শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৮ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

ইসলামী জীবন

ইসলামী কর্মতৎপরতা পীর সাহেব চরমোনাই

প্রকাশের সময় : ১৭ জুলাই, ২০১৬, ১২:০০ এএম

কিশোরগঞ্জ শোলাকিয়া ঈদগাহ সংলগ্ন এলাকায় সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মোঃ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই।
৭ জুলাই এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ঈদের জামাতে আসা মুসল্লীদের উপর সন্ত্রাসী হামলা কোন সুস্থ বিবেকবান মানুষ মেনে নিতে পারে না। এ হামলা ইসলাম ও মুসলমানদের বিরুদ্ধে গভীর চক্রান্তেরই অংশ। এ ধরনের হামলা ইসলাম কখনও সমর্থন করে না। তিনি হামলাকারী যুবকদের উদ্দেশ্যে বলেন, তোমরা যে পথে চলছো সেটা ইসলামের পথ নয়। তোমাদেরকে কোন ব্যক্তি বা গোষ্ঠী নিজেদের স্বার্থে বিপথে পরিচালিত করছে। ইসলামের পথে যদি চলতে চাও তবে ওলামায়ে কেরামের পরামর্শ মেনে চলো। এসব মানবতাবিরোধী সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সবাইকে সজাগ থাকারও আহ্বান জানান তিনি।
পীর সাহেব চরমোনাই অবিলম্বে সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার ও মূল হোতাদের ধরে আইনের আওতায় আনতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।
খেলাফত আন্দোলন ঢাকা
বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগীর আমীর মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী গুলশানের রেস্তোরাঁয় জিম্মি ও ভয়াবহ রক্তপাতের নজিরবিহীন ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে বলেছেন, দেশী-বিদেশী নাগরিকদের জিম্মি করে যারা এই নারকীয় হত্যাকা- চালিয়েছে তারা ইসলাম, দেশ ও মানবতার চিরশত্রু। এই শত্রুদের বিরুদ্ধে আলেম-উলামাসহ সর্বস্তরের মানুষদেরকে রুখে দাঁড়াতে হবে। যারা মাথায় রুমাল বেঁধে আলাহু আকবার ধ্বনী দিয়ে হামলা চালিয়েছে তারা ইসলামের দুশমন। এ হামলার রহস্য উদঘাটন করতে হবে।
তিনি বলেন, এ ধরনের বীভৎস ও হৃদয়বিদারক হত্যাকা- দেশের শান্তি ও সুস্থিতির জন্য মারাত্মক হুমকিস্বরূপ। এতে জনগণ চরম উদ্বিগ্ন ও উৎকণ্ঠিত। হামলাকারীরা দেশকে অরাজকতা, রক্তপাত, নৈরাজ্য ও হানাহানির আবর্তে ঠেলে দিয়ে দেশে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি করে বাংলাদেশে বিদেশী সৈন্য আনার অশুভ চক্রান্তে মেতে উঠেছে। তিনি বলেন, দেশকে অকার্যকর ও ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করে অপশক্তির কোনো ষড়যন্ত্র সফল হতে দেয়া হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন