ঢাকা, বুধবার, ০৮ জুলাই ২০২০, ২৪ আষাঢ় ১৪২৭, ১৬ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

বঙ্গভবনে ঈদের নামাজ পড়লেন প্রেসিডেন্ট

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৫ মে, ২০২০, ২:১৮ পিএম

প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ তাঁর পরিবারের সদস্য এবং কয়েকজন সিনিয়র সরকারি কর্মকর্তাকে নিয়ে বঙ্গভবনের দরবার হলে পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করেছেন।
প্রেসিডেন্টের প্রেস সচিব মোহাম্মদ জয়নাল আবেদীন সংবাদ সংস্থা বাসসকে জানিয়েছেন, রাষ্ট্রপ্রধান তার পরিবারের সদস্য এবং কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ সরকারি কর্মকর্তাকে সঙ্গে নিয়ে আজ সকাল সাড়ে ৯টায় বঙ্গভবনের দরবার হলে ঈদের নামাজ আদায় করেন।
বঙ্গভবন জামে মসজিদের পেশ ইমাম মুফতি মাওলানা সাইফুল কবির ঈদের নামাজে ইমামতি করেন। নামাজ শেষে দেশের জনগণের অব্যাহত শান্তি, অগ্রগতি ও মুসলিম উম্মার শান্তি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। এ সময়ে সাম্প্রতিক সময়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে যারা মারা গেছেন তাদের আত্মার শান্তি কামনা এবং দেশে ও সারাবিশ্বে করোনায় আক্রান্তদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করা হয়।
এ ছাড়া ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট শাহাদৎবরণকারী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং তাঁর পরিবারের সব সদস্য ও দেশের জন্য বিভিন্ন গণতান্ত্রিক আন্দোলনে বিশেষ করে ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে জীবন উৎসর্গকারী সব শহীদের আত্মার শান্তি কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়।
প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদ নামাজ আদায় শেষে বঙ্গভবনে তার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কিছু সময় অতিবাহিত করেন।
ঈদ মুসলমানদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব হলেও মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে এবার দিনটি এসেছে ভিন্ন এক আবহে। জাতীয় ঈদগাহ মাঠে অনুষ্ঠিত ঐতিহ্যবাহী ঈদের জামাত অনুষ্ঠান এ বছর আগেই বাতিল করা হয়। জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে পাঁচটি জামাত অনুষ্ঠিত হয়। এতে মহামারি থেকে মুক্তিসহ কল্যাণ, সুখ-শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করে মোনাজাত হয়।

জাতীয় ঈদগাহের মতো এবার ঈদের জামাত বাতিল হয়েছে উপমহাদেশের সবচেয়ে বড় ঈদগাহ কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ময়দানেও।
মসজিদে মসজিদে ঈদের নামাজ হলেও নামাজ শেষে দেখা যায়নি পরিচিত সেই হাসিমুখ, ছিল না কোলাকুলিও। সব মিলিয়ে অন্যরকম এক ঈদ গেল এবার।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Mohammed Shah Alam Khan ২৫ মে, ২০২০, ১০:২৫ পিএম says : 0
দেশের রাষ্ট্রপতির নিরাপত্তার বিষয়ে অবশ্যই আমাদের চিন্তা করা দরকার এবং সেইভাবেই ব্যাবস্থা নেয়া উচিৎ। সেদিক থেকে অবশ্যই ওনার উপদেষ্টা ও রাষ্ট্রীয় পদস্থ কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েই রাষ্ট্রপতি বঙ্গভবনের দরবার হলে পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করেছেন এতে কোন সন্দেহ নেই। আবার এটা নিয়ে এখানে কোন বিরুপ মন্তব্য করার কোন সুযোগ কাওরো নেই। তারপরও আমার একটা ব্যাক্তিগত মনের কথা না বলেই পারছিনা সেটা হচ্ছে, বাংলাদেশের প্রধান হলেন রাষ্ট্রপতি। তিনি সবসময়ই দেশের জাতীয় ঈদ্গাহ মাঠে মানে প্রধাণ ঈদের জামাতে (হাইকোর্টের ঈদ্গা ময়দানে ঈদের জামাত) আদায় করে থাকেন। এবার সরকার প্রধাণ ঈদের জামাত জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম মসজিদে আদায়ের ব্যাবস্থা করেছেন। সেই হিসাবে আমার মনে হয়েছে এবার যদি আমাদের রাষ্ট্রপতি তাঁর নিরাপত্তার সকল আয়োজন রক্ষা করে প্রধাণ ঈদের জামাতে নামাজ আদায় করতেন তাহলে সেটা অনেক শোভনীয় হতো। আর যদি বর্তমান রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ সাহেবের শারীরিকভাবে কোন আসুস্থতার কারনে লোকালয়ে যাওয়ার অসুবিধা থাকে তবে সেটা সম্পূর্ন ভিন্ন বিষয়। আল্লাহ্‌ আমাকে সহ সবাইকেই আল্লাহ্‌র প্রতি আনুগত্য ও আল্লাহ্‌র সকল নির্দেশ মান্য করে চলার ক্ষমতা দান করুন। আমিন
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন