বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১২ কার্তিক ১৪২৮, ২০ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

কাউন্টি অভিষেকেই ম্যাচ উইনার কাটার মাস্টার

মুস্তাফিজে বদলে গেছে সাসেক্স

প্রকাশের সময় : ২৩ জুলাই, ২০১৬, ১২:০০ এএম | আপডেট : ১:০৪ এএম, ২৪ জুলাই, ২০১৬

বিশেষ সংবাদদাতা : চেম্পসফোর্ডে এসেক্সের বিপক্ষে অভিষেক হচ্ছে, লন্ডনের ফ্লাইট ধরার আগে এতোটা নিশ্চিত ছিলেন না মুস্তাফিজুর নিজেও। ঢাকা থেকে আকাশ পথে ১৩ ঘন্টার ভ্রমণ করে হিথ্রো বিমানবন্দর থেকে সড়কপথে সোজা সাসেক্সের হোম হোভ এ। নিজের লকারের সামনে দাঁড়িয়ে ৯০ নম্বর জার্সি হাতে হাসিখুশি মুস্তাফিজুর জেনে গেলেন আর ক’ঘন্টা পর চেম্পসফোর্ডে নামছেন খেলতে, ইংলিশ কাউন্টিতে হচ্ছে তার অভিষেক!  আইপিএলে খেলেছেন প্রচ- গরম আবহাওয়ায়, ঢাকায় রিহ্যাব থেকে শুরু করে বোলিং অনুশীলন করেছেন ভ্যাপসা গরম আর বৃষ্টির মধ্যে। সেখানে ইংল্যান্ডে সিমিং কন্ডিশন!  ম্যাচে নামার আগে এমন কন্ডিশনের সঙ্গে খাপ খাইয়ে নেয়াটাই যেখানে প্রাথমিক লক্ষ্য হওয়ার কথা, সেখানে অনুশীলনহীন,বিশ্রামহীন মুস্তাফিজুরকে নামিয়ে দেয়া হলো এসেক্সের বিপক্ষে!
তবে মুস্তাফিজুর বলেই কথা, সব ভার্সনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট, টি-২০ বিশ্বকাপ, আইপিলের মতো বড় আসরে অভিষেকেই হৈ চৈ ফেলে দেয়ার অতীত যার, কাটার যাদুতে ইংলিশ কাউন্টিতে নিজের অভিষেকও স্মরণীয় করার প্রেরণা পেয়েছেন এই বাঁ হাতি পেস বিস্ময়। যে দলটি ২ মাস গুণেছে প্রতীক্ষার প্রহর, লাল গালিচা বিছিয়ে রাখা সেই সাসেক্সের আস্থার প্রতিদান দিয়েছেন কাউন্টি অভিষেকে। ৪-০-২৩-৪, ন্যাট ওয়েস্ট টি-২০তে তার এই বিস্ময় বোলিংয়েই বদলে গেছে সাসেক্স। যে দলটি ন্যাটওয়েস্ট টি-২০ ব্লাস্টে ১১ ম্যাচ শেষে ১০ পয়েন্টে পয়েন্ট তালিকায় ছিল তলানীতে, মুস্তাফিজুরকে পেয়ে সেই দলটিই কি না এসেক্সকে ২৪ রানে হারিয়ে এক লাফে পয়েন্ট তালিকায় ৭ থেকে ৪ এ উঠে গেছে !
টসে হেরে ক্রিস জর্ডান (২১ বলে ৪৫), লুক রাইট (২৪ বলে ৩২), সল্টের (১৯ বলে ৩৩) ব্যাটিংয়ে ২০০/৬ স্কোর নিয়েও নিরাপদে ছিল না সাসেক্স। আস্কিং রান তাড়া করে প্রথম ৫ ওভার শেষে এসেক্সের স্কোর ৫০/১, প্রকারান্তরে সাসেক্সকে চোখ রাঙানিই দিয়েছে। সেখান থেকে ম্যাচে ঘুরে দাঁড়ানোর সাহস পেয়েছেন সাসেক্স  অধিনায়ক লুক রাইট মুস্তাফিজুরের হাতে বল তুলে দিয়ে। ৫ম ওভারে টি-২০ স্পেশালিস্ট বোলার জর্ডানের খরচা যেখানে ১২ রান, সেখানে পাওয়ার প্লে’র শেষ ওভারে মুস্তাফিজুরের প্রথম ওভারে খরচা মাত্র ৪ রান! ১ ওভারের ওই স্পেলে মুস্তাফিজুরকে থামিয়ে দিয়ে বিস্ময় বোলারকে দিয়ে শ্লগে আক্রমণের জন্য মজুদ রাখার পরিকল্পনা দিয়েছে কাজে। ১৬তম ওভারে রবি বোপারা বুঝতে পারেননি মুস্তাফিজুরের কাটার, অনোন্যপায় হয়ে দিয়ে এসেছেন এই মিডল অর্ডার মিড অনে ক্যাচ। কাউন্টিতে নিজের অভিষেক উইকেটে উদ্দীপ্ত মুস্তাফিজুরের শেষ স্পেলটি ৩-০-১৯-৪! শেষ ৩০ বলে ৬৮ রানের চ্যালেঞ্জটা এসেক্সকে দূরূহ করে দিয়েছেন মুস্তাফিজুর দ্বিতীয় স্পেলের শুরুতেই। ১৮তম ওভারের ৩য় এবং ৬ষ্ঠ বলে ২টি কাটার ডেলিভারিতে ফস্টার এবং টেলরকে হতভম্ব করে ফিরিয়ে দিয়েছেন বোল্ড আউটে! এক প্রান্ত আগলে রেখে ব্যবধান কমানোর লড়াইয়ে অবতীর্ণ ডাচ তারকা ডেসকাটকে পয়েন্টে ক্যাচ দিতে বাধ্য করে শিকার করেছেন চতুর্থ উইকেট। নিজেদের মাঠে (হোভ) গত ৩ জুন এসেক্সের কাছে হেরে গেছে যে দলটি ২৩ রানে, সেই দলটিই কিনা ফিরতি ম্যাচে এসেক্সকে অ্যাওয়ে ভেন্যুতে ২৪ রানে হারিয়ে নিয়েছে বদলা। নায়ক আর কেউ নন, সাসেক্সকে বদলে দেয়া ম্যাচের নায়ক মুস্তাফিজুর। আন্তর্জাতিক ওয়ানডে অভিষেকে ভারতের বিপক্ষে অসাধারণ বোলিংয়ে (৫/৫০)  ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কার পেয়েছেন, কাউন্টিতে নিজের অভিষেকেও দূর্দান্ত বোলিংয়েও (৪/২৩) ম্যান অব দ্য ম্যাচ মুস্তাফিজুর !
সাসেক্সে এমন আলোচিত অভিষেকে গর্বিত মুস্তাফিজÑ ‘আমার আগে সাকিব ভাই খেলে গেছেন ইংল্যান্ডে। তবে সাসেক্সে প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে খেলতে পেরে আমি গর্বিত। এমন সুযোগ দেয়ার জন্য সাসেক্সকে ধন্যবাদ।’  অচেনা পরিবেশ, অনভ্যস্ত আবহাওয়ায় এমন বোলিংয়ে সাসেক্সকে অনেক দূর নিয়ে যেতে চানÑ ‘এখানকার আবহাওয়া অনেক ভালো, ঠা-া। এর আগে ভারতে যখন আইপিএল খেলি তখন খুব গরম ছিলো ওখানে। এখানকার উইকেটও ভালো বলে শুনেছি। আমরা যখন জাতীয় দলের হয়ে খেলি, সবসময় জয়ের জন্য খেলে থাকি। এখানেও তার ব্যতিক্রম হবে না। আমি এতদিন ছিলাম না, আরো ৩টি ম্যাচ আছে, আশা করি সবগুলো ম্যাচ জিততে দলকে সাহায্য করতে পারবো। বাংলাদেশে সাসেক্সের অনেক ফ্যান আছে, তাদের কাছে দোয়া চাইছি।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
mamun ২৩ জুলাই, ২০১৬, ২:৫৮ এএম says : 0
MOSTAFIZ THE GREAT GO AHEAD. WHOLE BANGLADESH BEHIND YOU.
Total Reply(0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন