ঢাকা, মঙ্গলবার, ০২ জুন ২০২০, ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৯ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

খাদ্য ও ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ ৮ এপ্রিল

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ এপ্রিল, ২০২০, ৯:৫১ এএম | আপডেট : ৯:০০ পিএম, ৮ এপ্রিল, ২০২০

কলাপাড়ার কর্মহীন ও অসহায় মানুষের দুয়ারে খাদ্য সহায়তা নিয়ে এমপি অধ্যক্ষ মুহিব

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি
করোনা আক্রান্ত হওয়ার ভয়কে উপেক্ষা করে প্রধান মন্ত্রীর নির্দেশক্রমে কর্মহীন মানুষের দুয়ারে দুয়ারে খাদ্য সহয়তা নিয়ে ছুটছেন পটুয়াখালী-৪, কলাপাড়া-রাঙাবালী-মহিপুর আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ অধ্যক্ষ মহিববুর রহমান মুহিব।

চলমান করোনা দুর্যোগে তার নিজ নির্বাচনী এলাকায় প্রায় প্রতিটি আশ্রায়কেন্দ্রে কর্মহীন হয়ে পরা হতদরিদ্র মানুষের ঘরে ঘরে যাচ্ছেন তিনি। সকাল থেকে রাত অবদি এসব মানুষের মাঝে নিজস্ব অর্থায়নে পৌছে দিচ্ছেন খাদ্য সহয়তা। বিতরণ অব্যহত রেখে মধ্যোরাত থেকে গভীর রাত পর্যন্ত কলাপাড়ার ধানখালী ও চম্পাপুর ইউনিয়নের ৫ টি আবাসন পল্লীতে দুই শতাধিক পরিবারের মাঝে চাল, ডাল, আলু. তেল. পিয়াজ, সাবানসহ খাদ্য উপকরন বিতরণ করেণ তিনি। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশক্রমে এ সঙ্কট মোকাবেলায় শেষ পর্যন্ত খাদ্যসামগ্রী বিতরণ অব্যহত রাখবেন বলে জানান সংসদসদস্য অধ্যক্ষ মো: মুহিব।

 

 

গৌরনদীতে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
গৌরনদী (বরিশাল)উপজেলা সংবাদদাতা

বরিশালের গৌরনদী উপজেলার নলচিড়া ইউনিয়নে সরকারি ও ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম হাফিজ মৃধার ব্যক্তিগত অর্থায়নে গতকাল বুধবার দুপুরে ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের প্রাঙ্গনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সৈয়দা মনিরুন নাহার মেরী, পৌর মেয়র হারিছুর রহমান, ইউএনও ইসরাত জাহান, এসিল্যান্ড ফারিহা তানজিন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জিনিয়া আফরোজ হেলেন, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আহসান হাবীব।

 

 

শ্রমজীবী ও ক্ষুদ্র আয়ের মানুষকে খাদ্য সামগ্রী দিল শাহ্রিয়ার স্টীল মিলস
স্টাফ রিপোর্টার

করোনাভাইরাসে ক্ষতিগ্রস্ত শ্রমজীবী ও ক্ষুদ্র আয়ের মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ শাহ্রিয়ার স্টীল মিলস লিমিটেড। বুধবার ( ৮ এপ্রিল) মুন্সিগঞ্জে দেশের খ্যাতনামা রড ও লৌহজাত পণ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান শাহরিয়ার স্টীল মিলস লিমিটেডের ( এসএস‌আরএম) আয়োজনে ক্ষতিগ্রস্ত ২ হাজার শ্রমজীবী ও ক্ষুদ্র আয়ের মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য বিধি মেনে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন কোম্পানীর ব্যবস্থাপনা পরিচালক শেখ মাসাদুল আলম মাসুদ ও শ্রীনগরের কোলাপাড়া উচ্চ বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি শেখ মো. আজহার। সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন শ্রীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোসাম্মৎ রহিমা আক্তার, শ্রীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ হেদায়াতুল ইসলাম। বিতরণ ব্যবস্থাপনায় ছিলেন কোলাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হাজী নেসার উল্লাহ্ সুজন। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন এলাকার স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

 

করোনাভাইরাসে ঘরবন্ধী কর্মহীন মানুষের পাশে আমিন মোহাম্মদ গ্রুপ


প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে ঘরবন্ধী হয়ে পড়া দিন মজুর ও নিম্ন আয়ের শ্রমজীবী মানুষের কাছে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছে দেশের শীর্ষস্থানীয় রিয়েল এস্টেট কোম্পানী আমিন মোহাম্মদ গ্রুপ। বুধবার (৮ এপ্রিল) মুন্সিগঞ্জ জেলার লৌহজং উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের হতদরিদ্র, দিনমজুর, রিক্সা ও পরিবহন শ্রমিকসহ অসহায় পরিবারের কাছে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের মিডিয়া ও জনসংযোগ প্রধান এবং দৈনিক সময়ের আলোর প্রকাশক গাজী আহমেদ উল্লাহ।

দেশের এ ক্রান্তিকালে সামাজিক দায়বদ্ধতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডাকে সাড়া দিয়ে সামাজিক দূরত্ব, স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রতিটি পরিবারে ১০ কেজি চাল, ৫ কেজি আলু, ২ কেজি ডাল, ২ লিটার তেল, ১ কেজি লবণ, ১ কেজি পেঁয়াজ ও ১ টি বড় লাইফবয় সাবান বিতরণ করা হয়। নিম্ন আয়ের শ্রমজীবী মানুষরা খাদ্য সামগ্রী পেয়ে খুশির কথা জানান। পরিবহন শ্রমিক মানিক শেখ বলেন, আমিন মোহাম্মদ গ্রুপ যে কোন দুর্যোগকালে এ এলাকার দরিদ্র মানুষের পাশে দাড়ায় ও সহযোগিতা করেন। রিক্সা চালক মো. জাহাঙ্গীর বলেন এ কোম্পানির মালিক আমাদের যেকোন আপদে বিপদে পাশে দাড়ায়। আল্লাহ তাদের মঙ্গল করুক।

আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের মিডিয়া ও জনসংযোগ বিভাগের প্রধান গাজী আহমেদ উল্লাহ বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে উপার্জন বন্ধ হওয়া দিন মজুর ও নিম্ন আয়ের মানুষকে আমিন মোহাম্মদ গ্রুপ ও দৈনিক সময়ের আলোর পক্ষ থেকে খাদ্য সামগ্রী বিতরণের কাজ শুরু হয়েছে, মাসব্যাপী এ কর্যক্রম চলমান থাকবে। পর্যায়ক্রমে রাজধানীসহ বিভিন্ন অঞ্চলে ৫০০০ পরিবারের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হবে এবং প্রয়োজন বোধে নগদ টাকাও প্রদান করা হবে।

তিনি আরও বলেন, আমিন মোহাম্মদ গ্রুপের স্বপ্ন দ্রষ্টা ও চেয়ারম্যান এম এম এনামুল হক দেশের যে কোন সংকটকালীন মুহুর্তে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী দেশ ও মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে আর ভবিষ্যতে তা অব্যাহত থাকবে। দেশের এ ক্রান্তিকালে মহামারী করোনাভাইরাস মোকাবেলায় প্রতিষ্ঠানটি দেশ ও মানুষের জন্য কাজ করে যাবে। খাদ্য সামগ্রী বিতরণের সময় কোম্পানীর সহকারী মহা-ব্যবস্থাপক আবুল কাশেম খান খোকনসহ স্থানীয় মো. জহির, খালিদ হোসেন সঞ্চয়, রাশেদ আহমেদ বাবু, মহিউদ্দিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

 

কুমিল্লায় বেতনের টাকায় ২ হাজার পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী দিল পুলিশ

ভ্রাম্যমাণ সংবাদদাতা

কুমিল্লা জেলা পুলিশ সদস্যদের বেতনের টাকায় দুই হাজার পরিবারকে খাদ্যসামগ্রী দেওয়া হয়েছে। বুধবার (৮ এপ্রিল) বিকালে কুমিল্লা পুলিশ লাইনসের শহীদ আরআই এবিএম আবদুল হালিম মিলনায়তনে জেলা পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম এই খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কাজের উদ্বোধন করেন।
জেলা পুলিশ সূত্র জানায়, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রকোপের কারণে জেলার ১৮টি থানা এলাকায় দরিদ্র, অসহায় ও কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষকে সহায়তার লক্ষ্যে কুমিল্লা জেলা পুলিশ কর্তৃক গঠিত খাদ্য সংরক্ষণ এবং প্রক্রিয়াজাতকরণ কেন্দ্র থেকে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়। ২ হাজার পরিবারের জন্য তৈরি করা প্রতি ব্যাগে রয়েছে পাঁচ কেজি চাল, দুই কেজি আলু, এক কেজি ডাল, এক কেজি পেঁয়াজ, এক লিটার তেল ও এক পিস সাবান।

খাদ্যসামগ্রী বিতরণকালে পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম বলেন, কুমিল্লা জেলা পুলিশ করোনা সংক্রমণের প্রথম সময় থেকে সক্রিয় রয়েছে। সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করা, প্রবাস থেকে দেশে আসা ১৫ হাজারের বেশি প্রবাসীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে তালিকা তৈরি, বাড়িতে সঙ্গরোধের বিষয়টি নিশ্চিত করাসহ সার্বক্ষণিক সাধারণ মানুষের পাশে রয়েছে। পাশাপাশি স্বেচ্ছা প্রণোদিত হয়ে জেলা পুলিশের সদস্যরা তাদের বেতনের টাকা থেকে আজ দু’হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছে।
খাদ্যসামগ্রী বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের (প্রশাসন ও অর্থ) দায়িত্বে থাকা (পদোন্নতিপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার) মো.আব্দুল্লাহ আল মামুন, মোহাম্মদ শাখাওয়াৎ হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) আজিম উল-আহসান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) তানভীর সালেহীন ইমন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হেড কোয়ার্টার) নাজমুল হানাসসহ জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

 

সাড়ে ৮ হাজার মানুষকে শবে বরাতের জন্য আটা দিয়েছে পঞ্চগড় পৌরসভা
পঞ্চগড় জেলা সংবাদদাতা


পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষে সাড়ে ৮ হাজার মানুষকে দুই কেজি করে ১৭ মেট্রিক টন আটা দিয়েছে পঞ্চগড় পৌরসভা। এর মধ্যে পৌরসভার অর্থায়নে ১২ মেট্রিক টন এবং জেলা পরিষদসহ অন্যরা দিয়েছেন বাকি ৭ মেট্রিক টন। গতকাল বুধবার সকালে পৌর ভবনে আটা বিতরণ উদ্বোধন করেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার সাদাত সম্রাট। এসময় পৌর মেয়র মো. তৌহিদুল ইসলাম, পৌর কাউন্সিলর দিলখুশা প্রধান বিপ্লবী, শাম্মি আরা হাসনুসহ পৌর পরিষদের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে পঞ্চগড়ের তিনটি পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন, রিকসা শ্রমিক ইউনিয়ন ও হোটেল রেস্টুরেন্ট শ্রমিক ইউনিয়নের সদস্যদের ১০ কেজি করে চাল ও ২ কেজি করে আলু দিয়েছে পঞ্চগড় পৌরসভা।

 

মধুখালীতে আকরামুজ্জামান ফাউন্ডেশনের খাদ্য সামগ্রী বিতরন

ফরিদপুর জেলা সংবাদদাতা
“এসো জীবন দখল করি,তারপর,বিলিয়ে দেই-দেশ ও মানুষের কল্যাণে ....” এই প্রতিপাদ্যকে বুকে ধারন করে অঘোষিত লকডাউনের ফলে ফরিদপুরের মধুখালীতে প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের প্রভাবে নিন্ম আয়ের খেটে খাওয়া মানুষ বেকার হয়ে যাওয়ায় খাদ্য সংকটে পরেছে পরিবার পরিজন নিয়ে। এই মহাসংকট মোকাবেলায় মির্জা আকরামুজ্জামান ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে পৌরসভার ৩ হাজার ৫শটি অসহায় পরিবারের মাঝে খাদ্য সহযোগিতা প্রদান কর্মসুচীর উদ্বোধন করেন উপজেলা চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মধুখালী শাখার সভাপতি মির্জা মনিরুজ্জামান বাচ্চু।

আজ বুধবার বেলা সাড়ে ১১ টায় পৌর সদরে অবস্থিত আখচাষী মহিলা ডিগ্রী কলেজ মাঠে মির্জা আকরামুজ্জামান ফান্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান এবং মধুখালী বাজার বণিক সমবায় সমিতির সাধারন সম্পাদক মির্জা মাঝহারুল ইসলাম মিলনের সভাপতিত্বে খাদ্য সামগ্রী বিতরণীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মো.রেজাউল হক বকু।

এ সময় ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তা ও সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন । প্রথম দিন ১নং ওয়ার্ডের ১৯১ জনসহ পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডের ৩হাজার ৫শজন অসহায় ও দুস্থ পরিবারের মধ্যে পর্যায় ক্রমে ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হবে ।।

 

রামগড়ে ১ম জীব শ্রমিকদের মাঝে জেলা প্রশাসকের সহযোগিতায় ত্রাণ বিতরণ করলেন ইউএনও

রামগড়(খাগড়াছড়ি)উপজেলা সংবাদদাতা
করোনার প্রভাবে রামগড় উপজেলায় জীব চালক ও সহকারী চালক সমিতি ইউনিয়ন এর সদস্য ও পরিবারের মাঝে ত্রান বিতরণ করেছেন ইউএনও আ,ন,ম বদরোদ্দোজা। বুধবার (৮ এপ্রিল) দুপুর ১২টায় ত্রিপুরা যুব কল্যাণ সমিতির মাঠে এই প্রথম রামগড় উপজেলা জীব শ্রমিকদের মাঝে খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসকের সহযোগিতায় ৬০ পরিবারের হাতে ১০ কেজি করে চাউল ত্রাণ হিসেবে তুলেদেয়া হয়।

রামগড় উপজেলা জীব চালক ও সহকারী চালক সমিতির সভাপতি আলাউদ্দিন ও সম্পাদক সাইফুল ইসলাম এ প্রতিনিধিকে বলেন- খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসকের সহযোগিতায় রামগড় উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে তাদের সদস্য ও পরিবারের হাতে ত্রাণ তুলে দেয়ায় রামগড়ের ইউএনও’র মাধ্যমে জেলা প্রশাসককে সদস্য ও পরিবারের পক্ষথেকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

এসময় রামগড় উপজেলা নির্বাহী অফিসার আ,ন,ম বদরোদ্দোজা বলেন- বর্তমানে সারাদেশেরন্যায় রামগড়ে করোনার প্রভাবে ক্ষেতে খাওয়া কর্মজীবি মানুষরা অসহায় হয়ে পরছে। তাদেরে কথা বিবেচনা করে খাগড়াছড়ি জেলার জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস জীব চালক ও পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছেন মাত্র। এ ধরনের কার্যক্রম মন্ত্রনালয়ের র্নিদেশক্রমে অত্র উপজেলায় ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত রয়েছে বলে জানান ইউএনও আ,ন,ম বদরোদ্দোজাম। এসময় উপস্থিত ছিলেন জীব চালক সমিতির সদস্য-সদস্যাসহ পরিবারের সদস্য বৃন্দ।

 

পবিত্র শবে বরাতে অসহায় পরিবারের পাশে শেখ সুজন
খুলনা ব্যুরো
পবিত্র শবে বরাত উপলক্ষ্যে নগরীর নিম্ম ও মধ্যবিত্ত পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজন। বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, খুলনা মহানগর শাখা এর যুগ্ম আহবায়ক নগরীর ৬ হাজার পরিবারের কাছে খাবার পৌঁছে দিয়েছেন ব্যক্তিগত তহবিল থেকে।

শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজন এর পক্ষ থেকে আজ সোমবার দুপুরে বাস্তহারা এলাকায় ২শ’ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন মোঃ এনামুল হক বাবলু, মোঃ জুয়েল হোসেন দিপু, বেল্লাল তালুকদার, মো: ফরিদ ইসলাম, নুর মোহাম্মাদ খান, মোশাররফ হোসেন।

শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজন জানান, “প্রধানমন্ত্রী’র নির্দেশনা অনুযায়ী নিম্ম ও মধ্যবিত্ত খেটে খাওয়া পরিবারে পাশে আমি আমার সামর্থ অনুযায়ী দাড়িয়েছি। ভবিষ্যতেও থাকবো। তিনি আরো জানান, ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীরা তাদের নিজ নিজ এলাকার নিম্ম ও মধ্যবিত্তদের বাড়ী বাড়ী পৌঁছে দিয়েছেন সহায়তা।
খালিশপুর থানার ছাত্রলীগ নেতা মো: জাহিদুল ইসলাম ইনকিলাবকে বলেন, শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজন এর নির্দেশনা মোতাবেক আমাদের নিজ নিজ এলাকার নিম্ম ও মধ্যবিত্তদের বাড়ী বাড়ী খাবার পৌঁছে দিয়েছি। এছাড়া তাদের নিয়মিত খোজ খবর রাখছি। যারা লজ্জায় সাহায্য চাইতে পারে না এমন পরিবার খুজে বের করে তাদের বাসায় গোপনে খাবার পৌছে দিচ্ছি।

 

বালিয়াকান্দির জামালপুর ইউনিয়ন বিএনপির উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ
বালিয়াকান্দি (রাজবাড়ী) উপজেলা সংবাদদাতা
রাজবাড়ী জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি এইচ এম তৌফিক এলাহী কবিরের ও জামালপুর ইউনিয়ন বিএনপির সহযোগীতায় বুধবার সকালে করোনার প্রাদুর্ভাবে কর্মহীন ও শ্রমজীবি দুঃস্থ অসহায় দুই শত পরিবারের মধ্যে বাড়ী বাড়ী গিয়ে ৫ কেজি করে চাউল, এক কেজি চাউল, দুই কেজি আটা, পাঁচশত গ্রাম তৈল ও একটি করে সাবানসহ ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। উপজেলার জামালপুর ইউনিয়ন বিএনপির উদ্যোগে জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি, জেলা বিএনপির উপদেষ্টা ও জামালপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি মীর মনিরুজ্জামান বাবুর নিজ বাড়ীতে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণের এ সময় জামালপুর ইউনিয়ন বিএনপির সহ-সভাপতি রনজু সরদার, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান মৃধা, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদুল ইসলামসহ বিএনপির নেতা কর্মিরা উপস্থিত ছিলেন। উপস্থিত লোকজনের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ শেষে ইউনিয়ন বিএনপির নেতা কর্মীদের মাধ্যে বিভিন্ন ওয়ার্ডে ভ্যান যোগে এই ত্রাণ সামগ্রী বাড়ী বাড়ী পৌছে দেওয়া হয়।

 

রাতের আঁধারে অসহায়দের ঘরে খাবার পৌঁছে দিচ্ছে আনন্দ সংঘ
মীরসরাই (চট্টগ্রাম) উপজেলা সংবাদদাতা
বাড়ি বাড়ি গিয়ে অসহায়, দরিদ্র ও কর্মহীন মানুষগুলোর কাছে রাতের আঁধারে খাবার পৌঁছে দিচ্ছে মীরসরাই উপজেলার একটি সেচ্ছাসেবী ও সামাজিক সংগঠন। আনন্দ সংঘ নামের ওই সংগঠনের কর্মীরা কর্মহীন হয়ে পড়া এবং খেটে খাওয়া এসব মানুষগুলো খাবার দিয়ে আসছেন।

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে কার্যত লকডাউনে রয়েছে মীরসরাই সহ তথা পুরো দেশ। চলছে সাধারণ ছুটি। ফলে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন খেটে খাওয়া মানুষগুলো। মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য এই মন্ত্রে ব্রত হয়ে তাদের প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন অনেকেই। সরকারি-বেসরকারি উদ্যোগেও দেয়া হচ্ছে ত্রাণ।


তবে একেকজনের সহায়তা করার ধরণ একেক রকম। কেউ দিচ্ছেন প্রকাশ্যে আবার কেউ গোপনে। এরই ধারাবাহিকতায় মীরসরাই উপজেলার ১৩নং মায়ানী ইউনিয়েনের আনন্দ সংঘ নামে একটি সেচ্ছাসেবী ও সামাজিক সংগঠনের উদ্যোগে রাতের আঁধারে নিরবে ত্রাণ বিতরণ করছেন অসহায়, দরিদ্র ও কর্মহীন মানুষদের। রাতের আঁধারে তাদের ঘরে ঘরে খাদ্য সামগ্রি যেমন চাল,ডাল, আলু,পেয়াজ, তেল, লবণ,নাপা এবং সাবানের প্যাকেট নিয়ে রাতের আঁধারে খোঁজ খবর নিয়েই তারা এই প্যাকেটগুলো অসহায়, দরিদ্র ও কর্মহীন মানুষের বাড়িতে রেখে আসেন।
আনন্দ সংঘের সভাপতি ইয়াছিনুল কিবরিয়া ও সাধারণ সম্পাদক আব্বাস উদ্দিন মুন্না জানান, আমাদের আনন্দ সংঘ একটি অরাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন। শুধুু মায়ানী না পুরো মীরসরাইতে অসহায় মানুষদের সহযোগিতা করা এই সংগঠনের মূল উদ্দেশ্য। তাছাড়াও করোনার ভাইরাসের ভয়াবহতা নিয়ে সচেতন করার জন্য প্রজেক্টর এর মাধ্যমে বড় পর্দা ভিডিও দেখিয়ে মানুষে সচেনত করার চেষ্টা করছি।

আনন্দ সংঘের সিনিয়র সদস্য তোফায়েল আহম্মেদ বলেন, অসহায়, দরিদ্র ও কর্মহীন মানুষের অবস্থা খুব সংকটে। এই মুহুর্তে সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি সংগঠন, ব্যক্তিদের এগিয়ে আসা দরকার। অনেকে ত্রাণ দিতে দেখা যায় কিন্তু আমরা আমাদের সংগঠনের সকল সদস্য সন্মতিক্রমে দিনের বেলা অসহায়, দরিদ্র ও কর্মহীন মানুষের লিষ্ট করে সেটা রাতের আঁধারে বাড়ি বাড়ি গিয়ে রেখে আসি।

 

লকডাউন : নোয়াখালীতে গরীব ও নিম্নআয় পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদান চলছে

নোয়াখালী ব্যুরো
লকডাউনে নোয়াখালীর বিভিন্ন উপজেলা ও পৌরএলাকায় নিম্নআয় ও দিনমজুর পরিবারকে সরকারী ও ব্যক্তি উদ্যোগে খাদ্য সহায়তা অব্যাহত রয়েছে।

দরিদ্র এলাকা হিসেবে পরিচিত মেঘনা বেষ্ঠিত হাতিয়া উপজেলা ও চরাঞ্চলের ৫০হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হচ্ছে। এজন্য প্রাথমিকভাবে ২০০ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া স্যানিটাইজার, মাস্ক, গ্লাবস ও সাবান বিতরণ করা হচ্ছে বলে জানান হাতিয়া আসনের এমপি আয়েশা ফেরদৌস। তিনি বলেন, খাদ্য সহায়তা প্রকল্প অব্যাহত থাকবে। আয়েশা ফেরদৌস এমপি ও হাতিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং সাবেক এমপি মোহাম্মদ আলী যৌথভাবে সার্বক্ষণিক মনিটারিং করছেন। তিনি আরো জানান, মেঘনা বেষ্ঠিত হাতিয়া উপজেলার সার্বিক বিষয় বিবেচনা করে এখানে সরকারী সহায়তা আরো বৃদ্ধি জন্য সংশিষ্ট মন্ত্রনালয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

নোয়াখালী সদর উপজেলায় ৫হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। সরকারীভাবে বরা›দ্দকৃত ২৩ মেট্রিক টন চালের সাথে ব্যক্তি উদ্যোগে আলু ও ডাল প্যাকেটজাত করে বিতরণ করা হচ্ছে। নোয়াখালী সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সামছুদ্দিন জেহান জানান, স্থানীয় এমপি একরামুল করিম চৌধুরী ও তিনি নিজে ব্যক্তিগত উদ্যোগে গরীরদের মাঝে নগদ অর্থ বিতরণ করেন। খাদ্য সহায়তা অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।

নোয়াখালী পৌর এলাকায় নি¤œআয়ের লোকজনের মধ্যে ইতিমধ্যে সরকারী বরাদ্দ ৮টন চাল বিতরণ করা হয়েছে। পৌর মেয়র শহিদ উল্লা খান সোহেল ব্যক্তিগত উদ্যোগে তিন হাজার পরিবারের মধ্যে চাল,ডাল,আলু, লবন, তেল, সাবান বিতরণ করেন।

সোনাইমুড়ি পৌরসভা সরকারীভাবে বরাদ্দকৃত ১ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হয়েছে। পৌর মেয়র মোতাহের হোসেন মানিক জানান, সরকার থেকে আরো চাল বরাদ্দের আশ্বাস পাওয়া গেছে। পৌর মেয়র ব্যক্তিগত উদ্যোগে পৌর এলাাকায় ৫ শতাধিক পরিবারের মাঝে নগদ অর্থ ও খাদ্য সহায়তা প্রদান করেন।

 

 

 

 

করোনা’য় কর্মহীন দুঃস্থদের মাঝে তারেক রহমানের প্রদত্ত ত্রাণ সামগ্রী গাবতলীর সোনারায়ে বিতরণ
গাবতলী (বগুড়া) উপজেলা সংবাদদাতা

বিএনপি ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের প্রদত্ত ও মোরশেদ মিল্টনের তত্ত্বাবধানে গতকাল বুধবার গাবতলী থানা বিএনপি ও সোনারায় ইউনিয়ন বিএনপি-অঙ্গদলের উদ্যোগে আটাপাড়া বাজারে করোনা ভাইরাস উপলক্ষে ১শত ৫০জন কর্মহীন ও অসহায় মানুষের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরন করা হয়েছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন থানা বিএনপি আহবায়ক কমিটির যুগ্ম আহবায়ক প্রভাষক আশরাফ হোসেন, সদস্য মতিয়ার রহমান মতি, প্যানেল মেয়র তাজুল ইসলাম, যুবদল নেতা রুহুল হাসান রুহিন, বিএনপি নেতা জসিউর রহমান সোহেল, আব্দুস সামাদ বিষু, মমিনুল হক দিপু, সিরাজুল ইসলাম, রাজা আহম্মেদ, আব্দুর রশিদ, আবু সায়েম, যুবদল নেতা সুলতান মাহমুদ, খোরশেদ আলম, আবু বক্কর, নাহারুল ইসলাম, ছাত্রদল নেতা সোহেল রানা, হাসান পলাশ, সোহানুর রহমান, দুলাল মিয়া প্রমূখ।

 

ঈশ্বরগঞ্জে বিএনপির খাদ্য সামগ্রী বিতরণ
ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) উপজেলা সংবাদদাতা
ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে করোনা ভাইরাসের কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে উপজেলা বিএনপিকরোনা ভাইরাস মোকাবিলায় সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণার পর থেকে বিপাকে পড়েন শ্রমজীবী মানুষ। দুর্ভোগ লাগবে কর্মহীন মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন উপজেলা বিএনপির সভাপতি লুৎফুল্লাহেল মাজেদ বাবু । পৌর এলাকায় এক হাজার ও উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে দুই হাজার পরিবারের মাঝে ওই খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার পৌর এলাকার মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করা হয়। প্রতি পরিবারকে দেওয়া হয়েছে চাল, ডাল,আলু, পেয়াজ, লবণ, তেল ও সাবান।

খাদ্য সামগ্রী বিতরণের সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি হুসেন মোহাম্মদ মন্ডল, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আহসান পারভেজ, পৌর বিএনপির সহ-সভাপতি সালাউদ্দিন খুররম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ নূরুন্নবী, পৌর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক তারেক আজীজ, পৌর বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক হায়দার আলী, ময়মনসিংহ উত্তর জেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম মিন্টু, উপজেলা যুবদলের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান জুয়েল, সাধারণ সম্পাদক মোজাম্মেল হোসেন নয়ন, পৌর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম শহীদ, ।

 

সুন্দরগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতিষ্ঠিত ‘কাটগড়া সবুজ মিলনায়তন ক্লাব’র উদ্যোগে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ

সুন্দরগঞ্জ(গাইবান্ধা)উপজেলা সংবাদদাতা

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতিষ্ঠিত ‘কাটগড়া সবুজ মিলনায়তন ক্লাব’র উদ্যোগে করোনা ভাইরাসের কারণে অসহায় ও কর্মহীন মানুষের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।


বুধবার(৮ এপ্রিল)সকাল ১০ টার দিকে উপজেলার বামনডাঙ্গা ইউনিয়নের মন্মথ গ্রামের কাটগড়ায় ক্লাব চত্বরে ২০০ পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়। এর আগে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে জনসচেতনতামূলক সংক্ষিপ্ত এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় স্থানীয় সুধি সাইদুজ্জামান সরকারের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার আশরাফুজ্জামান সরকার, কাটগড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইউনুস আলী প্রামানিক,বামনডাঙ্গা শিশু নিকেতন এন্ড মডেল হাই স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা আবুল কাশেম,বামনডাঙ্গা ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি শমেস উদ্দিন বাবু,আ’লীগ নেতা আব্দুল্লাহ-আল মেহেদী রাসেল,ক্লাবের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন ধলু,সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক ও রুবেল আহমেদ প্রমূখ। এসময় অতি বয়স্ক বীরমুক্তিযোদ্ধা ডাঃ নজরুল ইসলামসহ স্থানীয় সুধিজন উপস্থিত ছিলেন। ত্রাণ সামগ্রীর মধ্যে প্রতি পরিবারকে ৫ কেজি চাল,এক কেজি আলু,লবন,তেল,পিয়াজ,সাবান ও মসুর ডাল দেয়া হয়। উল্লেখ্য ১৯৭১ সালে স্থানীয় বীরমুক্তিযোদ্ধাগণ ঘাঘট নদীর তীরে এ ক্লাবটি প্রতিষ্ঠা করেন। পরবর্তিতে ক্লাবটি ঝিমিয়ে পরলে বর্তমানে তরুণ প্রজন্মের সহযোগিতায় ক্লাব ঘরটি কাটগড়া বাজারে স্থানান্তরসহ সকল কার্যক্রম উজ্জিবিত করা হয়।

 

দিনাজপুরে দলিত পরিবারের মধ্যে হুইপ ইকবালুর রহিমের ত্রাণ বিতরণ
দিনাজপুর অফিস

অফিস আদালত দোকান বন্ধ। সমাজের দলিত (সুইপার) পরিবারের কর্মক্ষমরা হয়ে পড়েছে বেকার। বেকার হয়ে পড়া ৩’শ দলিত পরিবারের মধ্যে চাল-ডাল-তেল-লবনসহ ত্রাণ দিয়েছেন দিনাজপুর সদর আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় সংসদের হুইপ এম ইকবালুর রহিম। প্রতিদিন সকল শ্রেনীর মানুষের মধ্যে নিজস্ব তহবিলের ত্রাণ বিতরণ করা হচ্ছে।

আজ বুধবার সকালে দিনাজপুর একাডেমী স্কুল মাঠ চত্বরে সংঘনিরোধ বজায় রেখে ত্রাণ বিতরণ করে তাদের করোণা ভাইরাস সর্ম্পকে সচেতন করা হয়। বাড়ী থেকে বের না হয়ে খাদ্যের প্রয়োজন হলেই মোবাইলে যোগাযোগ করার কথা বলা হয়। এ সময় স্কুল কমিটির সভাপতি চিত্ত ঘোষ, সাবেক পৌর চেয়ারম্যান সফিকুল হক ছুটু, আওয়ামীলীগ নেতা খালেকুজ্জামান রাজু ও সোহাগ উপস্থিত ছিলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
Md sohid ৮ এপ্রিল, ২০২০, ৬:৪১ পিএম says : 0
সরকারের বরাদ্দ কিছু আমি কি পাবো আামার জেলের নামের চাউল আমি পাইনি যদি সরকার যদি কিছু দেন সেনাবাহিনীর দারা দিলে পাবো
Total Reply(0)
Md sohid ৮ এপ্রিল, ২০২০, ৬:৪১ পিএম says : 0
সরকারের বরাদ্দ কিছু আমি কি পাবো আামার জেলের নামের চাউল আমি পাইনি যদি সরকার যদি কিছু দেন সেনাবাহিনীর দারা দিলে পাবো
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন