শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

জাতীয় ঐক্যে সরকারের অনাগ্রহ দেশের জন্য বিপজ্জনক হতে পারে- নজরুল ইসলাম খান

প্রকাশের সময় : ১৮ জুলাই, ২০১৬, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : উগ্রবাদ-সন্ত্রাস মোকাবিলায় জাতীয় ঐক্যে সরকারের অনাগ্রহ দেশের জন্য বিপজ্জনক বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে বিএনপি। গতকাল রোববার বিকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সংবাদ সম্মেলনের বক্তব্যের পর এক অনুষ্ঠানে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান এই আশঙ্কা প্রকাশ করেন।
তিনি বলেন, জনগণের ঐক্যের ব্যাপারে এই সরকারের যে অস্বীকৃতি হয়তো এর জন্য আমাদেরকে আরো বেশি মূল্য দিতে হতে পারে। আল্লাহ না করুক। আমরা চাই সরকার বাস্তবতা অনুধাবন করুক। এটা (জাতীয় ঐক্য) সরকার গ্রাহ্য করছে না। এই গ্রাহ্য না করা বিপজ্জনক হতে পারে।
জাতীয় ঐক্যের বিষয়ে কেবল বিএনপি নয়, বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সামাজিক সংগঠনের আহ্বানের কথা উল্লেখ করে নজরুল ইসলাম খান বলেন, আমরা অনুরোধ করবÑ দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া যে আহ্বান জানিয়েছেন, সেই আহ্বানের প্রতি সাড়া দিন। জনগণের ঐক্য গড়ে তুলুন, জনগণকে সাহসী ও উদ্যোগী করুন যাতে জনগণই এই উগ্রবাদ-সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারে।
গণভবনের বিকালে সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্যের প্রতি ইঙ্গিত করে স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, আজকেও ধান বানতে শিবের গীতের মতো ওই যে আগুন সন্ত্রাস, কোন আমলে কি হয়েছে সেই নিয়ে কথা বলতে শুনলাম আমরা। গ্রামের একটা সাধারণ কথা আছেÑ বাড়িতে যখন আগুন লাগে তখন শত্রু-মিত্র না, সবাই আসে আগুন নেভাতে। সেটাই হওয়া উচিত, সেটাই স্বাভাবিক। এই স্বাভাবিক কাজটা করার জন্যই দেশনেত্রী প্রস্তাব করেছেন, দেশে এই যে উগ্রবাদ-সন্ত্রাসবাদের বিস্তার হচ্ছে, এটা আরো যাতে বাড়তে না পারে, সেটা দমন করার জন্য জনগণের ঐক্য দরকার, সর্বাত্মক ঐক্য দরকার, রাজনৈতিক ঐক্য দরকার। যেমন আমরা ঐক্য করেছিলাম মহান মুক্তিযুদ্ধ করার জন্য।
জাতীয় ঐক্য সম্পর্কে তিনি বলেন, তিনি (খালেদা জিয়া) ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য জাতীয় ঐক্যের এই প্রস্তাব দেননি। তিনি কাউকে ক্ষমতা থেকে নামিয়ে আনার জন্য এই প্রস্তাব দেননি। সাধারণ মানুষ যে একটা অনিশ্চিত স্বাভাবিক জীবন-যাপন করছে, মসজিদের ইমাম-মোয়াজ্জিন থেকে মন্দিরের পুরোহিত, গির্জার যাজক, বৌদ্ধ ভিক্ষু কেউ বাদ যাচ্ছে না, সবাইকে খুন করা হচ্ছে। এই সরকার তা দমন করতে পারছে না। নিজেদের ব্যর্থতা ঢাকার জন্য বিএনপিকে দোষারোপ করছে। এতে কোনো লাভ নেই। কারণ বিএনপি এই সন্ত্রাসের রাজনীতিতে বিশ্বাসই করে না
উগ্রবাদীদের হামলার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর আশঙ্কার কথা উল্লেখ করে নজরুল ইসলাম খান বলেন, প্রধানমন্ত্রী নিজেও বলেছেন এরকম ঘটনা আরো ঘটতে পারে। তিনি আশঙ্কার কথা বলেছেন। এই আশঙ্কা যদি সত্য হয়, এই আশঙ্কা দূর করার জন্য যা করা দরকার, সেটা করা উচিত। সেটা হলো জনগণের ঐক্য গড়ে তোলা। আর জনগণের ঐক্য গড়ে তোলার জন্য দরকার রাজনৈতিক ঐক্য। আর সেই আহ্বানই জানিয়েছেন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া।
নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের উদ্যোগে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর সুস্থতা কামনায় এই দোয়া মাহফিল-পূর্ব এই সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা হয়। রিজভী গত বুধবার পাকস্থলীজনিত জটিলতায় গুরুতর অসুস্থ হয়ে এই হাসপাতালে ভর্তি হন।
অনুষ্ঠানে দলের সিনিয়র নেতা মোহাম্মদ শাহজাহান, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, স্বেচ্ছাসেবক দলের সিনিয়র সহ-সভাপতি মুনির হোসেন, উত্তরের ইয়াসীন আলী, দক্ষিণের লিটন মাহমুদ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন