ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭ আশ্বিন ১৪২৭, ০৪ সফর ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ভারতের প্রতিশোধের হুমকিতে সামরিক শক্তি প্রদর্শন চীনের

গলওয়ানে ফের বৈঠক

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ জুন, ২০২০, ৮:০৪ পিএম

লাদাখের কাছে তিব্বতি মালভ‚মিতে চীনের সামরিক মহড়া। চীনা রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে প্রকাশিত ভিডিও ফুটেজ থেকে নেয়া চিত্র -সংগৃহীত


সোমবার রাতে চীনের সাথে সংঘর্ষে ২৩ ভারতীয় সেনা নিহত হওয়ার পর, দুই দেশের মধ্যে কয়েক দশক ধরে চলে আসা সীমান্ত বিতর্ক সর্বাত্মক যুদ্ধে পরিণত হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। এর মধ্যেই, ভারত প্রতিশোধ নেয়ার হুমকি দিয়েছে। জবাবে, চীনও সীমান্তের কাছে তিব্বত মালভ‚মিতে মিলিটারি ড্রিলের ফুটেজ প্রকাশ করে শক্তি প্রদর্শন করেছে। উত্তেজনা প্রশমনে গতকালও গলওয়ান উপত্যকায় দুই দেশের মধ্যে সামরিক বৈঠক হলেও কোনও সমাধান আসেনি।

গালওয়ান নদী উপত্যকার সংঘর্ষস্থল থেকে প্রায় ৬০০ মাইল দূরে একটি উচ্চতার এলাকায় মহড়ায় অংশ নেয়া আর্টিলারি এবং ট্যাঙ্কগুলোর ফুটেজ সম্প্রচার করে চীনা রাষ্ট্রীয় টিভি। ভিডিওতে দেখা যায়, চীনের বিশাল বাহিনী পুরো এলাকা ঢেকে ফেলেছে। তাদের পেছনে হিমালয়ের দৃশ্য দেখা যায়। আর্টিলারি এবং ট্যাঙ্কের পাশাপাশি, পিপলস লিবারেশন আর্মির ৭ হাজার সেনাও মহড়ায় অংশ নেয়। এর ফলে, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় চীনের সামরিক বাহিনীর দৃঢ় ও সুবিধাজনক অবস্থান ফুটে উঠেছে। ভারতকে সতর্ক করতেই সীমান্তে দূর্গম এলাকায় চীন তাদের শক্তি ও সক্ষমতা প্রদর্শন করেছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।
এদিকে, সোমবার রাতে সংঘর্ষের পরেই সেনা সরানো নিয়ে মঙ্গলবার গলওয়ান উপত্যকায় বৈঠকে বসেছিল ভারত-চীন। কিন্তু তাতে কোন সমাধান হয়নি। গতকাল সেখানে আবারও সেনাবাহিনীর মেজর জেনারেল পর্যায়ের বৈঠকে বসল দুই দেশ। গলওয়ানে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার কাছে যে জায়গায় দু’দেশের সেনার সংঘর্ষ হয়েছিল, সেই এলাকাতেই বৈঠক চলছে বলে সেনা সূত্রে জানা গেছে। তবে উত্তেজনা প্রশমন করতে ও সেনা সরাতে কোন পক্ষই ঐক্যমতে আসতে পারেনি বলে সূত্র জানিয়েছে। সোমবার সংঘর্ষের আগে থেকেই দু’দেশের মধ্যে সামরিক পর্যায়ের আলোচনা চলছিল। সোমবার সংঘর্ষের দিনও একপ্রস্থ আলোচনা হয়েছিল। কিন্তু তার পর সংঘর্ষের জেরে প্রাথমিক ভাবে আলোচনা স্থগিত হয়ে গিয়েছিল। তবে বুধবার দুপুরের পর কিছুটা জট খোলে। বিকালের দিকে আলোচনায় বসেন দু’পক্ষের মেজর জেনারেল পর্যায়ের সেনা অফিসাররা। কিন্তু বুধবার কোনও সমাধান হয়নি।
এর পর গতকাল সকালে আবারও বৈঠকে বসে দুই দেশ। ভারতের দাবি, ভারতের দিকে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার কয়েক কিলোমিটার ভিতরে ঢুকে পড়েছে চীনের সেনা। সেই সেনাবাহিনী সরিয়ে নেয়ার জন্যই দু’পক্ষের মধ্যে দর কষাকষি চলছে বলে সেনা সূত্রে খবর মিলেছে। গলওয়ানের পরিস্থিতি নিয়ে বুধবার চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই-র সঙ্গে কথা বলেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। চীনের এই আগ্রাসন পূর্ব পরিকল্পিত বলে ওয়াং ই-কে অভিযোগ জানিয়েছেন তিনি। কিন্তু তার পরেও এখন অবধি উত্তেজনা প্রশমনেরে বিষয়ে কোন সিদ্ধান্তে আসতে পারেনি কোন পক্ষ। সূত্র : দ্য সান, হিন্দুস্থান টাইমস।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (14)
ash ১৮ জুন, ২০২০, ৮:২৭ পিএম says : 0
THIS IS THE CHANCE FOR CHINA & PAKISTAN ! MAKE INDIA 100 PICESSSSS
Total Reply(0)
A. B. Asad ১৮ জুন, ২০২০, ৯:২০ পিএম says : 0
চিন নেপাল পাকিস্তানের প্রতি অনুরোধ ভারতকে মাইরের উপর রাখুন মাইরের উপর কোনো ঔষুধ নেই, তবে একসাথে সবাই মারবেননা,একটু বিরতি নিয়ে একজন একজন করে মাইর দিবেন, কারণ সবাই একসাথে মাইর দিলে আমাদের সমস্যা হবে এমনিতে আমরা রোহিঙ্গা শরণার্থী নিয়ে ঝামেলায় আছি,
Total Reply(0)
Sheikh Sumon II ১৮ জুন, ২০২০, ৯:২৩ পিএম says : 0
ভারতের উচিৎ যুদ্ধের জন্য প্রস্তুতি নেওয়া, না হলে চীনের সৈন্যরা ভারতের ভিতর ডুকে অনেক এলাকা তাদের দখলে নিয়ে যাবে, তাই বলি জয় শ্রীরাম বলে তোমরা যুদ্ধের ময়দানে নেমে যাও,দাদারা মুভিতে আপনাদের দক্ষতা অনেক দেখেছি এখন সময় বাস্তবে রূপ দিন,আমরা অপেক্ষায় আছি দখলকৃত এলাকা কিভাবে ফিরিয়ে আনেন ওটা দেখার জন্য যেমনটি মুভিতে দেখিয়েছেন।
Total Reply(0)
সাইফুল ইসলাম ১৮ জুন, ২০২০, ৯:২৫ পিএম says : 0
কোথায় গেল মোদির সার্জিকেট স্ট্রাইক। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে এক সার্জিকেল স্ট্রাইকের নাটক সাজিয়ে ধরা খেয়েছিল। এখন এজন্য আর নামও নিচ্ছে না। ভারত পারলে এবার প্রতিশোধ নিয়ে দেখাক দেখি। কিছু করলেই ধুতি থাকবে না।
Total Reply(0)
মুক্তিকামী জনতা ১৮ জুন, ২০২০, ৯:২৭ পিএম says : 0
ভারতের লজ্জা থাকলে তো সঙ্গে সঙ্গে কিছু করে দেখাতো। সীমান্তের ৬০ কিলোমিটারের ভেতরে ঢুকে চীনা ষৈন্যরা তাদের ২০জন সেনাকে লাঠিপেটা করে মেরে গেল এখনও কিছুই করতে পারলো না। আবার বড় গলায় কথা বলে। এটা বাংলাদেশ সীমান্ত না, উলটা পালটা কিছু করলেই ধুতি নিয়ে টানাটানি করতে হবে।
Total Reply(0)
Muhammad Shahadat Hossain ১৮ জুন, ২০২০, ৯:২৯ পিএম says : 0
চীন হয়তো একদিনে বিশ জন মেরেছে তাতে এতো শোরগোল, তবে আমি এটা স্বাভাবিক মনে করি। কারণ যুদ্ধক্ষেত্রে এটা হতে পারে। ভারত প্রতি সপ্তাহে বিশজন নিরীহ বাংলাদেশি হত্যা করে।
Total Reply(0)
Surjo RAj ১৮ জুন, ২০২০, ৯:৩০ পিএম says : 0
চীন যে আগেই ভারতে ঢুকে দখল করে রেখেছিল, ভারতের প্রধানমন্ত্রী আর মিডিয়া সব লুকিয়েছিল ,এভাবেই বোকা বানানো হয় তাদের গরীব মানুষদের
Total Reply(0)
Zillur Rahaman ১৮ জুন, ২০২০, ১০:৩১ পিএম says : 0
অস্ত্র ছাড়া ধুতি পড়ে যুদ্ধ করতে গেলে যা হয়, তাছাড়া ঐসব এলাকার তীব্র বাতাসে ধুতির কী হতে পারে, তা সহজেই অনুমেয়! চীনা সৈন্যরা সেই সুযোগটাই কাজে লাগিয়েছে। খালি গায়ের লড়াই!
Total Reply(0)
Golam Faruque ১৮ জুন, ২০২০, ১০:২২ পিএম says : 0
আমার মনেহয় এখন যুদ্ধ করার মত অবস্থান ভারতের নেই। তাই সমঝোতাই একমাত্র পথ। পাকিস্তানের বিরুদ্ধে মিথ্যা সার্জিকেল স্ট্রাইকের নাটক করে যে ধরা খাইছলো আর সেই পথে যাবে না।
Total Reply(0)
সত্য বলবো ১৮ জুন, ২০২০, ১০:২৩ পিএম says : 0
পাকিস্তানের দুর্গম অঞ্চলে ভেতরে ঢুকে কিছু গাছপালা ধ্বংস করে সার্জিকেল স্ট্রাইকের দাবি করেছিল মিথ্যাবাদী ভারত। আর মনে হয় না এই ধরনের সাহস দেখাতে গিয়ে হাস্যরসের পাত্রে পরিণত হবে।
Total Reply(0)
Moni Rahman ১৮ জুন, ২০২০, ১০:২৪ পিএম says : 0
দিন দিন ভারত যেভাবে আগ্রাসী হচ্ছিল তার জন্য এরকম থেরাপি দরকার ছিল।
Total Reply(0)
Farjana Mukta ১৮ জুন, ২০২০, ১০:৩২ পিএম says : 0
শীঘ্রই আসছে হিন্দি মুভি ' মিশন লাদাখ - দ্য আনটোল্ড স্টোরি '। মুভিতে দেখা যাবে ভারতীয় ১০০ জন সেনা পুরো চীন দখন করে ফেলেছে
Total Reply(0)
Russell Bond ১৮ জুন, ২০২০, ১০:৩৩ পিএম says : 0
চীনর্ ভারতের ৬০ কিলোমিটার ভেতরে ঢুকে যে মাইর দিছে ভারত অার যা বুঝুক অন্তত এটা বুঝছে যে বাঘ এই বৈরী পরিবেশেও থাকে। মুভি বানিয়ে যুদ্ধে জেতার অভিনয় সবাইকে দেখানো যায় বাস্তবতা সম্পূর্ণ বিপরীত।
Total Reply(0)
Md Sohedul Islam ১৮ জুন, ২০২০, ১০:৩৫ পিএম says : 0
ভারতকে বুঝিয়ে দিক, বাপের উপরে বাপ আছে, বাংলাদেশে অসহায় তাই কিছু বলতে পারেনা
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন