ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০১ অক্টোবর ২০২০, ১৬ আশ্বিন ১৪২৭, ১৩ সফর ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

মীরসরাইয়ে বিদেশী পিস্তল সহ ৪ ছিনতাইকারী আটক

মীরসরাই (চট্টগ্রাম) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩১ মে, ২০২০, ৮:১৪ পিএম

মীরসরাইয়ে বিদেশী পিস্তল সহ ৪ ছিনতাইকারীকে আটক করেছে মীরসরাই থানা পুলিশ। রবিবার (৩১ মে) বিকেল সাড়ে ৪টার উপজেলার নিজামপুর সরকারি কলেজের সামনে পুলিশের চেকপোষ্টে তাদের আটক করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে একটি বিদেশী পিস্তল ও ৪ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। আটককৃতরা হলো সীতাকুন্ড উপজেলার সৈয়দপুর ইউনিয়নের মহানগর এলাকার স্বপন কুমার শীলের পুত্র হৃদয় কুমার শীল (২৩), একই উপজেলার নুনাছড়া এলাকার আমান উল্লাহর পুত্র নিজাম উদ্দিন (২৫), কালুশাহ এলাকার জামাল উদ্দিনের পুত্র রাহাদুল আলম (২৫) ও ভাটিয়ারি এলাকার মাঝি বাড়ির মৃত শফিউল্ল্যাহর পুত্র বিল্লাল হোসেন ওরফে আসলাম (২৮)। এরা সবাই ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যাত্রীবেশে লোকজনকে গাড়িতে তুলে ছিনতাই করে থাকে। রবিবার মীরসরাই উপজেলার ছোটকমলদহ এলাকা থেকে চট্টগ্রাম শহরগামী যাত্রী ফয়সাল ইকবালকে ছিনতাই করে গাড়ি থেকে পেলে দেয়ার পর ওই ব্যক্তির দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ তাদের আটক করে।
ভুক্তভোগী ফয়সাল ইকবাল জানান, রবিবার দুপুর আনুমানিক ১টার দিকে চট্টগ্রাম শহরে আমার কর্মস্থলে যাওয়ার জন্য ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মীরসরাই উপজেলার ছোটকমলদহ এলাকা থেকে একটি ছোট প্রাইভেটকারে উঠি। কারের মধ্যে চালক ছাড়া আরো ৩জন যাত্রী ছিল। সীতাকুন্ড বাজারের উত্তর পাশে যাওয়ার পর গাড়ির ভেতর থাকা যাত্রীদের একজন হটাৎ আমার নাকে একটি ঘুষি মারে। এরপর আমার নাক থেকে রক্ত ঝরতে থাকে। আমি জিজ্ঞেস করি আমাকে মারলেন কেন? তারা আমাকে অস্ত্রের মুখে জিম্মী করে বলে তোর কাছে যা আছে সব দিয়ে দে। এরপর আমার কাছে থাকা নগদ ৪৫০০ টাকা ও দুটি মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। পরে কুমিরা এলাকায় রোজ গার্ডেনের সামনে গাড়ি ঘুরিয়ে আমাকে রাস্তার পাশে নামিয়ে দেয়। আমি গাড়ির নম্বর মুখস্ত করে স্থানীয়দের সাহয্যে সীতাকুন্ড থানা ও হাইওয়ে পুলিশকে ফোন দিলেও তারা কোন ধরনের সহযোগীতা করেনি। পরে মীরসরাই থানার ওসিকে ফোন দেয়ার পর তিনি তিনি ছিনতাইকারীদের আটক করেন এবং আমার টাকা, মোবাইল উদ্ধার করেন।
এই বিষয়ে মীরসরাই থানার অফিসার ইনচার্জ মজিবুর রহমান পিপিএম বলেন, রবিবার বিকেলে ফয়সাল ইকবাল নামে একজন আমাকে ফোন দিয়ে সে ছিনতাইকারীর কবলে পড়েছে মর্মে তথ্য এবং ছিনতাকারীদের বহনকরা গাড়ির নম্বর দেয়। আমি সাথে সাথে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কয়েকটি স্পটে পুলিশী টহল জোরদার করি। নিজামপুরে আগে থেকেই আমাদের একটি চেকপোষ্ট রয়েছে। ছিনতাকারীরা বুঝতে পেরে চেকপোষ্টের একটু আগে গাড়ি থামিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় একজন পালিয়ে গেলেও ৪ ছিনতাইকারীকে পুলিশ আটক করে। আটককৃতদের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও দ্রুত বিচার আইনে দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন