ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ আগস্ট ২০২০, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

ঈদের পরই মাঠে তামিমরা!

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ জুলাই, ২০২০, ১২:০০ এএম

ফুটবল ফিরলেও দীর্ঘ বিরতির পর আজই প্রথম মাঠে গড়াচ্ছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। ইংল্যান্ড-উইন্ডিজ টেস্ট দিয়েই খুলছে করোনাগেরো। আর এই সিরিজই নতু করে ভাবতে বাধ্য করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেটের পতিপথ নিয়ে। দীর্ঘ প্রায় চার মাস ক্রিকেট নেই দেশে। মাশরাফি, সাকিব, তামিম, মুশফিকরা কবে ফিরবেন মাঠে তারই কোনো নিশ্চয়তা পাওয়া যায়নি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডেল তরফ থেকে। তবে ভাবনার দোয়ার খুলে দিয়েছে এই সিরিজ। হয়ত ঈদুল আজহার পরই ক্রিকেটে ফিরতে পারে বাংলাদেশ। তবে তাতেও থেকে যাচ্ছে যদি, কিন্তু। কেননা শুধু মাত্র এশিয়া কাপ আয়োজন নিশ্চিত হলেই এই ঝুঁতি নিতে চায় দেশের ক্রিকেটে অভিভাবক সংস্থাটি।
করোনাধাক্কায় এ বছর স্থগিত হয়ে গেছে বাংলাদেশের চারটি দ্বিপক্ষীয় সিরিজ। এই চার সিরিজে ছিল আটটি টেস্ট খেলার সুযোগ। বাংলাদেশের সামনে এখন অবশিষ্ট আছে এশিয়া কাপ ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। অক্টোবর-নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠেয় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ভাগ্য যেমন অনিশ্চয়তার সুতোয় ঝুলছে, একইভাবে অনিশ্চিত সেপ্টেম্বরের এশিয়া কাপও। দুটি টুর্নামেন্টের ভবিষ্যৎই হয়তো জানা যাবে এ মাসে। আইসিসি ও এসিসির এ দুই টুর্নামেন্টের গতিবিধি বুঝেই বিসিবি ঠিক করতে চায় তামিম ইকবালদের মাঠে নামানোর সময়।
সেপ্টেম্বরে এশিয়া কাপ না হলে ক্রিকেটারদের মাঠে ফেরাতে বিসিবি তাড়াহুড়া করতে চায় না। বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সেই ইঙ্গিতই দিলেন, ‘আমরা তাকিয়ে আছি আইসিসি ও এসিসির টুর্নামেন্ট দুটির দিকে। এ দুটি টুর্নামেন্টের আগে-পরে আমাদের আর কোনো আন্তর্জাতিক সিরিজ নেই। এ মুহ‚র্তে পরবর্তী টুর্নামেন্টটির (এশিয়া কাপ) দিকে তাকিয়ে আছি। এটা হলে এক রকম, না হলে আরও কিছুদিন অপেক্ষা করব।’ বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খানও বললেন একই কথা, ‘সামনের এসিসি সভায় কী হয়, আমরা এখন সেটির দিকেই তাকিয়ে।’ তবে একেবারে হাত-পা গুটিয়েও বসে থাকবে না বিসিবি। চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটারদের নিয়ে ক্যাম্প শুরুর পরিকল্পনা অনেক দিন ধরেই। সাবেক এই অধিনায়ক বলেলেন, ‘পরিস্থিতি বুঝতে আমরা আরও দশ-পনেরো দিন অপেক্ষা করতে চাইছি। পরিস্থিতি ভালো হলে ঈদের পর অনুশীলন শুরু হতে পারে।’
বিসিবির প্রধান নির্বাহীও বলছেন, করোনা পরিস্থিতির অবনতি না হলে ঈদের পর খেলোয়াড়দের মাঠে ফেরানোর চেষ্টা তারা করবেন। কিন্তু তার আগে ক্রিকেটারদের কাছ থেকে ইতিবাচক সাড়া চান নিজাম উদ্দিন চৌধুরী, ‘আমরা কিন্তু প্রস্তুতি নিয়েই রেখেছি। (সিনিয়র) খেলোয়াড়দের সঙ্গে সভা করছি। এ মুহ‚র্তে তারা খুব একটা ইতিবাচক নয়। আমাদের সবকিছু খেলোয়াড়কেন্দ্রিক। তাদের মানসিকভাবে প্রস্তুত করতে হবে।’
এ প্রশ্নের উত্তর খুঁজতেই গতকাল রাত ৯টায় ১৫ জন খেলোয়াড় নিয়ে ভার্চুয়াল সভায় বসার কথা ক্রিকেটারদের সংগঠন কোয়াবের। রিপোর্টটি লেখা পর্যন্ত অবশ্য ইতিবাচক কিছু জানা যায়নি।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন