ঢাকা, বুধবার, ০৫ আগস্ট ২০২০, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

প্রবাস জীবন

যুক্তরাষ্ট্রের জরজিয়া স্টেট সিনেট ডেমোক্র্যাটিক প্রাইমারীতে বাংলাদেশী শেখ রহমান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় পুনর্নির্বাচিত

যুক্তরাষ্ট্র সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৭ জুন, ২০২০, ১২:৩৭ পিএম

যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া স্টেট সিনেটে ডেমোক্র্যাটিক প্রাইমারীতে বাংলাদেশী-আমেরিকান শেখ রহমান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় পুনর্নির্বাচিত হয়েছেন। গত ৯ জুন মঙ্গলবার জর্জিয়ার ডিস্ট্রিক্ট-৫ আসন থেকে স্টেট সিনেটর প্রার্থী হিসেবে ডেমোক্র্যাট শেখ রহমান চন্দন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় পুনর্নির্বাচিত হন।

বাংলাদেশের কিশোরগঞ্জ জেলার বাজিপুরের শরারচর গ্রামের সন্তান শেখ রহমান চন্দন (৬০) ডেমোক্র্যাটিক পার্টির ন্যাশনাল কমিটির অন্যতম সদস্য এবং অ্যাসাল’র আজীবন সদস্য ও ন্যাশনাল কমিটির অন্যতম উপদেষ্টা।

আগামী ৩ নভেম্বর অনুষ্ঠেয় চূড়ান্ত নির্বাচনে জর্জিয়ার নরক্রস, লিলবার্ন ও লরেন্সভিল সিটি নিয়ে গঠিত ডেমোক্র্যাটিক এ আসনে অনেকটা নিয়ম রক্ষার নির্বাচনে হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। মূল নির্বাচনে ওই আসনে রিপাবলিকান পার্টির কোন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে না বলে জানা গেছে। ফলে মূল নির্বাচনেও তিনি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় পুনর্নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। শুধুমাত্র ওইদিনটি অতিবাহিত হলেই দ্বিতীয় টার্মের সিনেটর হিসেবে শপথ নেবেন শেখ রহমান।
উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের নির্বাচনেও বিপুল ভোটের ব্যবধানে দু’বছর টার্মের স্টেট সিনেটর নির্বাচিত হয়েছিলেন শেখ রহমান। জর্জিয়া স্টেট সিনেটর হিসেবে তিনিই প্রথম মুসলমান।
আরো উল্লেখ্য যে, শেখ রহমানের সিনেট ডিস্ট্রিক্টে লোক সংখ্যা প্রায় দু’লাখ। এরমধ্যে ৩৭% হিসপ্যানিক, ৩৩% কৃষ্ণাঙ্গ, ২২% শ্বেতাঙ্গ এবং ১২% এশিয়ান। এশিয়ানের মধ্যে বাংলাদেশিসহ বিভিন্ন দেশের মুসলমান মাত্র দেড় হাজার।


বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় পুনর্নির্বাচিত সিনেটর শেখ রহমান এক প্রতিক্রিয়ায় বলেন, আটলান্টা সিটির গুনেট কাউন্টিতে ৩৪ বছরেরও অধিক সময় যাবত বাস করছি। সব সময়ই ধর্ম-বর্ণ-গোত্র-ভাষা নির্বিশেষে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছি। কমিউনিটিভিত্তিক সমস্যা নিয়ে সকলকে সঙ্গে নিয়ে আন্দোলন করেছি। তারই সুফল এ বিজয়।
জর্জিয়া স্টেট সিনেটর হিসেবে শেখ রহমান কৃষি এবং কঞ্জ্যুমার এফেয়ার্স কমিটি, গভর্নমেন্ট ওভারসাইট কমিটি, আরবাণ এফেয়ার্স কমিটি এবং স্টেট ইন্সটিট্উিশন এ্যান্ড প্রপার্টি কমিটিতে কাজ করছেন।

এছাড়া তিনি জর্জিয়া স্টেট ডেমোক্র্যাটিক পার্টির নির্বাচিত কর্মকর্তা হিসেবে দু’বছর যাবত ডেমোক্র্যাটিক পার্টি ন্যাশনাল কমিটি (ডিএনসি) তে কাজ করছেন। ডিএনসিতে তিনিই প্রথম বাংলাদেশী এবং মুসলমান হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন। আগামী ২৭ জুন শনিবার অনুষ্ঠেয় ডিএনসি’র পুননির্বাচনেও আবার লড়ছেন শেখ রহমান।
ডেমোক্র্যাটিক পার্টির সংগঠক এবং অ্যাসাল জর্জিয়া চ্যাপ্টারের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আলী হোসেন বলেন, বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশী-আমেরিকানদের মধ্যে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি হিসেবে শেখ রহমান সর্বোচ্চ আসনে দায়িত্বরত। তার পুন:বিজয়ে অভিনন্দন। চুড়ান্ত নির্বাচনে তার বিজয়ী হওয়া এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র।
এদিকে, অ্যাসাল’র ন্যাশনাল প্রেসিডেন্ট মাফ মিসবাহ উদ্দিন এবং সেক্রেটারী করিম চৌধুরী এক বার্তায় শেখ রহমান চন্দনের এ বিস্ময়কর বিজয়ে অভিনন্দন জানিয়েছেন। তারা বলেন, অ্যাসাল’র আজীবন সদস্য ও ন্যাশনাল কমিটির অন্যতম উপদেষ্টা শেখ রহমানের এ ঐতিহাসিক সাফল্যে আমরা গর্বিত।
ডেমোক্র্যাটিক পার্টির সংগঠক আলী হোসেন বোর্ড অব ইলেকশনকে উদ্ধৃত করে আরো জানান, গত ৯ জুনের ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রাইমারিতে জর্জিয়াস্থ কংগ্রেসনাল ডিস্ট্রিক্ট-৭ থেকে অংশ নেয়া নাবিলা ইসলাম-১৩% এবং রশিদ মালিক-১০% ভোট পেয়ে পরাজিত হয়েছেন। এছাড়া স্টেট সিনেটে ডিস্ট্রিক্ট-৪১ থেকে জাহাঙ্গির হোসেন ১৯% ভোট এবং ডিস্ট্রিক্ট-৪৮ থেকে জসিম উদ্দিন ২২% ভোট পেয়ে হেরেছেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
kamrul islam ১৭ জুন, ২০২০, ১:০১ পিএম says : 0
শেখ রহমানের এ ঐতিহাসিক সাফল্যে আমরা গর্বিত। so many thanks .
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন