ঢাকা, মঙ্গলবার, ০২ জুন ২০২০, ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৯ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

অঙ্কের শিক্ষক থেকে মোস্ট ওয়ান্টেড! নাইকুর মৃত্যুতে বিক্ষোভ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৭ মে, ২০২০, ২:৩২ পিএম

বুধবার ভারতের নিরাপত্তা বাহিনীর এনকাউন্টারে মৃত্যু হয় কাশ্মীরের মুক্তিকামী সংগঠন হিজবুল মুজাহিদিনের কম্যান্ডার রিয়াজ নাইকুর। তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে যাওয়ার পর কাশ্মীরের পুলওয়ামা অশান্ত হয়ে উঠেছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী হয়ে ওঠে সাধারণ মানুষের টার্গেট।

পুলিশের খাতায় রিয়াজ নাইকু ছিল এ প্লাস প্লাস বিভাগের সন্ত্রাসবাদী। আগেও বহুবার পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে পালায় সে। নাইকুর ওপরে ১২ লাখ রপির পুরস্কার ঘোষণা করেছিল প্রশাসন।

কাশ্মীরের বাঘিপোরার গ্রামের বাসিন্দা নাইকু ছিলেন অঙ্কের শিক্ষক। তিনি এলাকার ছেলে-মেয়েদের বিনা খরচে অঙ্ক শেখাতেন। সবাই তাকে ভদ্র ও বিনয়ী হিসাবেই জানতেন। ২০১০ সালে পুলিশের ছোড়া কাঁদানে গ্যাসের শেল মাথায় লেগে কাশ্মীরি তরুণ তুফাইল আহমেদের মৃত্যু হয়। সেই ঘটনায় প্রতিবাদ উত্তপ্ত হয়ে উঠে উপত্যকা। সেই প্রতিবাদে অংশ নিয়ে জেলে যান নাইকু। বিনা অপরাধে ২ বছর জেল খেটে যখন তিনি মুক্তি পান, ততদিনে আমূল পরিবর্তন হয় তার।

মুক্তি পাওয়ার পর শিক্ষকতা ছেড়ে থেকে ২০১২ সালে হিজবুলে যোগ দেয়ার পর মাত্র কয়েক বছরের মধ্যেই এই সংগঠনের শীর্ষ স্থানে উঠে আসে সে। ২০১৬ সালের জুলাই মাসে বুরহান ওয়ানির মৃত্যুর পরে হিজবুল মুজাহিদিনের কম্যান্ডার পদে আসে নাইকু।

জানা গেছে, তার মৃত্যুর খবরে কাশ্মীরে সেনাবাহিনীকে লক্ষ করে ঝাঁকে-ঝাঁকে ইটবৃষ্টি তো বটেই, বিক্ষোভ চালিয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর একাধিক গাড়ি ভাঙচুর ও আগুন ধরিয়ে দেয় বিক্ষুব্ধ জনতা। এ ঘটনায় পুলিশের লাঠিচার্জ ও রাবার বুলেটে একাধিক বিক্ষোভকারী আহত হয়েছেন বলে ভারতীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। সূত্র: টিওআই।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
elu mia ৭ মে, ২০২০, ৭:১৬ পিএম says : 0
আল্লাহ রহম করেন মুসলিমদের অপর।পাকিস্তানের উচিত ভারত কে সাস্তি দেয়া।কিন্তু ইম্রান খান একটা ভীতু।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন