ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৯ জুলাই ২০২০, ২৫ আষাঢ় ১৪২৭, ১৭ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ

আবদুল মোমিন | প্রকাশের সময় : ২ জুন, ২০২০, ১০:০৩ পিএম

করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঝুঁকির মধ্যেই দেশব্যাপী বাস, ট্রেন, লঞ্চসহ সব ধরনের গণপরিবহন চালু হয়ে গেছে রোববার থেকে। গণপরিবহন চালুর প্রথম দুদিনে স্বাস্থ্যবিধি না মানার অসংখ্য ঘটনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন সচেতন নাগরিকরা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্বাস্থ্যবিধি না মানার বহু ছবি ভাইরাল হলে বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ দেখা দেয় নেটিজেনদের মাঝে। ফেইসবুকে এসব ঘটনার কড়া প্রতিবাদ জানিয়েছেন অনেকে।

জাবের আহমেদ রুমেল ফেইসবুকে লিখেছেন, ‘‘সাস্থ্যবিধি এবং গনপরিবহন এই দুইয়ের মাঝে আকাশ পাতাল ব্যবধান যা কখনই সম্ভব নয় সমাধান করার, যদি না ব্যক্তি পর্যায়ে সতর্ক এবং সচেতন না হন। এখানে আরেক বিষয় যে জনগণকে আরো বেশি অসহায়ের দিকে টেলে দিচ্ছে। কারন সরকার এখন দেশের করোনা পরিস্তিতি হার্ডইমিউনিটির উপড় ছেড়ে দিয়েছে আর সেটার জন্য আমরা জনগনও অনেকাংশে দায়ী।’’

আদিত্ব মন্ডল আদি লিখেছেন, ‘‘আমাদের দেশে তো ৬৬দিন লকডাউন দেয়নি, সরকার সাধারণ ছুটি দিয়েছিল। অন্যন্যা দেশে তো লকডাউন দিয়েছিল। ওই ৬৬ দিন বাংলাদেশে লকডাউন দিলে এতো করোনা রোগী পাওয়া যেত না। সাধারণ ছুটিতে নিম্ন আয়ের মানুষের আরো বেশি সমস্যা হয়েছে।’’

মো. আমির হোসাইন লিখেছেন, ‘‘কিছুই মানা হচ্ছেনা! গনপরিবহন চালু করার আগে যেসব কথাবার্তা বলা হয়েছে সেগুলো শুধু মুখের কথা। কিন্তু কাজের বেলায় তার কিছুই মানা হচ্ছেন এটাই বাংলাদেশের নিয়ম।’’

ইঞ্জিনিয়ার ইমরুল কায়সার লিখেছেন, ‘‘দেশের বিভিন্ন জায়গাতে মানা সম্ভব হলেও ঢাকাতে হয়তো সম্ভব হবে না। আগামী ১৫ দিন পর টেস্ট যদি ৪০/৫০ হাজার করা সম্ভব হয় তো রোগী পাওয়া যাবে ৩০/৪০ হাজার পার ডে। আল্লাহ ছাড়া রহমের কেউ নাই।’’

অখতার হুসাইন লিখেছেন, ‘‘আমাদের সরকারকে বুঝা বড়ো মুসকিল যখন প্রতি দিন ৫-৬ জন আক্রান্ত হচ্ছিলো তখন ছিলো পরিপূর্ণ লকডাউন। আর এখন প্রতি দিন ৪০ জনের মৃত্যু হচ্ছে ২৫৫০ আক্রান্ত হচ্ছে এখন সব কিছু খুলে দিচ্ছে। মনে হয় জনগণ কমানোর এই টা সুযোগ। হয়তো আমি মূর্খের মতো কথা বলছি।’’

বশির হোসাইন লিখেছেন, ‘‘বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে কোনো কিছুতেই সঠিক নিয়মনীতি আশা করা যায় না। ইহা আমাদের পারিবারিক, সামাজিক ও জাতীয় প্রধান সমস্যা মনে করি।’’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন