ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭, ২০ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

১৮ ঘন্টা পর রিলিফ প্রধান প্রেট্রেশিয়া পানি পান করিয়ে অনশন ভাঙ্গালো করোনা রোগী এড. ওসমানীর

কক্সবাজার ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৬ জুলাই, ২০২০, ৩:৩২ পিএম

দীর্ঘ ১৮ ঘন্টা পর রিলিফ আইএনজিও'র কক্সবাজার অফিস প্রধান মিস প্রেট্রেশিয়া শারী আইসোলেশন সেন্টারের ডি-২ নম্বর বেডে নিজে স্বশরীরে গিয়ে পানি পান করিয়ে এডভোকেট মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী'র অনশন ভাঙ্গিয়েছেন।

সোমবার ৬ জুন বেলা ১ টার দিকে রিলিফ আইএনজিও'র
চরম অব্যবস্থাপনা, মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ দেওয়া, ভুল ওষুধ দিয়ে ফাইল গায়েব করা ও রোগীদের প্রতি দুর্ব্যবহারের শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেওয়া হয়।

সূত্রমতে রিলিফ এর কক্সবাজার অফিস প্রধান মিস প্রেট্রেশিয়া চরম অনিয়ম দেখে আইটিসি-তে চরম অনিয়ম দেখে রীতিমতো বিস্মিত হয়ে যান।

কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন, এডিএম মোহাঃ শাজাহান আলি, উখিয়ার ইউএনও মোঃ নিকারুজ্জামান, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডভোকেট আজম মঈন উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জিয়া উদ্দিন আহমদ সহ বিভিন্ন জনের অনুরোধে এডভোকেট মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী অনশন ভাঙ্গেন।

এসময় রিলিফের এর সমন্বয়কারী মাসুদ সহ অন্যান্য উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, চিকিৎসকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। নিজ বেডে অনশনরত অবস্থায় মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী দীর্ঘ ১৮ ঘন্টা নাখেয়ে, ওষুধ পত্র সেবন করেননি। তিনি একজন কোভিড-১৯ রোগী হওয়ায় সংকটাপন্ন অবস্থায় পড়ে যান।

সিনিয়র আইনজীবী ও গণমাধ্যমকর্মী এডভোকেট মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী করোনা ভাইরাস 'পজেটিভ' হয়ে গত ২৮ জুন থেকে সেখানে ভর্তি হন। রোগীদের সাথে ঔদ্ধত্য দেখানো 'মাস্তান সাজু' কে অপসারণ, ভুল চিকিৎসা দিয়ে ফাইল গায়েব করা সহ গুরতর অভিযোগ গুলোর বিষয়ে ডিপার্টমেন্টাল তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে ।

প্রসঙ্গত, কোটি টাকা ব্যয় করে উখিয়া উপজেলার টিএন্ডটি মাঠের দক্ষিণ প্রান্তে জাতিসংঘের অংগ প্রতিষ্ঠান ইউএনএইচসিআর-উখিয়া SARI আইসোলেশন এন্ড ট্রিটমেন্ট সেন্টার টি কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের অনুরোধে দ্রুততম সময়ে নির্মাণ করে।

গত ২১ মে হাসপাতালটি জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন উদ্বোধন করেন। ২৭ মে থেকে সেখানে কোভিড-১৯ রোগীদের ভর্তি দেওয়া শুরু হয়। রিলিফ নামক এক আইএনজিও উখিয়া SARI আইসোলেশন এন্ড ট্রিটমেন্ট সেন্টার টি পরিচালনা করার দায়িত্ব দায়িত্বে আছেন।

রিলিফ নামক এ এনজিওটি চীনের তৈরী মেয়াদোত্তীর্ণ কিছু ওষুধের নাম, কোম্পানি, তারিখ, মেয়াদ কেটে ফেলে জোর করে রোগীদের অন্ধকারে রেখে ওষুধ গুলো খাওয়াচ্ছেন। যেমন- চীনে ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাসের তৈরি ORS (খাওয়ার স্যালাইন) কৌশলে রোগীদের খাওয়াচ্ছেন।

কোন রোগী ওষুধের নাম, কোম্পানির নাম, ওষুধের মেয়াদের বিষয় জানতে চাইলে সেসব রোগীদের উপর ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ করে বলে অভিযোগ উঠে, রিলিফ নামক এনজিও টির লোকজনের বিরুদ্ধে।

জানা গেছে, বিশিষ্ট গণমাধ্যমকর্মী মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী'কে নিয়মিত প্রদত্ত সেফিরক্সিম ১ গ্রাম নামক ৪ জুন সকাল সাড়ে টার একটি ইনজেকশন চিকিৎসক, নার্সেরা অবহেলা করে তাঁকে দেননি। ফলে তাঁর রোগ বেড়ে যেতে থাকে। এতে তিনি ৫ জুলাই তার সিটেই অনশন শুরু করেন।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন