ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৬ আগস্ট ২০২০, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

বাংলাদেশের ভালোবাসা ভোলেনি আফ্রিদি

‘বুম বুম’ তারকার ঘরে মুশফিকের ব্যাট

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৭ মে, ২০২০, ১২:০২ এএম

""কেনার ইচ্ছা ছিল টাইগার উডসেরও!
অনেকটা লোকচক্ষুর আড়ালেই ২০ লাখ টাকায় বিক্রি হয়েছিল সাকিব আল হাসানের ব্যাট। তবে মুশফিকুর রহিমের ব্যাটের নিলাম বেশ উত্তেজনা ছড়িয়েছে গত কয়েক দিনে। শেষ পর্যন্ত বড় চমক হয়ে এলো বিজয়ীর নামেও। বাংলাদেশ ক্রিকেটের বড় একটি ইতিহাসের স্বাক্ষী এই ব্যাট এখন শোভা পাবে শহিদ আফ্রিদির ঘরে! মুশফিকের ডাবল সেঞ্চুরির ব্যাটটি নিলামে ২০ হাজার ডলারে কিনেছেন সাবেক পাকিস্তানি অলরাউন্ডার। বাংলাদেশি মুদ্রায় অঙ্কটি ১৭ লাখ টাকার আশেপাশে।
২০১৩ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে গলে এই ব্যাট দিয়ে ২০০ রানের ইনিংস খেলেছিলেন মুশফিক, টেস্ট ক্রিকেটে যা ছিল বাংলাদেশের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি। করোনাভাইরাস দুর্গতদের সহায়তায় নিজের প্রিয় সেই ব্যাট নিলামে তুলেছিলেন বাংলাদেশের অভিজ্ঞ ক্রিকেটার। অনলাইন নিলাম শেষ হয় বৃহস্পতিবার। পরদিন রাতে মুশফিক জানিয়েছেন বিজয়ীর নাম। এ সময় তিনি ধন্যবাদ দিয়েছেন প্রিয় বন্ধু ও জাতীয় দলের সতীর্থ তামিম ইকবালকে। কারণ, ব্যাটটি বিক্রির জন্য নিলাম আয়োজন করা হলেও শেষ পর্যন্ত পাকিস্তানের সাবেক অলরাউন্ডার আফ্রিদির ফাউন্ডেশন তা কিনে নিয়েছে এবং পুরো প্রক্রিয়াতে মধ্যস্থতা ও সহায়তা করেছেন বাঁহাতি ওপেনার।
করোনাভাইরাসের প্রকোপ শুরু হওয়ার পর থেকে নিজের ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে আফ্রিদি প্রচুর ত্রাণ কার্যক্রম চালিয়ে আসছেন পাকিস্তানের নানা প্রান্তে। এই ব্যাটও কিনেছেন তার ফাউন্ডেশনের মাধ্যমেই। মুশফিক জানালেন, যত দ্রুত সম্ভব এই অর্থ দুর্গত মানুষের সহায়তায় কাজে লাগানো হবে, ‘আমি অনেক আগে থেকেই আফ্রিদির অনেক বড় ফ্যান। বিপিএলে এক দলে খেলেছি, বিপক্ষে দলে তো খেলেছিই। তার সঙ্গে আমাদের ভালো স্মৃতি আছে অনেক। পিএসএলে খেলার সময়ও কথা হয়েছে। ভালো বোঝাপড়া আছে। তার ফাউন্ডেশন অনেক দিন থেকে কাজ করছে। করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতেও পাকিস্তানসহ নানা জায়গায় সহায়তা কার্যক্রম উনার মতো চালিয়ে আসছেন। এত বড় ব্যক্তিত্ব এই সহায়তা করেছেন, তাতে আমি সম্মানিত। যত টাকাই হয়েছে, বিভিন্ন সোর্সের মাধ্যমে যত দ্রুত সম্ভব পাঠিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করব যেন মানুষের জন্য কাজে লাগানো যায়। আমরা আমাদের মতো চেষ্টা করছি। আশা করি, সামর্থ্যবান সবাই মানুষের পাশে দাঁড়াবেন।’
গত শনিবার শুরু হওয়া অনলাইন নিলাম ভুয়া বিডারদের চাপে বার দুয়েক বন্ধ হয়েছিল। পরে চালু হয় আবার। যাদের ভুয়া বিডের কারণে নিলাম স্থগিত হয়ে গিয়েছিল, তাদের নিয়ে আক্ষেপ শোনা গেল মুশফিকের কণ্ঠে, ‘এমন একটা মহৎ কাজে যারা ভুয়া বিড করেছেন, আমি তাদের ধিক্কার জানাতে চাই। আপনারা শুধু আমার নামকে ছোট করেননি, বাংলাদেশের ক্রিকেটকে ছোট করেছেন, দেশকে ছোট করেছেন।’
ব্যাটটি কিনে নিতে পেরে গর্বিত আফ্রিদি নিজেও। ভিডিও বার্তায় আফ্রিদি জানিয়েছেন, বাংলাদেশের মানুষদের কাছ থেকে পাওয়া ভালোবাসা কখনোই ভুলবেন না তিনি। সাবেক পাকিস্তানি অধিনায়ক বলছেন, এই দুঃসময়ে পরস্পরের পাশে দাঁড়ানোই সবচেয়ে জরুরি, ‘মুশফিক, আপনি আপনার মানুষদের জন্য যে কাজ করছেন, এই কাজ সত্যিকারের জীবনের নায়করা করে থাকেন। আমরা খুবই কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। এই সময়টায় আমাদের সবারই পরস্পরের পাশে থাকা জরুরি। বাংলাদেশ থেকে যে ভালোবাসা আমি পেয়েছি, যেভাবে আমাকে আপন করে নিয়েছেন আপনারা, তা সবসময়ই মনে থাকবে আমার। আমি পাকিস্তানিদের পক্ষ থেকে আপনার ক্রিকেট ব্যাট কিনে আপনার এই ভ্রমণের সঙ্গী হতে চাই, পুরো পাকিস্তান ও শহিদ আফ্রিদি ফাউন্ডেশন। আমাদের দোয়া আপনাদের সঙ্গে থাকবে। আল্লাহ সহায় হলে এই রোগ থেকে আমাদের মুক্তি মিলবে ও আবার মাঠে আমাদের দেখা হবে।’
একই সঙ্গে নিলামে উঠেছিল গত অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ফাইনালে বাংলাদেশ অধিনায়ক আকবার আলির ব্যবহার করা ব্যাট ও গ্লাভস। ২ হাজার ডলারে স্মারক দুটি কিনে নিয়েছেন ‘টাইগার উডস ফাউন্ডেশন’এ কাজ করা যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বাংলাদেশি রিয়াজুল ইসলাম জুয়েল। মুশফিকের ব্যাটটিও কেনার ইচ্ছা ছিল। তবে অতিরিক্ত মূল্য হাঁকানো ভুয়া বিডারদের কারনে বঞ্চিত হন বিশ্বসেরা গলফারের দাতব্য প্রতিষ্ঠানও।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন