ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০, ২৩ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

ইসলামী প্রশ্নোত্তর

প্রশ্ন : আমার পাঁচ মাস বয়সি বাচ্চাকে বুকের দুধ খাওয়াচ্ছি, রোযা রেখেও আমার বুকে দুধের অভাব হচ্ছে না। কিন্তু আমার গলা শুকিয়ে যায়, মাথা ঘোরে, খুব দুর্বল হয়ে পড়ি। তাছাড়া জরুরি কোনো কাজে মনোনিবেশ করতে পারি না। এ অবস্থায় আমার করনীয় কী?

জাকিয়া সুলতানা
ইমেইল থেকে

প্রকাশের সময় : ২৮ এপ্রিল, ২০২০, ৫:৫৩ পিএম

উত্তর : আপনাকে রোযা রাখতে হবে। রোযা তখনই ছাড়া যেত যখন আপনার সন্তান দুধ না পেয়ে কষ্ট করতো। আপনি যদি অসহনীয় পর্যায়ের অসুস্থতা ও কষ্টে পড়তেন কিংবা জীবন নাশের মতো রোগী হয়ে পড়তেন। তখন আপনি রোযা ছেড়ে দিতে পারতেন। এখানে যে সব অসুবিধা দেখা যাচ্ছে যেমন- গলা শুকিয়ে যাওয়া, মাথা ঘোরা, খুব দুর্বল হয়ে পড়া ও কাজে মনোনিবেশ করতে না পারা। এসব যদি রোযা ছেড়ে দেওয়া জায়েজ হওয়ার পর্যায়ে চলে যায় তাহলে অসুস্থ ব্যক্তির মতো আপনিও রোযা ছাড়তে পারবেন। তবে পরে এসব রোযা কাজা করতে হবে। আর যদি এসব অসুবিধা একটু সাহস করে কাটিয়ে ওঠা যায় আর যথা সময়ে রোযাগুলো পালন করা যায় তাহলেই সব দিক দিয়ে উত্তম। আপনার বর্ণনা অনুসারে বলা যায়, এতোটুকু অসুবিধার জন্য ফরয রোযা ছাড়া যাবে না। আল্লাহর হুকুম পালনে মনস্থির করলে আল্লাহই সাহস, শক্তি ও তাওফিক দিয়ে থাকেন।

উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী
সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতওয়া বিশ্বকোষ।
প্রশ্ন পাঠাতে নিচের ইমেইল ব্যবহার করুন।
inqilabqna@gmail.com

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
সোহেল আহমেদ ২৮ এপ্রিল, ২০২০, ৮:৫৩ পিএম says : 0
রোজা অবস্থায় নাকে ড্রপ দেওয়া যাবে কী?
Total Reply(0)
মোহাম্মদ তুহিন মিয়া ২ মে, ২০২০, ১২:৩৮ পিএম says : 0
সেহরির সময় ঘুম থেকে উঠতে পারিনি সেহরিও খাইতে পারিনি সেক্ষেত্রে আমার রোজা কি হবে?
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন