ঢাকা, সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০, ২২ আষাঢ় ১৪২৭, ১৪ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

লাদাখে শনিবার ভারত-চীন সামরিক পর্যায়ের বৈঠক

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩ জুন, ২০২০, ৭:০১ পিএম

বিতর্কিত লাদাখ সীমান্ত নিয়ে সাম্প্রতিক সময়ে উত্তেজনা বিরাজ করছে দুই প্রতিবেশী দেশ ভারত ও চীনের মধ্যে। সেখানে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে দু’দেশের সেনা। তার মধ্যেই আগামী ৬ জুন শনিবার সেনা পর্যায়ের বৈঠকে বসছে ভারত-চীন।

ভারতের পক্ষ থেকেই প্রথমে এই বৈঠকের প্রস্তাব দেয়া হয়েছিল। তাতে সাড়া দিয়েছে চীন। শনিবার সীমান্তের চুশুল মলডো সেনা ছাউনিতে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। ভারতীয় সেনার তরফে নেতৃত্ব দেবেন ১৪ কোরের কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল হরিন্দর সিংহ।

ভারতীয় সেনার একটি সূত্র জানিয়েছে, বৈঠকের আগে আন্তরিকতার বার্তা দিয়েছে চীন। লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় উত্তেজনা কমাতে দু’পক্ষই কিছুটা নমনীয় অবস্থান নিতে পারে বলে মনে করছেন কূটনৈতিক ও সামরিক বিশেষজ্ঞরা। যদিও একটি অংশের মতে, ডোকালামের মতো কয়েক মাস ধরে এই সেনা মোতায়েন এবং তার জেরে উত্তেজনার পরিস্থিতি বজায় থাকতে পারে লাদাখ সীমান্তে।

২০১৭ সালে ডোকালামের পর ভারত-চীনের কোনও সীমান্তে আর এত বড় সেনা সমাবেশ হয়নি। মে মাসের শুরতে দিকে লাদাখে নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর আচমকাই চীনা সেনার তৎপরতা বেড়ে যাওয়ার পর থেকেই নয়াদিল্লি-বেইজিং সম্পর্ক উত্তপ্ত হয়। দু’দফায় হাতাহাতি সঙ্ঘাতের পর গালওয়ান উপত্যকায় প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর বিপুল সেনা মোতায়েন করে চীন। পাল্টা ভারতও সেনা মোতায়েন শুরু করে।

মে মাসের শেষ সপ্তাহের দিকে পরিস্থিতি এতটাই তপ্ত হয়ে ওঠে যে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা-সহ সেনার পদস্থ কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। অন্য দিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পও দু’দেশের মধ্যে মধ্যস্থতা করার প্রস্তাব দেন। যদিও দুই দেশই সেই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে। তার পর ভারত আপোষের প্রস্তাব দেয়ায় চীনও নমনীয় অবস্থান নেয়। শনিবারের এই সেনা পর্যায়ের বৈঠকে উত্তেজনা আরও কমতে পারে বলেই মত পর্যবেক্ষকদের। সূত্র: নিউজ ১৮।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন