ঢাকা শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০ আশ্বিন ১৪২৭, ০৭ সফর ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

নাসিরনগরে ঝালমুড়ি খাওয়া নিয়ে মৃত্যুর ঘটনায় লুটপাটসহ গ্রামছাড়া ৩০ পরিবার

নাসিরনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৬ এপ্রিল, ২০২০, ৭:৩০ পিএম

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে ঝালমুড়ি খাওয়া নিয়ে সংঘর্ষে আহত রজব আলী (২০) মৃত্যুর পর প্রতিপক্ষের বাড়িতে লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ফলে গ্রাম ছেড়ে পালিয়েছে ৩০ টি পরিবারের লোকজন । ওই যুবকের মৃত্যুর পর সাবেক ইউপি সদস্য করিমকে প্রধান আসামী করে ২৬ জনের বিরুদ্ধে নাসিরনগর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন নিহতের বাবা ইছুব আলী।

আসামী পক্ষের দাবী, গত ১৬ এপ্রিল চিকিৎসাধীন অবস্থায় রজব আলীর মৃত্যুর খবরটি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে রাতেই তাদের বাড়িতে হামলা ও লুটপাট শুরু করে। পুলিশের কাছে লুটপাটের বিষয়ে মামলা করতে চাইলে পুলিশ মামলা নিচ্ছে না। এদিকে কৌশলে বিবাদী পক্ষের লোকজন আসামী পক্ষের লোকদের বাড়ি পাহাড়ার ব্যবস্থা করে। সারদিন পাহাড়া দিয়ে রাতে আসামী পক্ষের লোকদের বাড়িতে লুটপাট চালায়। এ ছাড়াও বাড়িতে মানুষজন না থাকায় তাদের পাকা ধানের ফসলও কেটে নিয়ে যাচ্ছে অভিযোগ উঠেছে। লুটপাট, গ্রাম ছাড়া এসব বিষয়ে নিহতের বাবা ইছুব আলী বলেন, আমাদের বিরুদ্ধে আনিত সকল অভিযোগ মিথ্যা ও বানোয়াট। আমাদের কোন লোক আসামী পক্ষের লোকজনের লুটপাট করেনি। বরং তাদের ঘরের সকল মালামাল নিজেরাই সরিয়ে নিয়ে গেছে। তাদের মালামাল রক্ষা করার জন্য আমরা সারারাত পাহাড়া দিচ্ছি। জানা যায়, যুবকরে মৃত্যুর খবরটি গ্রামে ছড়িয়ে পড়লে আতঙ্কিত হয়ে আসামী পক্ষের ৩০টি পরিবারের নারী-শিশুসহ শতাধিক মানুষ গ্রাম ছেড়ে পালিয়েছে। তাদের ঘরবাড়ি অরক্ষিত ভাবে পড়ে আছে। ওই পরিবারগুলোর পাকা ধানও পড়ে আছে মাঠে। মাঠের ৫ বিঘা ধান কেটে নিয়ে গেছে নিহতের পরিবারের লোকজন। তাদের ঘরের ভিতর নেই কোন আসবাবপত্র। চারদিকে দেখা গেছে তালাবদ্ধ ঘর আর নিঃস্তব্ধতা। আসামী পক্ষের ফারজানা আক্তার অভিযোগ করে- একটি হত্যাকে পুঁজি করে চলে লুটপাটসহ ৩০ পরিবারের ৪০টি গরু, ৬টি ষাঁড় প্রায় ২০০ হাঁস-মুরগি, ৫ বিঘা পাকা ধান ও বিভিন্ন আসবাবপত্র লুট করে নিয়ে গেছে নিহতের পরিবারের স্বজনরা। তাদের ভয়ে গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে গেছে শিশুসহ প্রায় শতাধিক নারী-পুরুষ।
চাতলপাড় ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শেখ আব্দুল আহাদ জানান, তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে ঝগড়ার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় রজব আলী এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। তবে লুটপাটের কোন ঘটনা আমার জানা নেই।
নাসিরনগর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাজেদুর রহমান জানান, ঝালমুড়ি খাওয়াকে কেন্দ্র করে একটি হত্যাকান্ড ঘটে। আমরা মামলা নিয়েছি। দুজন আসামীও গ্রেপ্তার হয়েছে। যারা খুন করেছিল তাদের বাড়িঘর লুটপাট হয়েছে এমন সংবাদ পেয়েছি তবে তদন্ত করে আইনগত ভাবে ব্যবস্থা নিব।
প্রসঙ্গতঃ গত ১৪ এপ্রিল ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরের চাতলপাড় ইউনিয়নের বড়নগর গ্রামে দুই বন্ধু মধ্যে ঝালমুড়ি খাওয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ হয়। পরে ১৬ এপ্রিল চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকার একটি বেসরকারী হাসপাতালে মারা যায় রজব আলী।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন