ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭ আশ্বিন ১৪২৭, ০৪ সফর ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

রোনালদোর পেনাল্টি মিস, তবুও ফাইনালে জুভেন্টাস

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ জুন, ২০২০, ১২:০০ এএম

১৬তম মিনিটে ভিএআরের সিদ্ধান্তে পাওয়া স্পট-কিক থেকে গোল করতে ব্যর্থ হলেন জুভেন্টাস ফরোয়ার্ড ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ছয় সেকেন্ড পরই আন্তে রেবিচ বিপজ্জনক ফাউল করে লাল কার্ড দেখলে দশ জনের দলে পরিণত হলো এসি মিলান। তিন মাসের বেশি সময় পর ইতালিয়ান ফুটবলের মাঠে ফেরার উপলক্ষ ঘিরে তৈরি হওয়া রোমাঞ্চে ঐ পর্যন্তই! বাকি ৭৪ মিনিট শুধুই যেন চেষ্টার নামে সময়খেপন। মিলল না কাক্সিক্ষত গোলের দেখা।
গতপরশু রাতে কোপা ইতালিয়ার সেমিফাইনালের দ্বিতীয় লেগে ঘরের মাঠে মিলানের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছে জুভেন্টাস। তবে মহামূল্যবান ‘অ্যাওয়ে’ গোলের সুবাদে ১৯তম বারের মতো এই প্রতিযোগিতার ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে ‘ওল্ড লেডি’ খ্যাত তুরিনের দলটি। গত ফেব্রুয়ারির প্রথম লেগে মিলানের পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী রোনালদোর সফল পেনাল্টির কল্যাণে ১-১ গোলে ড্র করেছিল মাওরিসিও সারির দল।
ইতালিতে শেষবার মাঠের ফুটবল দেখা গিয়েছিল গেল ৯ মার্চ। এরপর করোনাভাইরাসের প্রকোপে স্থগিত করা হয় দেশটির সমস্ত ক্রীড়া কার্যক্রম। বৈশ্বিক মহামারিটির আঘাত সামলে ৯৫ দিন পর আবার সরগরম হয়ে উঠেছে দেশটির ফুটবল অঙ্গন। আলিয়াঞ্জ অ্যারেনায় ম্যাচের আগে একসঙ্গে মাঠে না এসে টানেলে দুই দল হাজির হয় আলাদাভাবে। কভিড-১৯-এ আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারানোদের জন্য পালন করা হয় নিরবতা। এই দুঃসময়ে মানুষের সেবা দিয়ে যাওয়া স্বাস্থ্যকর্মীদের তালি দিয়ে অভিনন্দন জানান খেলোয়াড়, কোচসহ সবাই। ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে বদলে যাওয়া পরিস্থিতিতে নিয়ম মেনে খেলা হয়েছে দর্শকশূন্য মাঠে।
দর্শকবিহীন ম্যাচের সময়টা ছিল বড্ড উত্তেজনাহীন। বল দখল ও আক্রমণে এগিয়ে থাকলেও গোলের সুযোগ তেমন একটা তৈরি করতে পারেনি জুভরা। অন্যদিকে, এক জন কম নিয়ে খেলা মিলানের প্রতিজ্ঞা যেন ছিল গোল হজম না করার! নাটকীয়তা যা দেখার, তা দেখা গিয়েছে ম্যাচের শুরুতেই। কর্নার থেকে উড়ে আসা বল নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন পর্তুগিজ তারকা রোনালদো। মিলানের রাইটব্যাক আন্দ্রেয়া তখন একটু দ্বিধায় পড়ে গিয়েছিলেন। বল গিয়ে লাগে তার কনুইতে। স্বাগতিক খেলোয়াড়দের আপিল সত্তে¡ও প্রথমে পেনাল্টি দেননি রেফারি। পরে ভিএআরের সহায়তা নেওয়া হলে পাল্টে যায় সিদ্ধান্ত। তবে হতাশ করেন ৩৫ বছর বয়সী রোনালদো। তার নেওয়া নিচু শট গোলপোস্টে লেগে ফিরে আসে। মিলান গোলরক্ষক জিয়ানলুইজি দোন্নারুম্মাকেও কৃতিত্ব দিতে হবে। সামান্য হলেও বলে গ্লাভস ছোঁয়াতে পেরেছিলেন তিনি। ২০১৮ সালে যোগ দেওয়ার পর এই নিয়ে দ্বিতীয়বারে মতো জুভেন্টাসের জার্সিতে পেনাল্টি থেকে গোল করতে পারেননি রোনালদো। গেল বছর জানুয়ারিতে শিয়েভোর বিপক্ষে ব্যর্থ হয়েছিলেন তিনি।
উল্লাস করার সুযোগ অবশ্য পায়নি অতিথিরা। মুহূর্তের মধ্যে সরাসরি লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয় ক্রোয়েশিয়ান ফরোয়ার্ড রেবিচকে। বল দখল করতে গিয়ে জুভেন্টাসের রাইটব্যাক দানিলোর বুকে যে লাথি মেরে বসেছিলেন তিনি! নিষেধাজ্ঞার কারণে এ ম্যাচে খেলতে পারেননি সুইডেনের স্ট্রাইকার জ্বাতান ইব্রাহিমোভিচ। আক্রমণভাগে তার অভাব হাড়ে হাড়ে টের পেয়েছে মিলান।
করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়ে ওঠা পাওলো দিবালা ও ব্লেইস মাতুইদিকে ম্যাচের শুরু থেকে খেলিয়েছেন কোচ সারি। তারা কোচের আস্থার প্রতিদান দিয়েছেন। গোল করার সুযোগও পেয়েছিলেন ফরাসি মিডফিল্ডার মাতুইদি ও আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড দিবালা। তবে দোন্নারুম্মাকে ফাঁকি দেওয়া হয়নি তাদের।
আগামী ১৭ জুন (বুধবার) রাতে রোমের অলিম্পিক স্টেডিয়ামে শিরোপা লড়াইয়ে প্রতিযোগিতার ১৩বারের চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাস মুখোমুখি হবে নাপোলি বা ইন্টার মিলানের। এই দুই দল আরেক সেমিফাইনালে মাঠে নেমেছে গতকাল রাতেই। নাপোলির মাঠে খেলা শুরু হয় বাংলাদেশ সময় রাত ১টায়। প্রথম লেগে ১-০ ব্যবধানে জিতে সমীকরণে কিছুটা এগিয়ে আছে দলটি।
গত ৯ মার্চ থেকে স্থগিত থাকা ইতালির শীর্ষ লিগ সেরি আ পুনরায় শুরু হবে ২০ জুন। ২৬ ম্যাচে ৬৩ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে থাকা জুভেন্টাসের চেয়ে ২৭ পয়েন্ট পিছিয়ে আছে মিলান। লিগের বাকি ১২ রাউন্ডের খেলা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন