ঢাকা রোববার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৫ আশ্বিন ১৪২৭, ০২ সফর ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

কোনো ঝুঁকি নিতে চায় না বিসিবি

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩ জুন, ২০২০, ১২:০১ এএম

দেশে করোনার সংক্রমণের হার ঊর্ধ্বমুখী হওয়ার পরও খুলে গেছে সরকারি-বেসরকারি অফিস। তবে যতই সবকিছু চালু হোক, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) এগোচ্ছে ধীরে চলো নীতিতে। অবশ্য খেলোয়াড়দের মাঠে কীভাবে ফেরানো যায়, সেটির প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে বোর্ড। শ্রীলঙ্কা এরই মধ্যে অনুশীলনে ফেরার পথে হাঁটছে। বিসিবি পর্যবেক্ষণ করবে তাদের কার্যক্রমও।
খেলোয়াড়দের মাঠে ফেরানোর প্রস্তুতির অংশ হিসেবেই মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে চলছে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান। এ ছাড়া বিসিবি চাইছে শুরুতে মাঠকর্মী, পরিচ্ছন্নতাকর্মী, টিম বয় কিংবা মাঠে খেলোয়াড়দের কাছাকাছি আসেন, এমন কর্মীদের আলাদা করে ফেলতে। তাঁদের করোনা পরীক্ষা করিয়ে সঙ্গনিরোধে নেওয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছে বলে জানান বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন চৌধুরী, ‘যাদের অনুশীলনের সময় খেলোয়াড়দের কাছাকাছি যাওয়ার সম্ভাবনা আছে, সে রকম নির্দিষ্টসংখ্যক স্টাফ চিহ্নিত করে তাদের আমরা বিচ্ছিন্ন করে ফেলার কথা ভাবছি। তাদের কোভিড-১৯ পরীক্ষা করানো হবে। খেলোয়াড়েদের স্বাস্থ্যনিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই এমন পরিকল্পনা।’
তবে ক্রিকেটারদের এখনই কোভিড-১৯ পরীক্ষা করাবে না বিসিবি। ক্রিকেট বোর্ড ধরে নিচ্ছে, খেলোয়াড়েরা স্বাস্থ্যবিধি ঠিকঠাক মেনেই চলছেন। পরীক্ষা যদি করতেই হয়, সেটি বিশেষজ্ঞদের মতামত নিয়ে করা হবে বলে জানান প্রধান নির্বাহী।
নির্দিষ্ট দিন-তারিখ ঠিক না হলেও বিসিবির পরিকল্পনা শুরুতে ক্রিকেটারদের একক অনুশীলন দিয়ে ক্রিকেটীয় কার্যক্রম শুরু করার। সেটি হলে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের ইনডোর, ম‚ল মাঠ ও একাডেমি মাঠে এক সময়ে তিনজন খেলোয়াড় অনুশীলন করতে পারবেন। পরিস্থিতি বুঝে ধীরে ধীরে অনুশীলনে খেলোয়াড়সংখ্যা বাড়বে। তার আগে বিসিবির মেডিকেল বিভাগ নির্বাচকদের সঙ্গে বসে ঠিক করবে শুরুতে কতজন খেলোয়াড় অনুশীলন শুরু করবেন। একক অনুশীলন নিয়ে নির্বাচক হাবিবুল বাশার বললেন, ‘খেলোয়াড়দের একক অনুশীলনের মাধ্যমে ক্রিকেটীয় কার্যক্রম শুরুর ব্যাপারে মেডিকেল বিভাগ, ট্রেনারদের সঙ্গে আমাদের আলাপ-আলোচনা চলছে। তবে এটা এখনো চ‚ড়ান্ত হয়নি। একক অনুশীলন শুরু হলে জাতীয় দলের ক্রিকেটাররাই আপাতত প্রাধান্য পাবে।’
শ্রীলঙ্কা ১৩ জন ক্রিকেটারকে নিয়ে আবাসিক ক্যাম্প শুরু করলেও বিসিবি এখনই সে পথে হাঁটবে না। তবে শ্রীলঙ্কার অভিজ্ঞতা পর্যবেক্ষণ করবে তারা। বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী বললেন, ‘শ্রীলঙ্কার ট্রেনিং ক্যাম্পটা আমরা লক্ষ করছি। ওদেরটা ফলপ্রসূ হলে আমরাও সে অনুযায়ী কিছু নির্দেশনা তৈরি করতে পারব। বোর্ড থেকে আমাদের প্রস্তুতি নিয়ে রাখতে বলা হয়েছে, যেন স্বল্প সময়ের নোটিশে সব শুরু করতে পারি। যেহেতু প্রস্তুতি নিয়ে রাখতে বলা হচ্ছে, ধরে নিচ্ছি, অনুশীলন শুরুর পরিকল্পনাও করা হচ্ছে।’

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন