ঢাকা শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ আশ্বিন ১৪২৭, ০৮ সফর ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

সিরাজগঞ্জে আ.লীগ দু’গ্রুপে সংঘর্ষ

সিরাজগঞ্জ থেকে সৈয়দ শামীম শিরাজী : | প্রকাশের সময় : ১৯ জুন, ২০২০, ১২:০১ এএম

সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ ও গাড়ি ভাঙচুরের ঘটনায় পাল্টাপাল্টি মামলা দায়ের হয়েছে। এ ঘটনার ১২ দিন পর দায়ের করা মামলায় সাবেক মন্ত্রী, ইউপি চেয়ারম্যান ও যুবলীগের আহবায়কসহ প্রায় ২৭০ জনকে আসামি করা হয়েছে।
গত বুধবার বেলকুচি উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক ফারুক সরকার বাদী হয়ে একটি এবং দৌলতপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সাবেক মন্ত্রীর ছেলে চেয়ারম্যান আশিকুর লাজুক বিশ্বাস বাদী হয়ে অপর মামলাটি দায়ের করেন।
বেলকুচি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম জানান, ফারুক সরকার বাদী হয়ে দায়ের করা মামলায় সাবেকমন্ত্রী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ বিশ্বাস, তার ছেলে দৌলতপুর ইউপি চেয়ারম্যান আশিকুর লাজুক বিশ্বাস, ভাতিজা নান্নু বিশ্বাস ও পৌর কাউন্সিলর যুবদল নেতা আলম প্রমাণিকসহ ৬৬ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাত ১২০-১৪০ জনকে আসামি করা হয়েছে।
অপরদিকে, আশিকুর রহমান লাজুক বিশ্বাস বাদী হয়ে দায়ের করা মামলায় উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক সাজ্জাদুল হক রেজা, পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আরমান হোসেন ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি রিয়াদ আহম্মেদসহ ২৮ জনের নাম উল্লেখ এবং ৫০-৬০ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়েছে। ওসি আরও বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পরপরই মামলা দায়ের করা হয়েছে। এসব মামলার তদন্ত ও আসামিদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বেলকুচির ভাঙাবাড়ি ইউনিয়নের জোকনালা গ্রামের একটি পরিত্যক্ত পুকুর নিয়ে দ্বনে্দ্বর জের ধরে গত ৬ জুন শালিসি বৈঠক ডাকা হয়। ওই শালিসে উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক সাজ্জাদুল হক রেজার নেতৃত্বে শতাধিক লোকজন উপস্থিত হন। শালিস বিলম্বে শুরু হওয়ায় তারা প্রায় অর্ধশত মোটরসাইকেল ও মাইক্রোবাস নিয়ে চলে যান।
অপরদিকে, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক মন্ত্রী আব্দুল লতিফ বিশ্বাসের নেতৃত্বে শতাধিক লোকজন শালিসে আসছিলেন। আসার পথে সগুণা এলাকায় দু’পক্ষ মুখোমুখি হলে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষ হয়। এতে লতিফ বিশ্বাস গ্রুপের নেতা উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক কামাল আহমেদ গুলিবিদ্ধ এবং তার পেটে ক্ষুর দিয়ে জখম করা হয়। পাশাপাশি আরও বেশ কয়েকজন আহত হন। অপরপক্ষে, যুবলীগ নেতা রেজা গ্রুপের নাজমুলসহ বেশ কয়েকজন আহত হন। এ সংঘর্ষের সময় অন্তত ৪০টি মোটরসাইকেল, একটি মাইক্রোবাস ও ট্রাক ভাঙচুর করা হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন