ঢাকা, শুক্রবার, ০৭ আগস্ট ২০২০, ২৩ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৬ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

ব্যর্থতার দায়ে মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েন আমিরের ভাই

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ জুলাই, ২০২০, ৪:১৯ পিএম

বলিউডের অন্যতম প্রভাবশালী তিন খানের মধ্যে একজন সুপারস্টার আমির খান। ইন্ডাস্ট্রিতে তিনি রাজত্ব করলেও, তার ভাই ফয়জল খান ক্যারিয়ারে সেভাবে দ্যুতি ছড়াতে পারেননি। এক কথায় বলতে গেলে বারবার সুযোগ পেয়েও বি-টাউনে পুরোপুরি ব্যর্থ হন তিনি। আর সেই ব্যর্থতার দায়ে একসময় মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েন এই অভিনেতা।

বলিউডের খ্যাতনামা প্রযোজক কাকা নাসির হুসেনের প্রযোজনায় 'প্যায়ার কা মওসম' সিনেমাতে শিশু শিল্পী হিসেবে বলিউড যাত্রা শুরু করেন ফয়জল খান। এরপর নব্বই দশকের তুমুল জনপ্রিয় আমির খান অভিনীত 'কেয়ামত সে কেয়ামত তক' সিনেমায় খল অভিনেতার চরিত্রে হাজির হয়েছিলেন তিনি। সেসময় দর্শক ও সমালোচকদের বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছেন এই চিত্রতারকা।

তবে ১৯৯৪ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত 'মাদহোশ' সিনেমা দিয়ে প্রধান নায়কের খাতায় নাম লেখান ফয়জল। কিন্তু সিনেমাটি বক্স অফিসে মুখ থুবরে পড়ে। এক সাক্ষাৎকারে এই ব্যর্থতার দায় নিজের কাধেই তুলে নিয়েছিলেন মিস্টার পারফেকশনিস্টের ভাই।

এরপর 'মেলা', 'দুশমন', 'বর্ডার হিন্দুস্থান কা', 'বস্তি', 'চাঁদ বুঝ গ্যায়া' সহ আরও বেশকিছু সিনেমাতে অভিনয় করেন ফজল। কিন্তু কপাল পোড়া হলে যা হয়, এর মধ্যে একটি সিনেমাও বক্স অফিসে সফলভাবে ব্যবসা করতে পারেনি। টিভি সিরিজেও নিজেকে মেলে ধরতে ব্যর্থ হন তাহির পুত্র।

ক্যারিয়ারে যখন ব্যর্থতার শীর্ষে, ঠিক সেই মুহুর্তে ডিজাইনার সামিয়া কামরুদ্দিনের সঙ্গে তার বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। জীবনের সব ধাক্কা সামলাতে না পেরে মানসিকভাবে বিধ্বস্ত হয়ে পড়েন ফয়জল। শোনা যায়, ২০০২ সালে তার মানসিক রোগের উপসর্গ দেখা দেয়। পরে প্যারানয়েড স্কিৎজোফ্রোনিয়া রোগে আক্রান্ত হলে অভিনেতাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন