ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭ আশ্বিন ১৪২৭, ০৪ সফর ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ভ্যাপসা গরমে ঢাকায় স্বস্তির বৃষ্টি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ জুন, ২০২০, ১২:০০ এএম

রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশেই গতকাল খেলা করেছে রোদ-বৃষ্টি। ভ্যপসা গরমে দিনভর ছিল কখনো রোদ কখনো বৃষ্টি। ভারতের মুম্বাইয়ে আঘাত হানা আরব সাগরে সৃষ্ট ঘ‚র্ণিঝড়ের কারণে যে ভ্যাপসা গরম পড়েছিল, তা কেটে গেছে বৃষ্টিপাতে। একই সঙ্গে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ায় নদীবন্দরে দেয়া হয়েছে দুই নম্বর হুঁশিয়ারি সংকেত। ঢাকায় দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত বৃষ্টি হয়েছে। কালবৈশাখীর প্রভাবে আগের দিন বুধবারও বৃষ্টি হয়েছে। অল্প বিরতি দিয়ে বৃষ্টির পাশাপাশি ছিল হালকা বাতাস। বৃষ্টির কারণে রাজধানীর অনেক এলাকায় পানি জমে যায়। আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, পশ্চিমা লঘুচাপের কারণে দেশে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ বেড়েছে। দু’একদিন পর এই বৃষ্টি আরো বাড়তে পারে।

জানতে চাইলে আবহাওয়াবিদ মো. হাফিজুর রহমান জানান, ওয়েস্টার্ন ডিস্টার্বেন্স তথা পশ্চিম লঘুচাপের কারণে এই বৃষ্টিপাত হচ্ছে। বৃষ্টিপাতের বর্তমান ধারা অব্যাহত থাকবে। ৭ জুন একটু কমবে। এরপর থেকে আরো বাড়বে। ঝড়ো হাওয়া ও কোথাও ভারি কোথাও হালকা বৃষ্টির কারণে রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে পানিবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। ফলে ব্যাহত হয় জনজীবন। পথচারীদের পড়তে হয় দুর্ভোগে। যারা যানবাহনে ছিলেন তাদের অনেককেই ভিজতে হয়। কয়েকটি এলাকায় রাস্তায় হাটু পানিও জমে যাওয়ার দৃশ্য দেখা যায়। দেশের বিভিন্ন স্থানে বজ্রপাতে নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

পূর্বাভাসে আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, ঢাকা ও পার্শ্ববর্তী এলাকার আকাশ আংশিক মেঘলা থেকে অস্থায়ীভাবে মেঘলা থাকতে পারে। অস্থায়ীভাবে ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি/বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। দক্ষিণ/দক্ষিণ-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৮-১২ কিলোমিটার বেগে বাতাস প্রবাহিত হতে পারে। দিনের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকতে পারে। ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ঢাকা, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রাজশাহী, রংপুর, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা/ঝড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ভারীবৃষ্টি হতে পারে। সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

এদিকে পানি উন্নয়ন বোর্ড জানায়, দেশের প্রধান প্রধান নদ-নদীর পানির উচ্চতা বাড়ছে। আগামী ৪৮ ঘণ্টা পানি বাড়ার প্রবণতা অব্যাহত থাকবে। ব্রহ্মপুত্র, যমুনার পানি কিছুটা হ্রাস পেলেও ভারতের আসাম, মেঘালয়, ত্রিপুরা, বরাক উপত্যকা এবং সিকিমের বর্ষণ বাড়লে বাড়বে দেশের অধিকাংশ নদ-নদীর পানি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Sheikh Farid ৫ জুন, ২০২০, ৫:২৯ এএম says : 0
ধন্যবাদ
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন