ঢাকা, শুক্রবার, ০৫ জুন ২০২০, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ১২ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

জীবিত এবং সুস্থ কিম জং উন, দাবি দক্ষিণ কোরিয়ার

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ এপ্রিল, ২০২০, ১২:০২ এএম

অসুস্থ নন, সুস্থ অবস্থাতেই বেঁচে রয়েছেন উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম জং উন। বিশ্ব জুড়ে কিমকে নিয়ে নানা জল্পনার মাঝেই এমন দাবি দক্ষিণ কোরিয়ার। সে দেশের প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইনের এক পরামর্শদাতা চু-ইন-মুন বলেছেন, ‘কিম বেঁচে রয়েছেন এবং সুস্থ রয়েছেন।’ যদিও এ নিয়ে এখনও মন্তব্য করেনি উত্তর কোরিয়া।
রোববার একটি প্রথম সারির মার্কিন চ্যানেলে সাক্ষাৎকারে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট-ঘনিষ্ঠ তথা দেশের পররাষ্ট্রনীতি উপদেষ্টা চুং-ইন-মুন জানিয়েছেন, কিম সুস্থ রয়েছেন। সেই সঙ্গে চুংয়ের আরও দাবি, এই মুহ‚র্তে কিম রয়েছেন উত্তর কোরিয়ার উনসানের একটি রিসর্টে। দেশের পূর্ব প্রান্তের ওই রিসর্টে গত ১৩ এপ্রিল থেকেই নাকি কিম রয়েছেন। সেই সঙ্গে তিনি বলেছেন, ‘কোনও রকমের সন্দেহজনক বিষয়ও সেখানে নজরে আসেনি।’
কিম জং উনের স্বাস্থ্য নিয়ে বিশ্ব জুড়েই শুরু হয়েছে জল্পনা। হংকংয়ের একটি সংবাদমাধ্যমে দাবি করা হয়েছে, প্রয়াত হয়েছেন উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম। মার্কিন সংবাদমাধ্যম অবশ্য সে দাবি না করলেও জানিয়েছে, মধ্য তিরিশের শাসকের হৃদ্যন্ত্রে অস্ত্রোপচারের পর তিনি অসুস্থ। সেই সঙ্গে কিম যে উনসানে রিসর্টে রয়েছেন, সে সম্ভাবনার কথাও তুলে ধরেছে একটি মার্কিন ওয়েবসাইট। উত্তর কোরিয়ায় নজরদারির জন্য তৈরি ‘৩৮ নর্থ’ নামের ওই ওয়েবসাইটের দাবি, গত ২১ এপ্রিল উনসানে একটি বিশেষ ট্রেন পৌঁছায়। ২৩ তারিখ পর্যন্ত তা সেখানে ছিল। মার্কিন উপগ্রহ চিত্রে তা ধরাও পড়েছে, কিম এবং তার পরিবার যে বিশেষ ট্রেনটিতে সফর করেন সেটিই উনসানে গিয়েছে। ফলে উনসানের একটি রিসর্টে কিমের থাকার সম্ভাবনা আরও প্রবল হয়েছে।

কিম জং উনের স্বাস্থ্য নিয়ে জল্পনার সূত্রপাত, তার দাদা তথা উত্তর কোরিয়ার প্রতিষ্ঠাতা কিম দ্বিতীয় সাংয়ের জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠান থেকে। ১৫ এপ্রিলের ওই অনুষ্ঠান দেশের রাজনৈতিক ক্যালেন্ডারের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ দিন বলে মনে করা হয়। কিন্তু, সেই অনুষ্ঠানে দেখা যায়নি কিমকে। গত ১১ এপ্রিল একটি বৈঠকের নেতৃত্ব দেন কিম। এর পরের দিন দেশের সংবাদমাধ্যমে জানানো হয়, বিমানবাহিনীর ফাইটার জেট পরিদর্শনে গিয়েছেন কিম। তবে তার পর থেকে তাকে আর জনসমক্ষে দেখা যায়নি। ফলে কিমের শারীরিক অবস্থা নিয়ে শুরু হয় তুমুল জল্পনা। এ বিষয়ে মার্কিন সংবাদমাধ্যমে রিপোর্ট প্রকাশিত হলেও সে দেশের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প অবশ্য কিমের অসুস্থ হওয়ার খবর অস্বীকার করেছেন। তবে শেষ কবে তার সঙ্গে কিমের কথা হয়েছে, তা জানাতেও চাননি ট্রাম্প। সূত্র : এএফপি, বিবিসি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন