ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০, ২৩ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

সম্পাদকীয়

চিঠিপত্র

| প্রকাশের সময় : ১১ মে, ২০২০, ১২:০৩ এএম

ত্রাণের চেয়ে সেলফি বেশি

করোনা মোকাবেলায় হিমশিম খাচ্ছে নিম্ন আয়ের মানুষগুলো। এই অবস্থায় দেশের যারা অসহায়, হতদরিদ্র, শ্রমিক, গরিব ও অস্বচ্ছল তারা অর্থকষ্টে ভোগছে প্রতিনিয়ত। দুর্যোগকালীন এই মুহূর্তে সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি অসচ্ছল মানুষদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন দেশের বিত্তবানরা। সাহায্য করছে অস্বচ্ছল মানুষদের। কেমন সাহায্য। এ সাহায্য কি একনিষ্ঠ। শুধু গরীবদের অভাব পূরণ করার উদ্দেশ্যেই কি। না। বর্তমানে দেখা যাচ্ছে ‘ত্রাণের চেয়ে সেলফি বেশি’। তাই যদি না হতো তবে একজন মানুষকে সাহায্য করতে গিয়ে ১০-১২ জন মিলে ক্যামেরার সামনে এসে পোজ দিয়ে সবাইকে সেটা দেখিয়ে বেড়াত না। কিন্তু ত্রাণ দিয়ে সেলফি তোলা, ফটোসেশন করা কতটুকু ভালো কাজ? তাই আমরা প্রত্যাশা করব, ত্রাণের নামে সেলফি, ফটোসেশান অসহায়দের পাশে থাকে সংকট উত্তরণের চেষ্টা করা এখন সময়ের দাবি। করোনাকালীন পৃথিবীটা হোক মানবিক।
মিনহাজ আবেদিন
শিক্ষার্থী, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়।

 

শিক্ষার্থীদের প্রতি সহানুভূতি দেখান
বর্তমানে সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ তাই ক্লাসও হচ্ছে না। তবুও অনেক শিক্ষার্থীর এখনো গুণতে হচ্ছে ছাত্রাবাস কিংবা বাসা বাড়ি ভাড়ার টাকা। ছাত্রাবাস কিংবা বাসা বাড়ি মালিকদের কাছে অনুরোধ এই দুর্যোগের সময় শিক্ষার্থীদের কাছে ভাড়ার জন্য চাপপ্রয়োগ করবেন না। ভাড়া মওকুফ করবেন অনুগ্রহ করে। আপনি যেমন আপনার রোজগারের কথা ভাবছেন, ঠিক তেমননি তারাও তাদের পরিবারের কথা ভাবছে যে, কোথায় পাবে এই দুঃসময়ে ছাত্রাবাস কিংবা বাসাবাড়ি ভাড়া? আশা করি, সংশ্লিষ্টরা শিক্ষার্থীদের কথা চিন্তাভাবনা করবেন।
প্লাবন শুভ
ফুলবাড়ী, দিনাজপুর

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
jack ali ১১ মে, ২০২০, ১:১৮ পিএম says : 0
Those who are mocking with our life by taking selfie. In the Hell Allah will give them android Phone to take selfie, in the Hell they will enjoy looking how their body is burning from every side.
Total Reply(0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন