ঢাকা, শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০, ২৭ আষাঢ় ১৪২৭, ১৯ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

কুষ্টিয়া করোনা আপডেট : নতুন করে আক্রান্ত ৩ জন

কুষ্টিয়া থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৪ মে, ২০২০, ৪:০৫ পিএম

কুষ্টিয়ায় নতুন করে আরও তিন জনের শরীরে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। এ নিয়ে জেলায় মোট ৩৪ (বহিরাগত বাদে) জন আক্রান্ত হলো।

আজ শনিবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে কুষ্টিয়া জেলা সিভিল সার্জন ডা. এইচ এম আনোয়ারুল ইসলাম।

গত ২৪ ঘণ্টায় কুষ্টিয়া পিসিআর ল্যাবে মোট ১৫৩টি স্যাম্পল এর টেস্ট করা হয়েছে যার মধ্যে ৬৩টি কুষ্টিয়া জেলার, ৪১টি মেহেরপুর জেলার এবং ৪৯টি চুয়াডাঙ্গা জেলার। এর মধ্যে কুষ্টিয়া জেলা হতে পাঠানো ৪টি এবং মেহেরপুর জেলা হতে পাঠানো ২টি স্যাম্পলের ফলাফল পজিটিভ হয়েছে এবং বাকী সবগুলোর ফলাফল নেগেটিভ। কুষ্টিয়ার পজিটিভ ৪ জনের মধ্যে ১ জনের বাড়ি ঝিনাইদহ এবং কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলায় ২ জন ও কুমারখালি উপজেলায় ১ জন মোট ৩ জন করোনা রোগী সনাক্ত হয়েছে৷।

কুষ্টিয়ায় আক্রান্ত ৩ জনের ১ জনের বাড়ি মরিচা দৌলতপুর, ২য় জনের বাড়ি জয়ভোগা পিয়ারপুর দৌলতপুর এবং অপরজনের বাড়ি লাহিনী কুষ্টিয়া। তাদের বয়স যথাক্রমে ৩২,২৫ ও ৪০ বছর। সকলেই পুরুষ। এদের বাড়ি ও এলাকা ইতিমধ্যেই লকডাউন করে দেওয়া হয়েছে।

কুষ্টিয়ার মোট করোনা পজিটিভ ৩৬ (বহিরাগত সহ) জনের (৩৫ জনের টেস্ট কুষ্টিয়ায় করা হয়েছে এবং ১ জনের টেস্ট ঢাকায় করা হয়েছে), যার মধ্যে মোট ১৮ জন সুস্থ হয়ে গেছেন।

জানা যায়, আজ পর্যন্ত কুষ্টিয়া জেলার মোট ১৪৮৭ জনের স্যাম্পল সংগ্রহ করা হয়েছে, এর মধ্যে রিপোর্ট পাওয়া গেছে ১৩৪৬ জনের। ১৩১১ জনের রেজাল্ট নেগেটিভ পাওয়া গেছে। কুষ্টিয়ার মোট করোনা পজিটিভ ৩৬ জনের (৩৫ জনের টেস্ট কুষ্টিয়ায় করা হয়েছে এবং ১ জনের টেস্ট ঢাকায় করা হয়েছে), যার মধ্যে মোট ১৮ জন সুস্থ হয়ে গেছেন। বাকী ১৮ জনের মধ্যে ১ জন পুলিশ কর্মকর্তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। অন্য ১৭ জনের সবার বাসা লকডাউনের আওতায় আনা হয়েছে এবং আক্রান্ত রোগীদের আইসোলেশন নিশ্চিত করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত সবাই সুস্থ আছেন। বাকি ১৪১টি স্যাম্পলের টেস্ট রেজাল্ট এখনো পাওয়া যায়নি।

হোম কোয়ারেন্টাইনঃ নোভেল করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এর প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় কুষ্টিয়া জেলায় ২৩ মে, ২০২০ তারিখ পর্যন্ত বিদেশ ফেরত ৬৭৩ জনসহ ঢাকা/নারায়ণগঞ্জ/করোনা আক্রান্ত এলাকা হতে আগত ২৫৭২ জনের হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করা হয়েছে। কুষ্টিয়া জেলার ২টি প্রতিষ্ঠানে মোট ২০০ জনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনের এবং ৬টি উপজেলাসহ ৩টি প্রতিষ্ঠানে (FWVTI তে ৪০টি, কুষ্টিয়া ডায়াবেটিস হাসপাতালে ৩০টি, ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালের ৩০টি) মোট ১৩৬টি আইসোলেশন ওয়ার্ডের ব্যবস্থা করা হয়েছে। করোনা রোগী সন্দেহে বর্তমানে ১৭ জন আইসোলেশনে আছেন।

জেলা স্বাস্থ্যবভিাগ জানায়, কুষ্টিয়ায় প্রথম করোনা শানক্ত হয় ২৩ র্মাচ। সেই থেকে অদ্যাবধি মোট ৩৬ জন করোনা শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ১৮ জনই সুস্থ হয়ে উঠেছেন।কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের জ্যেষ্ঠ মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডাক্তার মুসা কবির করোনা ভাইরাস সংক্রমণ এড়াতে সবাইকে ঘরে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। প্রয়োজনে বাইরে বের হলে অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দেন তিনি।

কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মো. আসলাম হোসেন জানান, করোনা ভাইরাস সংক্রমণরোধে ওই তিন রোগীর বাড়ি ও আশপাশের এলাকা লকডাউনসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে কঠোরতা আরোপ করা হয়েছে। জেলাবাসীকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে জীবন যাপনের পরামর্শ দেন।

তিনি বলেন মানুষকেই নিজেদের বাঁচবার তাগিদে নিয়ম মানতে হবে। তিনি বলেন এখনও সময় আছে সর্তক হবার। অনুগ্রহ করে সকলে সতর্ক থাকুন, ঘরে থাকুন৷বহিরাগত বাদে জেলায় আদ্যাবধি কোভিড সনাক্ত ৩৪ (বহিরাগত বাদে) জন।উপজেলা ভিত্তিক রোগী-দৌলতপুর-১৪, ভেড়ামারা-২, মিরপুর-৬, সদর-৪, কুমারখালী-৭, খোকসা-১(পুরুষ রোগী-২৫, নারী রোগী-৯)সুস্থ হয়ে ছাড় পেয়েছেন ১৮ জন।উপজেলা ভিত্তিক সুস্থ- ১৬ জনদৌলতপুর-৪, ভেড়ামারা-২, মিরপুর-৪, সদর-১, কুমারখালী-৫, বহিরাগত সুস্থ-২বর্তমানে হোম আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন ১৭ জনঢাকায় চিকিৎসাধীন ১ জন

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন