ঢাকা, শনিবার, ১৫ আগস্ট ২০২০, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ইন্দুরকানীতে ১২টি কমিউনিটি ক্লিনিকের ল্যাপটপ নস্ট এক বছর যাবত

অনলাইন রিপোর্টিংয়ে ভোগান্তি সিএইচসিপিদের

ইন্দুরকানী (পিরোজপুর) জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৭ জুলাই, ২০২০, ৩:৫৫ পিএম

পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলার ১২টি কমিউনিটি ক্লিনিকের ল্যাপটপ এক বছর যাবত নস্ট রয়েছে। আর এ জন্য ল্যাপটপে সিসি গুলোর স্বাস্থ্য সেবার তথ্য সংরক্ষণ এবং অনলাইনে নিয়মিত রিপোর্টিং করতে না পারায় ভোগান্তিতে রয়েছে কমিউনিটি ক্লিনিকে কর্মরত সিএইচসিপিরা।
জানা যায়, ২০০৯ সালে বর্তমান আ.লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর দীর্ঘ দিন বন্ধ থাকা কমিউনিটি ক্লিনিক গুলো পুন:রুজ্জীবিত করতে ২০১১ সালের শেষের দিকে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর স্বাস্থ্য সেবার জন্য এসব কমিউনিটি ক্লিনিক গুলোতে আগত রোগীদের জন্য ২৯ ধরনের ফ্রি ঔষধ প্রদান করা সহ একজন করে কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার (সিএইচসিপি) নিয়োগ দেন। এরপর পর্যায়ক্রমে স্বাস্থ্য বান্ধব সরকার কমিউনিটি ক্লিনিকের সেবা কার্যক্রম ডিজিটালাইজেশন করতে অনলাইনে নিয়মিত রিপোর্টিং এর জন্য কমিউনিটি ক্লিনিক প্রকল্প এর আওতায় এদের হাতে সিবিএইচসি কার্যালয় থেকে ইন্টারনেট সংযোগ সহ একটি করে ল্যাপটপ প্রদান করেন। কিন্তু এ উপজেলার বর্তমানে চালুকৃত ১২টি কমিউনিটি ক্লিনিকের সব গুলোতেই গত এক বছর যাবত ব্যবহারকৃত ল্যাপটপ গুলো নস্ট রয়েছে। অকেজো হওয়ায় এসব ল্যাপটপ গুলো এক বছর আগে তারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্টোরে জমা দিয়েছেন। অথচ সিএইচসিপিদের অনলাইনে কমিউনিটি ক্লিনিকের স্বাস্থ্য সেবার দৈনন্দিন ও মাসিক রিপোর্টং করতে হয় ল্যাপটপ দিয়ে। কিন্তু সিসি গুলোতে ল্যাপটপ না থাকায় সিএইচসিপিদের আশপাশের বন্ধু বান্ধব কিংবা স্থানীয় হাট বাজারে গিয়ে অন্যের কম্পিউটারে স্বাস্থ্যসেবার অনলাইন রিপোর্টং করতে হচ্ছে। অনেক সময় নিয়মিত রিপোর্ট দিতে না পারায় ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে কর্মরত এসব সিএইচসিপিদের। আর এ কারনে এ উপজেলার বর্তমানে স্বাস্থ্য সেবার অনলাইন রিপোর্টিং এর পারফরমেন্সও খারাপ হচ্ছে।
মধ্য বালিপাড়া কমিউনিটি ক্লিনিকের সিএইচসিপি মাসুদ রানা বলেন, আমাদের এ উপজেলার সব গুলো ক্লিনিকের ল্যাপটপ বর্তমানে নস্ট রয়েছে। দীর্ঘ এক বছর পেরিয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত অফিসিয়াল কাজের জন্য নতুন ল্যাপটপ হাতে না পাওয়ায় চরম ভোগান্তির মধ্যে রয়েছি আমরা।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডা: আমিন-উল ইসলাম জানান, আমি কয়েক মাস আগে এখানে এসেছি। তাই সিএইচসিপিদের ল্যাপটপের এ সমস্যার বিষয়টি আমার ভাল জানা নেই। তবে সিএইচসিপিরা যাতে দ্রুত ল্যাপটপ গুলো হাতে পেতে পারে সে ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন