ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০, ২৩ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ঘরে থাকার আহ্বান জানিয়ে নববর্ষের শুভেচ্ছা ওবায়দুল কাদেরের

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৪ এপ্রিল, ২০২০, ১২:৩৮ পিএম

বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে সবার মঙ্গল কামনা করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সবাইকে ঘরে থেকে নববর্ষ পালনের আহ্বান জানিয়েছেন। মঙ্গলবার (১৪ এপ্রিল) এক ভিডিও বার্তায় তিনি এই আহ্বান জানান।
দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে কাদের বলেন, পহেলা বৈশাখ বাঙালির প্রাণের উৎসব। আবহমান কালের বাঙালি জাতির একান্তই স্বকীয় উৎসব। বাংলা বর্ষবরণ বাঙালি জাতির জীবনে সর্ববৃহৎ সর্বজনীন সাংস্কৃতিক উৎসব। বাঙালির চিরায়ত অসাম্প্রদায়িক সাংস্কৃতিক চেতনায় উজ্জীবিত হওয়ার দিন পহেলা বৈশাখ। পহেলা বৈশাখে নতুন আহ্বানের মধ্য দিয়ে জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে বাঙালি জাতি ঐক্যবদ্ধভাবে বাংলা নববর্ষকে বরণ করে নেয়। আমরা সুন্দর আর চির মঙ্গলের জয়গান করি। স্নাত হই বৈশাখের রৌদ্র খরতাপে, দূর করি ফেলে আসা বছরের যত যাতনা গ্লানি, মুছে জরা গুছিয়ে শপথ বিশুদ্ধতার। বাংলা নববর্ষ ১৪২৭ সবার জীবনে মঙ্গল ও কল্যাণ বয়ে আনুক।
সেতুমন্ত্রী বলেন, প্রতিবছরই দেশবাসী ঐক্যবদ্ধভাবে চিরায়ত বাঙালি সাজে বিভিন্ন আচার-অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার সঙ্গে পহেলা বৈশাখ উদযাপন করে। কিন্তু এ বছর বাংলা নববর্ষ এমন একটি সময় আমাদের সামনে হাজির হয়েছে যখন ভয়ানক প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে মানবিক বিপর্যয়ের মুখে সমগ্র পৃথিবী, সমগ্র বাংলাদেশ।
শুভেচ্ছা বার্তায় তিনি বলেন, আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে। করোনাভাইরাস একটি অতিমাত্রার সংক্রামক ভাইরাস। এর কোনও প্রতিষেধক-প্রতিকার না থাকায় একমাত্র শারীরিক দূরত্ব, সামাজিক দূরত্ব এবং ঘরে থাকার শৃঙ্খলা মেনে চলাই হচ্ছে প্রতিরোধের উত্তম পন্থা। কাজেই জনসমাগম এড়িয়ে ঘরে বসে যতটা আনন্দ করা যায় করবেন। চিরায়ত বাঙালি চেতনায় বাড়িতে বসে নববর্ষ উদযাপন করার জন্য আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে দেশবাসী ও সর্বস্তরের জনগণকে আহ্বান জানাচ্ছি।
আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, বাঙালির পহেলা বৈশাখ উদযাপনের ঐতিহ্য আমাদের জাতিগত ঐক্য, সংহতি, ভ্রাতৃত্ব ও সামাজিক সম্প্রীতির মেলবন্ধন সুদৃঢ় করে। বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস প্রতিরোধে দেশের সব মানুষের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা, শতভাগ সচেতনতা, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার শপথ হোক এবার বাংলা নববর্ষে সবার সম্মিলিত অঙ্গীকার। সবাই ঘরে থাকুন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন। সুস্থ থাকুন। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে বীরের জাতি বাঙালি। প্রতিরোধ যুদ্ধে জয় আমাদের হবেই ইনশআল্লাহ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (4)
ash ১৪ এপ্রিল, ২০২০, ১:৪১ পিএম says : 0
HAHA, SHOKTISHALI MONTRI
Total Reply(0)
Miron ১৪ এপ্রিল, ২০২০, ২:০২ পিএম says : 0
নেপালের হিমালয় পর্বত সরিয়ে একটা ছোট মসজিদ নির্মাণ করা সম্বব না. ব্রিটিশ আমেরিকার কথা তাদের না শোনা ভালো.
Total Reply(0)
রুহুল ১৪ এপ্রিল, ২০২০, ৬:১১ পিএম says : 0
এই সংস্কৃতি (যদি) ইসলামের সাথে সাংঘর্ষিক হয়, তবে এ দেশের মুসলমানদের মানসপটে এই সংস্কৃতির বোঝা চাপানো কতদূর যুক্তিসংগত!!
Total Reply(0)
Mohammed Shah Alam Khan ১৪ এপ্রিল, ২০২০, ১০:৩৯ পিএম says : 0
আওয়ামী লীগ বাংলাদেশের একটা বৃহত্তর দল এর সদস্য কয়েক কোটি জনগণ কাজেই সেই দলের নেতা বাংলা নববর্ষের দিন যতই দুঃখভারা হউক না কেন সেই দিনে তিনি তাঁর দলের সদস্যদেরকে শুভেচ্ছা বাণী পাঠাবেন যে কোন অবস্থান থেকে এটাই সত্য। আমারা যে বীরের জাতি এটা তিনি আমাদেরকে মনেকরিয়ে দিয়ে এখনার বিশ্ব যে যুদ্ধে অবতিরন হয়েছে সেই যুদ্ধকে জয় করার জন্যে তিনি আমাদেরকে একমাত্র পথ শারীরিক দূরত্ব, সামাজিক দূরত্ব এবং ঘরে থাকার শৃঙ্খলা মেনে চলার উপদেশ দিয়েছেন। এখন আমরা যারা ওনার সাথে আছি তাদের উচিৎ হবে ওনার কথা নেত্রী হাসিনার কথার মত করেই মেনে চলা। আল্লাহ্‌ আমাকে সহ সবাইকে নেতৃত্ব মেনে চলার ক্ষমতা দান করুন। আমিন
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন