ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭ আশ্বিন ১৪২৭, ০৪ সফর ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

অ্যান্টি-প্যারাসাইটিকেই মরছে করোনাভাইরাস : দাবি গবেষণায়

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ এপ্রিল, ২০২০, ১২:০১ এএম

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসকে বাগে আনতে এই মুহূর্তে গোটা বিশ্বের তাবড় গবেষকেরা ল্যাবরেটরিতে প্রাণপাত করছেন। কয়েক দিনের মধ্যে আমেরিকার তৈরি ভ্যাকসিনের হিউম্যান ট্রায়ালও শুরু হয়ে যাবে। ভ্যাকসিন তৈরির দৌড়ে আছে অস্ট্রেলিয়াও। কিন্তু, যাবতীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা সেরে বাজারে আসতে আসতে করোনার থাবার আরও অন্তত লক্ষাধিক মানুষ মারা পড়বেন। কিন্তু, তার আগেই আশার আলো দেখাচ্ছেন অস্ট্রেলিয়ারই প্রথমসারির এক বিশ্ববিদ্যালয়ের রিসার্চ টিম।
মোনাশ বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই গবেষকদের দাবি, অ্যান্টি-প্যারাসাইটিক বা পরজীবীনাশক ওষুধেই মরবে করোনাভাইরাস। তারা আরও জানান, এই অ্যান্টি-প্যারাসাইটিকে মাত্র ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই ধরাশায়ী হবে করোনাভাইরাস।
গবেষকরা আরও জানাচ্ছেন, অ্যান্টি-প্যারাসাইটিক ওষুধ ইভারমেকটিন একটি ডোজই করোনাভাইরাস থামিয়ে দিতে পারে। স¤প্রতি অ্যান্টিভাইরাল রিসার্চ জার্নালে এই গবেষণাপত্রটি প্রকাশিত হয়েছে। অনুমোদিত এই ওষুধটি এইচআইভি, ডেঙ্গি এবং ইনফ্লুয়েঞ্জাসহ ভাইরাসের বিরুদ্ধে কার্যকর।
মোনাশ বায়োমেডিসিন ডিসকভারি ইনস্টিটিউটের ওই গবেষকদলের অন্যতম ডক্টর ক্যালিয়ে ওয়াগস্টাফ শুক্রবার বলেন, ‘আমরা দেখেছি, ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সমস্ত ভাইরাল আরএনএ থেকে মুক্তি দিতে পারে ইভারমেকটিনের একটি ডোজ।
তবে, এই ওষুধটি শুধুমাত্র ল্যাবেই পরীক্ষামূলকভাবে প্রয়োগ হয়েছে। এখনও পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত রোগীর শরীরে পরীক্ষা করে দেখা হয়নি। তবে গবেষকারা আশাবাদী, ইভারমেকটিনের এক ডোজই মানব কোষে বেড়ে ওঠা করোনাভাইরাসকে থামিয়ে দিতে পারবে। তিনি জানান, মানবদেহে ওষুধটির সঠিক ডোজ নির্ধারণের জন্য আরও কয়েক দফায় পরীক্ষা করতে হবে। এর কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে কি না, সে বিষয়ে নিশ্চিত হয়ে তবেই চ‚ড়ান্ত সিদ্ধান্তে তারা পৌঁছবেন।
ডক্টর ক্যালিয়ে ওয়াগস্টাফের কথায়, করোনায় বিশ্বব্যাপী মহামারী দেখা দিয়েছে। এর অনুমোদিত কোনও চিকিৎসা নেই। বর্তমান প্রেক্ষিত বিবেচনা করে এমন একটি যৌগ তৈরি করতে হবে, বিশ্বের সর্বত্র পাওয়া যায়।
করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ এর থাবায় শুক্রবার, ৩ এপ্রিল পর্যন্ত গোটা বিশ্বে ৫৮ হাজার ১৩৬ জন মারা গিয়েছেন। আক্রান্ত ১০ লাখ ৮১ হাজার ২৮৫ জন। ২ লাখেরও বেশি আক্রান্ত সুস্থ হয়ে উঠেছেন। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (10)
MD Atik Hassan ৭ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৫৭ এএম says : 0
Try too better effort
Total Reply(0)
Tapan Ray ৭ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৫৭ এএম says : 0
আর কতদিন শুধু দাবী করবেন ? এবার বাস্তভে করে দেখান । চতুর্দিকে শুধু দাবী কিন্তু আসল কাজ নেই ।
Total Reply(0)
রোদেলা সিম্ফনি ৭ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৫৭ এএম says : 0
সে না হয় মরছে !! তবে মানুষ বাঁচছে না কেনো !!
Total Reply(0)
Md MostafizurRahman Banijjo ৭ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৫৮ এএম says : 0
Drugs er formula ta janiye dewa hok taratari trials suru korun.
Total Reply(0)
Ipsit Chatterjee ৭ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৫৯ এএম says : 0
করোনা গোমূত্র উটমূত্র পার্টি একদম কমিয়ে দিয়েছে। করোনার অনেক খারাপ দিক থাকলেও কিছু ভালো দিক আছে যেমন লোক মারলেও এ ধর্মনিরপেক্ষ। দূষণ হু হু করে কমিয়ে দিয়েছে। অনেক বিশেষ বিজ্ঞানী যারা মেঘ থেকে হাসগরু সবেতেই বিশেষ জ্ঞানের অধিকারী করোনার ভয়ে মুখে কুলুপ এটেছে কেউ কেউ বিদেশ ভ্রমণের সাহস পাচ্ছে না।
Total Reply(0)
Khan Ifteakhar ৭ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৫৯ এএম says : 0
যেকোনো দেশই ওষুধ আবিষ্কার করুক..আমাদের কোনো অসুবিধা নেই.. সব ভেদাভেদ ভুলে এই মরণব্যাধি কে আটকাটেই হবে...একটাই অনুরোধ যত তাড়াতাড়ি হোক ওষুধ বা ভ্যাকসিন আনুন... যাতে এই মৃত্যু মিছিল বন্ধ করা যায়
Total Reply(0)
Purnima Sarkar ৭ এপ্রিল, ২০২০, ১:০০ এএম says : 0
সবাই শুধু আবিষ্কারই করছে,,মানব দেহে প্রয়োগ করছে না
Total Reply(0)
রামানূল ৭ এপ্রিল, ২০২০, ৬:২৭ এএম says : 0
আমাদের দেশের অনেক মন্ত্রী করোনার থেকেও শক্তিশালী,তো তাদের যে করোনানাশী মারণাস্ত্র আছে, সেটা ব্যবহার করছে না কেন? তা হলে বিশ্ববাসীও বেঁচে যায় আমাদের সরকারও একটা নোবেল পুরস্কার পেয়ে পৃথিবীর সামনে দেশজাতীর মান সন্মান বেড়ে যায়। এই সব বাক্যবাগিশদেরকে বৃন্দাবনে কৃষ্ণের কাছে পাঠানো দরকার, যাতে কৃষ্ণ তাদেরকে ভালভাবে *-+*-+।
Total Reply(0)
মোশাররফহোসেন ৭ এপ্রিল, ২০২০, ৮:০০ এএম says : 0
ঔষধ আবিষ্কারে কথা বলা হচ্ছে কিন্তু বাস্তবেে পরিখখা করে কাউকে করোনা রোগীর গায়ে পুশ করে দেখাক তাহলে ত রোগ মুখত হবে মানুষ আশার আলো দেখবে আর আমরা এ আশা টুকু করি
Total Reply(0)
Sokina ১৭ মে, ২০২০, ২:১৫ পিএম says : 0
দাবি করছেন ভাল কথা প্রমান করে দেখান দিখি,,,,
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন