প্রক্রিয়া চালিয়ে যাচ্ছে।’ তিনি জোর দিয়ে বলেন, তাদের সংস্থাটি যে চ্যালেঞ্জটি গ্রহণ করছে, কেবল এমএমইউতে নয়, আয়ারল্যান্ড জুড়ে সকল স্বাস্থ্যসেবা সংস্থাগুলোর উপর এই প্রাদুর্ভাবের ফলে সৃষ্ট বিশাল চাপ প্রশমিত করতে সহায়তা করবে।’

এ বিষয়ে ইউআইপ্যাথের পাবলিক সেক্টর ডিরেক্টর আয়ারল্যান্ডের মার্ক ও’কনর বলেন, রোবটের সহযোগিতায় গুরুত্বপূর্ণ ফ্রন্টলাইন কর্মীরা রোগীদের যত্নের ক্ষেত্রে আরও সময় মনোনিবেশ করতে সক্ষম হবেন।

রোবট বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন যে, চিকিৎসা ক্ষেত্রে রোবটরা অনেক সহযোগিতা করতে পারে। তারা হাসপাতাল জীবাণুমুক্ত করতে, তাপমাত্রা নিতে এবং বর্জ্য সংগ্রহ করতে পারে। রোবোটগুলোতে নতুন কার্যকারিতা যুক্ত করার মাধ্যমে ‘একঘেয়ে, গুরুতর এবং বিপদজনক’ কাজও স্বয়ংক্রিয়ভাবে এগুলোকে দিয়ে করানো যেতে পারে।

বৈজ্ঞানিক জার্নালের এক নিবন্ধে, পিটসবার্গের কার্নেগি মেলন বিশ্ববিদ্যালয়ের হাওয়ে চেসেট এবং অন্যান্য গবেষকরা বলেছেন যে, ২০১৫ সালের ইবোলা প্রাদুর্ভাবের সময়ও রোবটগুলো বিস্তৃত ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়েছে। তারা জানান, এই প্রোগ্রামগুলো যে কোনও মানুষের সরাসরি রোগের সংস্পর্শে আসার ঝুঁকি কমাতে সহায়তা করতে পারে।

 

কি-ওয়ার্ড: করোনাভাইরাস, রোবট।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
A B M Sarwar ৩০ মার্চ, ২০২০, ১১:৫৪ পিএম says : 0
Our country may think it wise to use.
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন