ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট ২০২০, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ২২ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

১২ হাজার মানুষের যাতায়াতে ভোগান্তি

সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ৭ জুলাই, ২০২০, ১২:০০ এএম

মুন্সীঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার বাসাইল ইউনিয়নের ৮ গ্রামের প্রায় ১২ হাজার মানুষের যাতায়াতে ভোগান্তির শেষ নেই। কানার বাজার থেকে পাথরঘাটা পর্যন্ত প্রায় ২ কিলোমিটার কাঁচা মাটির রাস্তায় সামান্য বৃষ্টি হলেই চলাচলে অযোগ্য হয়ে পড়ে রাস্তাটি। কাঁচা ও সরু রাস্তাটি বৃষ্টির কারণে কাদা ও পিচ্ছিল হওয়ায় যাতায়াতে ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে হাজারো মানুষের। 

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, গুয়াখোলা বাঘবাড়ি, আগলাপাড়া, দক্ষিণপাড়া, মোল্লাবাড়ি, কিয়াবাড়ি, দেওয়ানপাড়া, গোয়ালপাড়া, পশ্চিমপাড়া মানুষের চলাচলের এ রাস্তাটি একেবারেই নাজুক অবস্থা। এমনকি কৃষকদের ফসল ভালো হলেও ন্যায্য মূল্য পাচ্ছে না রাস্তাটির কারণে। একই অবস্থা মৎস্য চাষিদের। রাস্তাটিতে ছোট-বড় অসংখ্য গর্তে বৃষ্টির পানি জমাট ও কাদা মাটির কারণে রোগীদেরকেও সঠিক সময়ে নেয়া যাচ্ছে না হাসপাতালে।
সালাউদ্দিন আহমেদ বলেন, এ রাস্তাটির কারণে স্কুল, কলেজ ও মাদরাসার শিক্ষার্থীদের চরম ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে। কাদা মাটির এ রাস্তাটি দিয়ে মাহিন্দ্রা চলার কারণে রাস্তাটি আরও খারাপ হয়ে যাচ্ছে। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম বলেন, আমার নির্বাচনী এলাকার এই রাস্তার মতো খারাপ রাস্তা আর নেই। আমি একাধিকবার উপজেলা মিটিংয়ে এ রাস্তার কথা বলেছি। তবে আমাকে আশ্বাস দিয়েছে অতি শিগগিরই এ রাস্তা করে দেবে।
উপজেলা প্রকৌশলী শোয়াইব বিন আজাদ বলেন, এ রাস্তাটা আমি নিজে গিয়েও পরিদর্শন করে এসেছি। বাসাইল ইউনিয়নে যে বড় ব্রিজটি কাজ চলছে তা হয়ে গেলেই এই রাস্তার কাজ অতি দ্রুত হয়ে যাবে। আমরা ইতোমধ্যে এই রাস্তার জন্য প্রস্তাব পাঠিয়েছি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন