ঢাকা, শুক্রবার, ০৫ জুন ২০২০, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ১২ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

করোনা নেই, উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ এপ্রিল, ২০২০, ১১:৪৪ পিএম

করোনা নিয়ে সারা বিশ্বের ব্যস্ততার মধ্যেই উত্তর কোরিয়া চারটি ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে বলে জানা গেছে। দেশটিতে এখনও কেউ করোনায় আক্রান্ত হননি বলে দাবি করা হয়েছে।

করোনার আক্রমণ ঠেকাতে ইউরোপের আগেই প্রস্তুতি শুরু করেছিল উত্তর কোরিয়া। জানুয়ারির শেষে সরকারি পত্রিকা ‘রডং সিনমুম’ করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধকে জাতীয় অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখার সঙ্গে তুলনা করেছিল। এরপর থেকে এখন পর্যন্ত উত্তর কোরিয়ায় ঢোকা ও বের হওয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। বিমান ও ট্রেন চলাচল স্থগিত আছে। স্কুল, বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ আছে। কূটনীতিকসহ সব বিদেশিদের ৩০ দিনের কোয়ারান্টিনে রাখা হয়েছিল।

এমনকি দেশটির সামরিক বাহিনীও লকডাউন অবস্থায় ছিল বলে গত ১৩ মার্চ জানিয়েছিলেন সাউথ কোরিয়ায় নিয়োজিত যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনীর কমান্ডার জেনারেল রবার্ট অ্যাডামস। টানা ২৪ দিন উত্তর কোরিয়ার বিমানবাহিনীর কোনো বিমান ওড়েনি বলেও জানান তিনি। লকডাউন শেষে উত্তর কোরিয়ার সামরিক বাহিনী আবার নিয়মিত কাজ শুরু করেছে বলে জানিয়েছেন জেনারেল অ্য়াডামস।

ইতিমধ্যে চারটি ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার খবর পাওয়া গেছে। এর মধ্যে তৃতীয় পরীক্ষার পরদিন ২২ মার্চ উত্তর কোরিয়ার সরকারি বার্তা সংস্থা কেসিএনএ জানায়, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কিম জং উনকে একটি ব্যক্তিগত চিঠি লিখেছেন। চিঠিতে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক জোরদারের পাশাপাশি করোনা মোকাবিলায় সহযোগিতার কথা বলা হয়েছে বলে জানায় কেসিএনএ। হোয়াইট হাউস চিঠির বিষয়টি নিশ্চিত করলেও বিস্তারিত জানায়নি।

এখন পর্যন্ত কেউ করোনায় আক্রান্ত হননি বলে জানিয়েছে উত্তর কোরিয়া। তবে এই তথ্য বিশ্বাসযোগ্য মনে করছেন না অনেকে। তারা বলছেন, জানুয়ারির শেষ দিকে উত্তর কোরিয়া চীনের সঙ্গে মানুষের যাতায়াতের সব পথ বন্ধ করে দিলেও পণ্য পরিবহণের একটি পথ খোলা রেখেছে। এরপর দুইমাস ধরে করোনা চীনে বিস্তার লাভ করলেও সীমানায় গিয়ে ভাইরাস আটকে যেতে পারে বলে মনে করছেন না তারা।

ব্রিটিশ গবেষক আন্দ্রে আব্রাহামিয়ান বলছেন, এটা ‘একেবারে অসম্ভব’ যে উত্তর কোরিয়ায় কোনো করোনা নেই। তিনি সাউথ কোরিয়ার একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে কাজ করেন। সাউথ কোরিয়ায় এখন পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ১০ হাজার জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন, মারা গেছেন ২০০ জন।

মার্কিন জেনারেল অ্যাডামসও বলছেন, উত্তর কোরিয়ায় কোভিড-১৯ থাকার ব্যপারে মার্কিন সেনাবাহিনী ‘প্রায় নিশ্চিত’।

সাউথ কোরিয়ায় থেকে উত্তর কোরিয়া নিয়ে কাজ করা দৈনিক পত্রিকা ‘এনকে’ ৯ মার্চ এক প্রতিবেদনে জানায়, উত্তর কোরিয়ার ১৮০ জন সেনা ‘এমন লক্ষণ নিয়ে মারা গেছেন যা করোনা ভাইরাসের কারণে হতে পারে।’ এর দুই সপ্তাহ পর আরেক প্রতিবেদনে পত্রিকাটি শ্বাসপ্রশ্বাসের অসুখে কয়েকজন কারাবন্দির মৃত্যুর খবর দিয়েছিল। এরপর ঐ কারাগারে জীবাণুনাশক ছিটানো হয় বলে জানায় ঐ পত্রিকাটি। এসব খবর পরিবেশনের সময় অন্তত দুটি সূত্রের সঙ্গে তথ্য মিলিয়ে দেখা হয়েছে দাবি করেছে ডেইলি এনকে। সূত্র: ডয়চে ভেলে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন