ঢাকা শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ০২ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউল সানী ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

করোনা প্রতিরোধে সহায়তা করবে ভিটামিন ডি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ এপ্রিল, ২০২০, ১১:৫১ পিএম

মহামারী করোনাভাইরাস প্রতিরোধে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে বাড়ানোর কথা বার বার বলছেন স্বাস্থ্য বিজ্ঞানীরা। এক্ষেত্রে ভিটামিন ডি একটি গুরুত্বপূর্ণ ভ‚মিকা রাখতে পারে বলে জানিয়েছেন তারা। পূর্ববর্তী গবেষণাগুলোতে দেখা গেছে যে, ভিটামিন ডি স্বাস্থ্য প্রতিরোধ ব্যবস্থা জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। এটি অন্যান্য রোগ প্রতিরোধের পাশাপাশি শ^াসতন্ত্রের সংক্রমণ থেকে রক্ষা করতে সহায়তা করে।

এখন, করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করতে ভিটমিনি ডি ঠিক কতখানি সহায়ক হতে পারে, তা খতিয়ে দেখতে স্পেনের গ্রানাডা গ্রানাডা বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা ২শ’ করোনা রোগীর ওপর ১০ সপ্তাহের একটি পরীক্ষা শুরু করেছেন।

তারা জানিয়েছেন, উচ্চ মাত্রায় ভিটামিন ডি করোনাভাইরাসের মাথাব্যথা, জ্বর এবং অবসন্নতার মতো হালকা লক্ষণগুলি কমিয়ে রোগের অবনতি ও হাসপাতালে ভেন্টিলেশনে যাওয়া প্রলম্বিত করতে পারে। তবে, এক্ষেত্রে চ‚ড়ান্ত ফলাফল ও ভিটামিন ডি ব্যবহারের পরিমাণ নিশ্চিত করতে আরো গবেষণা প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন তারা।

ভিটামিন ডি নিয়ে বিজ্ঞানীদের আশা দৃঢ় হয়েছে গরুর ওপর পরিচালিত অতীতের গবেষণার ফলাফল থেকে। গবেষণাগুলোতে দেখা গেছে যে, বোভাইন করোনাভাইরাস সংক্রমণের প্রধান কারণ ছিল ভিটমিন ডি’র অভাব।
পূর্ববর্তী গবেষণাগুলিতে এও প্রমাণিত হয়েছে যে, ভিটামিন ডি শ্বাসকষ্টের সংক্রমণ রোধ এবং চিকিৎসা উভয়কেই সহায়তা করে। লন্ডনের কুইন মেরি ইউনিভার্সিটির শ্বাসযন্ত্রের সংক্রমণ এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা সম্পর্কিত ক্লিনিকাল অধ্যাপক অ্যাড্রিয়ান মার্টিনাউ বলেছেন, ‘ভিটামিন ডি’তে একটি প্রদাহবিরোধী ক্ষমতা রয়েছে, বিশেষত যখন উচ্চ মাত্রায় দেয়া হয়।’ পূর্ববর্তী পরীক্ষাগুলি এটিকে টিবির চিকিৎসা হিসাবে ব্যবহার করেছে।

২০১৭ সালে বিএমজে’তে প্রকাশিত এক সমীক্ষার ২৫টি পরীক্ষার তথ্য পর্যালোচনা করে দেখা গেছে যে, ভিটামিন ডি তীব্র শ্বাস-প্রশ্বাসের সংক্রমণ রোধ করতে সহায়তা করতে পারে। মার্টিনাউ বলেছেন, ‘ভিটামিন ডি ত্বকে তৈরি হয়ে গেলে এটি লিভারে স্থনান্তরিত হয়ে শরীরে ঘুরে বেড়ায়। এটি শ্বাসনালীতে আস্তরণে প্রাকৃতিক অ্যান্টিবায়োটিক জাতীয় পদার্থ তৈরি করে যা ভাইরাস এবং ব্যাকটেরিয়াকে হত্যা করে নিশ্চিহ্ন করে দিতে পারে।’ তা সে টিবি হোক কি হাঁপানি, বা ক্রনিক অবস্ট্রাকটিভ পালমোনারি ডিজিজ-কোভিড এবং শরীরে এর ঘাটতি না থাকলে রোগ হলেও তা সারে সহজে।

ট্রিনিটি কলেজ ডাবলিনের এক গবেষণায় দেখা গেছে যে, প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে যারা ভিটামিন ডি পরিপূরক গ্রহণ করেছেন তাদের শ^াসতন্ত্রে সংক্রমণের হার ৫০ শতাংশ কম। ভিটামিন ডি পর্যাপ্ত পরিমাণে থাকা সাধারণ স্বাস্থ্যের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। এটি স্বাস্থ্যকর হাড়ের জন্যও প্রয়োজন এবং অসুস্থ হওয়া থেকে রক্ষা করতে সহায়তা করে। ভিটামিন ডি তৈলাক্ত মাছ যেমন স্যামন, সার্ডিনস এবং হেরিংয়ে পাওয়া যায়। সূত্র : ডেইলি মেইল।

 

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন