ঢাকা, বুধবার, ২৭ মে ২০২০, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৩ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

সকল প্রস্তুতি আছে আল্লাহ ভরসা

ভিডিও কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ মে, ২০২০, ১২:০৫ এএম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ঘূর্ণিঝড় ‘আমফান’ এর কবল থেকে জানমাল রক্ষায় সরকার সম্ভব সবধরনের প্রস্তুতি নিয়েছে। ১৩ হাজার ২৪১টি আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে এবং ২০ লাখ মানুষকে আশ্রয়কেন্দ্রে নেওয়া হয়েছে।

গতকাল বুধবার সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কাউন্সিলের সভায় প্রধানমন্ত্রী ওইসব কথা বলেন। সভা শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের জানান, সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, প্রস্তুতি আমাদের আছে, এখন বাকিটা আল্লাহ ভরসা।

এটা প্রকৃতির নিয়ম, প্রকৃতির খেলা। তবুও আমরা সব সময় আল্লাহর কাছে দোয়া করি যে, এর থেকে যেন আমাদের জানমাল ক্ষতিগ্রস্থ না হয়। আর এই ঝড়ের শক্তিটা যেন আস্তে আস্তে কমে যায় বাংলাদেশে আসতে আসতে, সেটাই আমরা কামনা করি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাসের দুর্যোগ কাটিয়ে উঠতে ব্যাপকভাবে যখন সরকার কাজ করে যাচ্ছে, তখন এসেছে প্রাকৃতিক দুর্যোগ। এখানে কারো হাত নেই, এটা আমরা ঠেকাতে পারব না। কিন্তু মানুষের জানমাল কটুকু রক্ষা করা যায় সেই বিষয়ে ব্যবস্থাটা আমরা নিতে পারি এবং সেটা আমরা নিয়ে যাচ্ছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রস্তুতি তো সম্পূর্ণ নিতে হবে। যখন দেশের উপর আঘাত করবে শুধু চিন্তার বিষয় থাকবে তখন যদি পূর্ণ জোয়ার বা পূর্ণিমা থাকে সেটি আরো ভয়ঙ্কর হয়ে যায়। কাজেই আসলে প্রকৃতির খেলা বোঝা মুশকিল। তারপরও আমি মনে করব সরকারের দিক থেকে সব ধরনের ব্যবস্থা নিতে হবে।

সভায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি সর্বক্ষণ যোগাযোগ রাখছি। প্রত্যেকে আমাকে খবর পাঠাচ্ছে, সেজন্য ধন্যবাদ এবং যেটুকু প্রস্তুতি এর জন্য আমি সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই যে যথাযথ ব্যবস্থা আপনারা নিয়ে নিচ্ছেন। এই ধরনের দুর্যোগে আগে থেকেই কী কী ব্যবস্থা নিতে হবে সেজন্য নীতিমালা প্রণয়ন করা হয়েছে।

১৯৯১ সালের ঘূর্ণিঝড়ের কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, যে প্রলয়ঙ্করী ঘূর্ণিঝড় হয়েছিল সেখানে লাখ লাখ মানুষ প্রাণ হারিয়েছিল। সেটা এমন একটা ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড়, দুর্ভাগ্য যে তখন বিএনপি ক্ষমতায় ছিল। তারা অনেকে জানতই না যে ঝড় আসছে বা এটাতে কোনো রকম কোনো পদক্ষেপ তারা নেয়নি বা পূর্ববর্তী কোনো প্রস্তুতিই তাদের ছিল না।

তিনি বলেন, ওই ঘূর্ণিঝড়ে এয়ারফোর্সের বিমান নষ্ট হয়ে যায়। নেভির জাহাজ নষ্ট হয়। আমাদের প্রচুর সম্পদ নষ্ট হয়, মানুষ মারা যায়। মানুষের লাশ, শিশুর লাশ, পশুর লাশ একই সাথে পানিতে ভাসতে আমি দেখেছি। আমরা আমাদের দলের পক্ষ থেকে তখনকার সরকারের পূর্বেই অনেক কষ্ট করে মাছের ট্রলারে করে বিভিন্ন দ্বীপ অঞ্চলে পৌঁছে যাই। ত্রাণ বিতরণের কাজ করি। তখন থেকেই আমাদের একটা পরিকল্পনা ছিল এই ধরনের দুর্যোগ এলে আমাদের কি করনীয়।

১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠনের আগে আবহাওয়া দফতরের অবস্থা করুণ ছিল উল্লেখ করে সভায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, কোনো রকম আধুনিক ব্যবস্থা ছিলই না। এরপর আমরা এটাকে আধুনিক করার চেষ্টা করেছি। আর এখন আমরা স্যাটেলাইটের মাধ্যমে তথ্য সংগ্রহ করতে পারি। আন্তর্জাতিকভাবে বেশ কিছু চুক্তিও আমরা করেছি। প্রতিবেশি দেশের কাছ থেকেও আমরা তথ্যগুলো সময় মতো সংগ্রহ করতে পারি।

গণভবনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী মো. এনামুর রহমান। সচিবালয় থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত ছিলেন সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী, মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম, তিন বাহিনী প্রধানসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (10)
Rafiq Sikder ২১ মে, ২০২০, ১২:৫৩ এএম says : 0
আল্লাহ তুমি দুনিয়া থেকে গজব উঠিয়ে নাও আমিন
Total Reply(0)
MD Ashraful Alam ২১ মে, ২০২০, ১২:৫৬ এএম says : 0
আমি আছি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়।এখানে এখন পর্যন্ত তেমন কোনো বৃষ্টি পরিলক্ষিত হয়নি। তবে বাতাসের গতিবেগ কিছুটা বেশি।
Total Reply(0)
Sultan Mahmud Setu ২১ মে, ২০২০, ১২:৫৬ এএম says : 0
"তোমাদের উপর যেসব বিপদ-আপদ পতিত হয়, তা তোমাদের কর্মেরই ফল এবং তিনি(আল্লাহ)তোমাদেরকে অনেক গুনাহ্ ক্ষমা করে দেন।" (সূরা শূরা আয়াত ৩০)
Total Reply(0)
Sures Roy ২১ মে, ২০২০, ১২:৫৭ এএম says : 0
একদিকে করোনা অন্যদিকে ঘূর্ণিঝড় আর একদিকে আশ্রয়কেন্দ্রে সাস্থবীধি মানা বড়ই বিশৃঙ্খল অবস্হা,যা মেনে চলা সবার জন্য কঠিন,
Total Reply(0)
Nure Azam ২১ মে, ২০২০, ১২:৫৮ এএম says : 0
করোনাকালেও খবরে, টিভিতে দেখলাম ইচ্ছামতো ঠাসাঠাসি করে, মাস্ক না করে কোনো নিরাপত্তা নেই, যার যার মতো করে ছুটছে। আশ্রয় কেন্দ্রে নেই পর্যাপ্ত সবান, মাস্ক, সামাজিক দূরত্ব মানার ব্যবস্থা
Total Reply(0)
Kamrul Hasan Chowdhury ২১ মে, ২০২০, ১২:৫৮ এএম says : 0
মানুষ এখন জীবন মরণের সন্ধিক্ষণে, কূল নেই কিনারা নেই।
Total Reply(0)
Mahfuz Bin Ahmed ২১ মে, ২০২০, ১২:৫৮ এএম says : 0
সবাইকে নিরাপদ স্থানে থাকার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে।
Total Reply(0)
Sha Alam Miya ২১ মে, ২০২০, ১২:৫৯ এএম says : 0
নতুন ঘূর্ণিঝড়ের নাম শুনলে আমরা সাধারন জনগন আতঙ্কিত হই আর চেয়ারম্যান মেম্বার রা মনে মনে খুশি হয়
Total Reply(0)
ash ২১ মে, ২০২০, ৬:২৪ এএম says : 0
HMMM BANGLADESHER SHOB SHOMOY E PROTUTI THAKE !! JOTTTO SHOBBB
Total Reply(0)
ash ২১ মে, ২০২০, ৬:২৬ এএম says : 0
DESH TAKE KUFFAY DORCHE
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন