ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ব্যয় সংকোচন নীতি সত্ত্বেও সামরিক ব্যয় আরো বাড়াচ্ছে সউদী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ জুন, ২০২০, ১:১৮ পিএম

বৈশ্বিক প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের মহামারী এবং তেলের দাম ব্যাপকভাবে কমে যাওয়ার কারণে সউদী আরবের চলতি ২০২০ সালের বাজেটের প্রথম তিন মাসে ৯০০ কোটি ডলারের ঘাটতি পড়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত মাসে রিয়াদ সরকার ঘোষণা করেছে যে, রাষ্ট্রীয় কর্মচারীদের জন্য গৃহায়ন বাবদ ব্যয় সংকোচন করবে। এর পাশাপাশি রাষ্ট্রীয় অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড ঠিক রাখার জন্য ভ্যাট তিনগুণ বাড়ানো হবে।
এসব পদক্ষেপের পরও ফিনান্সিয়াল টাইমস গতকাল রোববার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, কঠোর ব্যয় সংকোচন নীতি গ্রহণ করা সত্ত্বেও সউদী আরব সামরিক ব্যয় আরো অনেক বেশি বাড়াচ্ছে। এরইমধ্যে তারা আমেরিকার অস্ত্র নির্মাতা বড় কোম্পানিগুলোর সঙ্গে চুক্তি করেছে। যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমা দেশগুলোর কাছ থেকে অস্ত্র ও সামরিক সরঞ্জাম কেনা অব্যাহত রাখবে রিয়াদ সরকার।
পশ্চিমা অস্ত্র নির্মাণ শিল্পের একজন নির্বাহী কর্মকর্তা জানান, সউদী আরবের অর্থনৈতিক সংকট সত্বেও তারা অস্ত্র আমদানি খাতে কোনো ব্যয় সংকোচন নীতি গ্রহণ করবে না।
ফিনান্সিয়াল টাইমসের এ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পেন্টাগনের ঠিকাদাররা এরইমধ্যে ২৬০ কোটি ডলারের অস্ত্র রপ্তানির অর্ডার পেয়েছে যার আওতায় সউদী আরব মার্কিন নির্মিত আকাশ থেকে ভূমিতে নিক্ষেপযোগ্য ও জাহাজ বিধ্বংসী ১,০০০ ক্ষেপণাস্ত্র কিনবে।
যুক্তরাষ্ট্রের আরেক অস্ত্র নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান লকহিড মার্টিন জানায়, ব্যয় সংকোচন নীতি সত্ত্বেও সউদী আরব অস্ত্র আমদানি ও সামরিক খাতে কোনো কাটছাট করবে না। পার্সটুডে

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Monjur Rashed ৮ জুন, ২০২০, ৩:২৯ পিএম says : 0
Americans have started sucking the blood of Saudis through long term planning. Consequences will become evident in course of time.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন