ঢাকা মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৫ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

প্রিডেটর-বি ড্রোন কেনার প্রস্তুতি ভারতের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৭ জুলাই, ২০২০, ১২:০১ এএম

পূর্ব লাদাখে চীনের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই আমেরিকার কাছ থেকে মিসাইল ও গাইডেড বোমা বহনে সক্ষম অত্যাধুনিক প্রিডেটর-বি ড্রোন কেনার প্রস্তুতি নিচ্ছে ভারত। চীন পাকিস্তানকে চারটি সশস্ত্র ড্রোন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরই পাল্টা এই পদক্ষেপ নিয়েছে নয়াদিল্লি। বর্তমান পরিস্থিতিতে যা অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। ভারত যে ধরনের প্রিডেটর-বি ড্রোন ভারত কেনার কথা ভাবছে, সেগুলো মিসাইল এবং লেজার গাইডেড বোমা দিয়ে শত্রু শিবিরের উপরে আক্রমণ হানতে সক্ষম। শুধু তাই নয়, নজরদারির মাধ্যমে শত্রু পক্ষের গতিবিধির উপরে লক্ষ্য রেখে নির্ভুল নিশানায় হামলা চালাতেও এর জুড়ি মেলা ভার। নজরদারির জন্য আমেরিকার থেকে গোয়েন্দা ড্রোন কেনার কথাবার্তা চালাচ্ছিল ভারতীয় নৌবাহিনী। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে নজরদারির পাশাপাশি হামলা চালাতে সক্ষম ড্রোন কেনাই বেশি কার্যকরী হবে বলে মনে করা হচ্ছে। ইরাক, আফগানিস্তান এবং সিরিয়ায় এই ধরনের মেল আর্মড প্রিডেটর-বি ড্রোন ব্যবহার করেছে আমেরিকা। এই ড্রোনগুলো একসঙ্গে চারটি হেল-ফায়ার মিসাইল এবং ৫০০ পাউন্ড লেজার গাইডেড বোমা বহনে সক্ষম। ভারত নিজেই এই ধরনের অ্যাটাক ড্রোন তৈরি করার চেষ্টা করছে। কিন্তু চীন পাকিস্তানকে চারটি ড্রোন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরই দ্রুত আমেরিকার থেকে এই ধরনের ড্রোন কিনতে তৎপর হয়েছে ভারত। গদার বন্দরে চীন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডরের নিরাপত্তার জন্য এই ড্রোনগুলি চীন পাকিস্তানকে দিচ্ছে বলে জানা গেছে। এর পাশাপাশি পাকিস্তানি বিমান বাহিনীকে দেওয়ার জন্য জিজে-২ ড্রোন তৈরি করছে চীন, যা উইং লং-২ ড্রোনের মিলিটারি ভার্সন। উইং লং-২ ড্রোন চীনে বাণিজ্যিক ভাবেই বিক্রি করা হয়। এশিয়ার বিভিন্ন দেশকে চীন তা বিক্রিও করেছে। তার মধ্যে রয়েছে সউদী আরব, কাজাখস্তান, সংযুক্ত আরব আমিরাত, তুর্কমেনিস্তানের মতো দেশ। নিউজ ১৮।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন