ঢাকা শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১১ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

মাওয়ায় পদ্মা সেতুর রেলওয়ে প্রকল্পে নিরাপত্তা রক্ষীর গুলি-আহত ৮ শ্রমিক

মুন্সীগঞ্জ জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৭ মে, ২০২০, ২:৩৮ পিএম

মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ে উপজেলার মেদিনীমন্ডলে পদ্মা সেতুর রেলওয়ে প্রকল্পে শ্রমিকদের ক্যাম্পে বেতন-ভাতা পরিশোধ নিয়ে বিরোধে নিরাপত্তা রক্ষীর গুলিতে কমপক্ষে ৮ জন শ্রমিক গুলিবিদ্ব হয়ে আহত হয়েছে। গত বুধবার রাত ৯ টায় এঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পদ্মা সেতুর দায়িত্বরত: সেনা সদস্য এবং স্থানীয় পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। আহতরা হলেন, জাকির, পারভেজ , সুমন , রাজু , নাঈম, রাসেল , শুভ , আলী মুনসুর ও নাজিম।আহতদের ষোলঘড় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেস্কে ভর্তি করা হয়েছে।
জানা যায়, বুধবার রাতে চীনা ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান সিআরইসির অধীনে দায়িত্বপ্রাপ্ত বাংলাদেশী ম্যানেজার শ্রমিকদের প্রতিদিন ১৫০ টাকা হারে মজুরী দেয়ার কথা জানালে বিক্ষুগ্ধ শ্রমিকরা সন্ধা ৭ টায় কাজ বন্ধ করে দেয়। শ্রমিকেরা তাদের দাবি দাওয়া নিয়ে ক্যাম্প থেকে পার্শ্ববতি পদ্মা সেতুর সার্ভিস এরিয়া-১ এ যেতে চাইলে ঠিকাদারের নিরাপত্তা কর্মীরা বাঁধা দেয় । বাক বিতন্ডার এক পর্যাায় নিরাপত্তা রক্ষীরা শ্রমিকদের ওপর গুলি চালায় ও শ্রমিকদের রড দিয়ে পেটায়। এতে ৮ জন শ্রমিক গুলিবিদ্দ হয়ে আহত হন। শ্রমিকদের দাবী , চুক্তি ছিল ঠিকাদার থাকা খাওয়া বাদে প্রত্যেক শ্রমিককে মজুরি বাবদ প্রতিদিন ৩শ’ টাকা দেবেন। কিন্তু গত ২০ এপ্রিলের পর থেকে শ্রমিকদের কোনো টাকা দেয়নি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানটি। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্বে বেতন-ভাতা এবং থাকা খাওয়া নিয়ে এর আগেও অভিযোগ ছিল।
বাংলাদেশ রেলওয়ে পদ্মা ব্রিজ রেল লিংক প্রজেক্টের (পিবিআরএলপি) প্রকল্প পরিচালক (পিডি) প্রকৌশলী গোলাম ফখরুদ্দিন এ চৌধুরী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন জানান, চীনা ঠিকাদার সিআরইসির অধীনে পরিচালিত ক্যাম্পটিতে ২০০ থেকে ২৫০ জন শ্রমিক কাজ করে। শ্রমিকদের বেতন-ভাতা পরিশোধ নিয়ে অসন্তোষ চলাকালে এক পর্যায়ে ঠিকাদারের নিরাপত্তা রক্ষী গুলি ছুঁড়ে। এতে শ্রমিকরা গুলিবিদ্ধ হয়। মুন্সীগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. মনিরুজ্জামান তালুকদার জানান, পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে। বিষয়টি নিয়ে সচিব এবং পিডির সঙ্গে কথা হয়েছে। সমস্যা সমাধানে বৃহস্পতিবার প্রকল্প পরিচালকসহ সংশ্লিষ্টদের নিয়ে আলোচনা হবে।
মঞ্জুর মোর্শেদ

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন