ঢাকা, বুধবার, ০৫ আগস্ট ২০২০, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

আনোয়ারায় মৃত ব্যক্তির গোসল করানোকে নিয়ে ইমামকে মারধর

আনোয়ারা(চট্টগ্রাম)উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৫ এপ্রিল, ২০২০, ৯:৪৭ পিএম

আনোয়ারায় এক মৃত ব্যক্তিকে গোসল করানোর অপরাধে স্থানীয় মসজিদের ইমাম শেখ মোহাম্মদ আবদুর রহিম (৪০) কে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। গত মঙ্গলবার (১৪ এপ্রিল) সকালে উপজেলার বারশত ইউনিয়নের বোয়ালিয়া গ্রামের এ ঘটনা ঘটে। এতে আহত ইমামের স্ত্রী জয়নাব বেগম (৪২) বাদী হয়ে আনোয়ারা থানায় ১২ জনকে অভিযুক্ত করে অভিযোগ করেন বলেও জানান।

অভিযোগ সূত্রে ও জয়নাব বেগম জানায়, হাফেজ শেখ মোহাম্মদ আবদুর রহিমের নিকট আত্মীয় হাসান আলী নামে এক ব্যক্তি মারা গেলে তাকে গোসল করানোর জন্য অন্যান্য হুজুরদের সাথে তিনিও অংশ নেন। মৃত্যুর ৪ দিন পর মনছুরসহ কয়েকজন লোকজন মোহাম্মদ আবদুর রহিমের উপর চরম ক্ষুদ্ধ হয়ে লাটিসোটা নিয়ে মারধর করে।
অভিযোগে আরো উল্লেখ করেন এসময় অভিযোক্তরা জয়নাব বেগমের শ্লীলতাহানীর চেস্টা করে এবং ঘরে হামলা করে ঘরের জিনিসপত্র ভাঙচুর করে। পরে প্রতিবেশিরা এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা দ্রুত পালিয়ে যায়।

অভিযোগকারী জয়নাব বেগম বলেন, এলাকার একটি মসজিদ নিয়ে সমাজের দু’পক্ষের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিলো। তাই আমার স্বামীকে নাকি সমাজ থেকে বের করে দিয়েছে। এটা আমরা জানতাম না। সমাজ থেকে বের করে দিয়েছে তাই আমার স্বামী ঐ ব্যক্তিকে গোসল করানোর অপরাধে তারা আমাদের মারধর করছে। আমরা এটার সুষ্ঠু বিচার চাই।
এবিষয়ে অভিযোক্ত মো. দিদার নামক এক ব্যক্তিকে ফোন করলে তারভাই শওকত বলেন, আমাদের সাথে সরাসরি দেখা করেন। দেখা হলে আপনাদের সব খুলে বলব বলে ফোনটা কেটে দেন।

স্থানীয় বারশত ইউপি চেয়ারম্যান এম.এ কাইয়ূম শাহ্ বলেন, দু’পক্ষ সাধারণ একটি বিষয় নিয়ে ঘটনাটি ঘটিয়েছে। তাদেরকে ইউপি সদস্যদের মাধ্যমে ডেকে সমাধানের চেস্টা করা হবে।
আনোয়ারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দুলাল মাহমুদ জানান, দুই পক্ষের মধ্যে পূর্ব বিরোধের জের ধরে তর্কাতর্কি হয়েছে। বিষয়টি উভয় পক্ষকে বসে স্থানীয় চেয়ারম্যানের মাধ্যমে সমাধান করতে বলেছি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন