ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০, ২৩ আষাঢ় ১৪২৭, ১৫ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

করোনার সঙ্গেই বাঁচতে হবে

টিভি ভাষণে ইমরান খান

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৪ জুন, ২০২০, ১২:০১ এএম

পাকিস্তানে করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। এমন পরিস্থিতিতেও অর্থনৈতিক মন্দা এড়াতে লকডাউনের সব নিষেধাজ্ঞা প্রায় তুলে নিয়েছে পাক সরকার।
সরকারের এই সিদ্ধান্তে দেশটিতে সমালোচনার মাঝেই পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, জনগণকে করোনাভাইরাসের সঙ্গেই বাঁচতে হবে। টেলিভিশনে দেয়া এক ভাষণে ইমরান খান বলেছেন, লকডাউনের কারণে যে আর্থিক ক্ষতি হয়েছে তা অন্যান্য দেশের মতোই তার ভার বহন করতে পারবে না পাকিস্তান।
অকপটেই দেশবাসীর কাছে তিনি স্বীকার করেন, আমরা অসহায়-দুস্থদের আর কতদিন পর্যন্ত অর্থ সহায়তা দিয়ে যেতে পারব? আমাদের যে অবস্থা তাতে জনগণকে এই নগদ অর্থ সহায়তা অব্যাহত রাখা সম্ভব নয়। ইমরান খান বলেন, আমরা দীর্ঘমেয়াদি লকডাউনের পক্ষে নই। এতে ১৫ কোটি পাকিস্তানির দুর্ভোগ বাড়বে। ২৫ লাখ অনিবন্ধিত শ্রমিক বেকার হয়ে পড়বে।

তিনি আরও বলেন, দুর্ভাগ্যজনক হলেও এই লকডাউন পাকিস্তানের নিম্ন আয়ের শ্রেণি-পেশার মানুষদের জন্য খুবই কষ্টদায়ক হয়ে চলেছে। তাছাড়া এই লকডাউন দেশের রফতানি, রাজস্ব খাতে বিরূপ প্রভাব ফেলেছে।
যুক্তরাষ্ট্রের রাজ্যগুলোতে লকডাউনের শিথিলতার দিকে ইঙ্গিত দিয়ে মঙ্গলবার ইমরান খান বলেন, গোটা বিশ্ব এই সিদ্ধান্তে এসে একত্রিত হয়েছে যে, ভ্যাকসিন আবিস্কার না হওয়া পর্যন্ত করোনাভাইরাস থেকে ছাড় পাওয়া সম্ভব নয়। তাই আপনাদেরকে এটা মেনেই নিতে হবে যে, এই ভাইরাসের সঙ্গেই আমাদের জীবন চালিয়ে নিতে হবে।
জনগণকে দায়িত্বশীল আচরণ করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, পাকিস্তানে করোনায় আরও অনেক সংক্রমণ ও মৃত্যুর ঘটনা ঘটবে। তবে মানুষ একটু সতর্ক হয়ে চললে এ ভাইরাসকে এড়িয়ে চলতে পারবেন।
পাকিস্তানে প্রসিদ্ধ গণমাধ্যম ডন অনলাইন জানিয়েছে, এরই মধ্যে দেশটিতে পুনরায় পর্যটন শিল্প খোলার ঘোষণা দিয়েছেন ইমরান খান। বেঁধে দেয়া আইনকানুন মেনে এসব পর্যটন এলাকায় চলাচল করতে হবে বলে জানান তিনি। পর্যটন শিল্প খোলার ঘোষণা দিলেও সিনেমা হল, থিয়েটার ও স্কুল বন্ধই থাকবে বলে জানা গেছে।
আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ারল্ডোমিটারসে দেয়া সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী, পাকিস্তানে এখন পর্যন্ত ৮০ হাজার ৪৬৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এ পর্যন্ত মারা গেছে এক হাজার ৬৮৮ জন। সূত্র : ডন, হিন্দুস্তান টাইমস।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন