ঢাকা, রবিবার, ০৯ আগস্ট ২০২০, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৮ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

দেশবাসীর সহযোগিতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

রমজানে অফিস ৯টা-সাড়ে ৩টা দীর্ঘদিনের বন্দি আসামিদের মুক্তির নীতিমালা করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৭ এপ্রিল, ২০২০, ১২:০০ এএম

করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতি থেকে উত্তরণে দেশবাসীর আন্তরিক সহযোগিতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। গতকাল সোমবার মন্ত্রিসভা বৈঠক শেষ মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের মন্ত্রিসভা কক্ষে সরকারি গণমাধ্যমে ব্রিফিংকালে এ তথ্য জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে সাংবাদিকদের কাছে পাঠানো ভিডিও ক্লিপ থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

খন্দাকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, এটা করোনাভাইরাস আগের থেকে বেশি ছড়িয়েছে। তাই প্রধানমন্ত্রী বার বার জনগণের কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন, এই অবস্থা থেকে উত্তরণে জনগণের সহযোগিতা দরকার। জনগণের সহায়তা ছাড়া এটা কোনোভাবেই নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব না। মন্ত্রিপরিষদ বলেন, নিজ দায়িত্বে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য মন্ত্রিসভার পক্ষ থেকে জনগণের কাছে বারংবার আনুরোধ জানানো হয়েছে। আজকে প্রশাসন এবং পুলিশকে আরো কঠোর নজরদারির মাধ্যমে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে গ্রাম এলাকাতে আরো বেশি সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
মন্ত্রিপরিষদ বলেন, আমরা যদি নিজেরা নিজেদের প্রতি যত্ম না নিই, তাহলে এই পরিস্থিতি থেকে উত্তরণ দূরহ হবে। মুসল্লিদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হয়েছে যাতে নিজেদের ঘরে থেকে নামায পড়েন। মক্কা মদিনাতেও মসজিদের কর্মীদের নিয়ে শুধু জামাত পড়া হচ্ছে। আমাদের এখানেও এভাবে চলতে হবে। তিনি বলেন, আসছে লাইলাতুল বরাত একেবাইরেই নফল এবং ব্যক্তিগত ইবাদত, এটা কোনো দলবদ্ধ ইবাদতের বিষয় না। এই বিষয়টিতেও মন্ত্রিসভা অনুরোধ জানিয়েছেন সবাই যেন ঘরে নামায পড়েন। সেই সঙ্গে কোভিড-১৯ থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আল্লাহর দরবারে দোয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে।
রমজান মাসে সব সরকারি, আদা-সরকারি এবং স্বায়ত্তশাসিত ও আধা স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের জন্য অফিস সময় পরিবর্তন করে সকাল ৯টা থেকে বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত করা হয়েছে। এছাড়া ছোটখাটো অপরাধে যারা দীর্ঘদিন ধরে জেলে আছেন এবং হত্যা, ধর্ষণ ও অ্যাসিড মামলার আসামি নয় কিন্তু ইতোমধ্যে বহুদিন জেল খেটেছেন এমন কয়েদিদের কীভাবে মুক্তি দেয়া যায়, সে বিষয়ে একটি নীতিমালা করতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।
সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে গণভবনে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ সময়সূচি নির্ধারণ করে দেয়া হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সরকারি অফিস রোববার থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত অফিস চলবে। দুপুর সোয়া ১টা থেকে দেড়টা পর্যন্ত যোহরের নামাজের বিরতি থাকবে। শুক্রবার ও শনিবার সাপ্তাহিক ছুটি থাকবে।
তবে ব্যাংক, বীমা, অন্যান্য আর্থিক প্রতিষ্ঠান, ডাক, রেলওয়ে, হাসপাতাল, রাষ্ট্রায়ত্ত শিল্প প্রতিষ্ঠান, কলকারখানা এবং অন্যান্য প্রতিষ্ঠান যাদের সার্ভিস অতি জরুরি তারা তাদের নিজস্ব বিধি বিধান অনুযায়ী জনস্বার্থ বিবেচনা করে অফিসসূচি নির্ধারণ ও অনুসরণ করবে। চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ২৫ এপ্রিল থেকে রোজা শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।
বৈঠক শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল সাংবাদিকদের বলেন, দীর্ঘদিনের বন্দি আসামিদের মুক্তি দিতে একটি প্রক্রিয়া ঠিক করার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। সেই আলোচনার ভিত্তিতে আমরা কাজ করছি। করোনাভাইরাসের সংক্রমণের বিষয়ে মন্ত্রিসভায় নতুন করে কোনো সিদ্ধান্ত হয়েছে কি না? এমন প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যেখানে আক্রান্ত বেশি, সেখানে লকডাউন করা হচ্ছে। এ বিষয়ে নতুন করে কোনো নির্দেশনা আসেনি। রফতানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চলে (ইপিজেডে) মাস্ক ও পিপিই বানায় এমন কারখানাগুলো খোলা থাকবে, বাকিগুলো বন্ধ থাকবে, এমন সিদ্ধান্ত হয়েছে।
ক্ষতিকর রাসায়নিক ব্যবহারে মৎস্যপণ্য বাজারজাতে ৭ বছর জেল : এদিকে ক্ষতিকর রাসায়নিক পদার্থ ব্যবহার করে মৎস্য বা মৎস্যপণ্য বাজারজাত করলে সাত বছরের কারাদন্ড বা পাঁচ লাখ টাকা জরিমানার বিধান রেখে মৎস্য ও মৎস্যপণ্য (পরিদর্শন ও মাননিয়ন্ত্রণ) আইন, ২০২০› এর খসড়ার চ‚ড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।
এছাড়াও ‘বাংলাদেশ রেফারেল ইনস্টিটিউট ফর কেমিক্যাল মেজারমেন্টস আইন, ২০২০’ এর খসড়ার চ‚ড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভায়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (8)
Gøłãm Räbbï ৭ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৫৩ এএম says : 0
Narayangonj is the most dangerous n-cov19 area till now, PLEASE , set up emergency lab for all patients cov test....
Total Reply(0)
Md Ferdous Ahmed ৭ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৫৩ এএম says : 0
The attempt should be enforced strictly.
Total Reply(0)
Shahid Ali ৭ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৫৪ এএম says : 0
এখনো সময় আছে: সবার আগে ঘরে ঘরে ত্রাণ সামগ্রী পৌছিয়ে দিন নইলে বাঙ্গালীকে ঘরে রাখার চেষ্টা বৃথা যাবে। মনে রাখুন এদেরকে রুখতে না পারলে আপনিও বাঁজবেন না। [যদিও মরা-বাঁচা আল্লাহর হাতে] আর্মি, সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী পুলিশ, আনছার, কোস্টগার্ড বিজিবি, বাংলাদেশে যতগুলো বাহিনী আছে প্রায় ৮৭ হাজার গ্রাম, সকল গ্রামে এদের কঠোর অবস্থান নিশ্চিত করুন। একজন লোকও প্রয়োজন ছাড়া বাহিরে বের হওয়ার সাহস করবেনা। অন্য দিকে চিকিৎসার সকল সরঞ্জামাদি ব্যাবস্থা করুন। সেই সাথে সামান্য লক্ষণ দেখা মাত্র সকলের করোনা টেস্ট নিশ্চিত করুন। কারণ একজন করোনা রুগীও যদি অধরা থেকে যায় তাহলে অবস্থা আবারও খারাপের দিকে যাবে। সুতরাং টেস্ট নিয়ে কৃপণতা করবেন না। এতে আমাদের সকলেরই খারাপ বয়ে আনবে।
Total Reply(0)
Fariha Onny Chowdhury ৭ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৫৪ এএম says : 0
আমাদের প্রিয় নেত্রী জনগণের কষ্ট সহ্য করতে পারে না। কিন্তু আমাদের জেলা পর্যায়ের নেতাকর্মীদের ক্ষুধা শেষ হয়না।
Total Reply(0)
Mahbub Ullah ৭ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৫৫ এএম says : 0
এখন প্রনোদনা থেকে বেশি জরুরি প্রধানমন্ত্রীরর নেতৃত্বে সেন্ট্রাল টাস্ক ফোর্স গঠন করা।স্বাস্থ্য অধিদফতর ও IEDCR উপর আর ভরসা করা যাবে না।
Total Reply(0)
Shameem Chowdhury ৭ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৫৫ এএম says : 0
আর এক মুহুর্ত বিলম্ব না করে পুরোপুরি দেশ Lock down করে দিতে হবে।নাহলে করোনাভাইরাস নাগালের বাইরে চলে যাবে।
Total Reply(0)
Alauddin Khan ৭ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৫৫ এএম says : 0
আমরা যারা প্রবাসীরা আছি আমাদের জন্য কি করেছেন আমরা যে দেশ ও আসতেছি এই মুহূর্তে আমরা কি না খেয়ে মারা যাবো আমাদের কথা তো কথা উল্লেখ করে নাই
Total Reply(0)
MD Atik Hassan ৭ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৫৬ এএম says : 0
অনুদান গুলো দেশের সকল নাগরিক সমান পাবে কি? না কি যত চেয়ারম্যান নেতাদের পকেট ভারী হবে এটাই প্রশ্ন রহিলো।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন