ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১০ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ভেন্টিলেটর তৈরি করেছে মিনিস্টার

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১১ এপ্রিল, ২০২০, ৬:২৯ পিএম

করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য ভেন্টিলেটর (কৃত্রিমভাবে শ্বাস প্রশ্বাস নেওয়ার যন্ত্র) তৈরি করেছে দেশীয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান মিনিস্টার হাইটেক পার্ক লিমিটেড। শনিবার (১১ এপ্রিল) রাজধানীর দুটি বেসরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে বলে জানানো হয়েছে।

বাংলাদেশি ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট মাইওয়ান ইলেকট্রনিকস ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড এবং মিনিস্টার হাইটেক পার্ক লিমিটেডের প্রতিষ্ঠাতা এম এ রাজ্জাক খান ইনকিলাবকে বলেন, ইউনিভার্সাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও শাহাবুদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউতে) ভেন্টিলেটরের কার্যকারিতা পরীক্ষা করে দেখার জন্য ইতোমধ্যে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশন (এফবিসিসিআই) এই পরিচালক বলেন, প্রতিষ্ঠান দুটি পরীক্ষা করে কোনো পরিবর্তন আনার পরামর্শ দিলে তা বাস্তবায়ন করা হবে। পরে অনুমোদনের জন্য সেগুলো স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের সহায়তায় মিনিস্টার এই ভেন্টিলেটরের নকশা প্রণয়ন করেছে বলে উল্লেখ করেন এম এ রাজ্জাক খান। এর আগে, গত ৩১ মার্চ চিকিৎসা সরঞ্জাম তৈরির আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান মেডট্রনিকের কাছ থেকে ভেন্টিলেটরের পেটেন্ট, নকশা ও সোর্স কোড গ্রহণ করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ (পলক)।

এম এ রাজ্জাক খান বলেন, সরকার এ সপ্তাহের মধ্যেই তাদের নকশার অনুমোদন দিতে পারে বলে আশা করছেন তারা। তাহলে আগামী সপ্তাহ থেকেই তারা উৎপাদনে যাবেন। ভেন্টিলেটরের দাম এখনও নির্ধারণ করা হয়নি জানিয়ে তিনি বলেন, প্রতিদিন মানসম্মত ১০০ ভেন্টিলেটর তৈরি সক্ষমতা রয়েছে আমাদের। তবে সবকিছু নির্ভর করছে কাঁচামাল প্রাপ্তির ওপর। এদিকে এর আগে কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসায় ভেন্টিলেটর তৈরির উদ্যোগ নেয় দেশের আরেক ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট ওয়ালটন। বিশ্বখ্যাত মেডিকেল যন্ত্র প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান মেডট্রনিকের ডিজাইন নিয়ে ওয়ালটন কারখানায় কাজ চলছে। আর এতে সার্বিক দিক-নির্দেশনা দিচ্ছে সরকারের আইসিটি মন্ত্রণালয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যমতে, বাংলাদেশে বর্তমানে ১ হাজার ২৫০টি (সরকারি হাসপাতালে ৫০০টি এবং বেসরকারি হাসপাতালে ৭৫০টি) ভেন্টিলেটর রয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন