ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭, ২০ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

লালার বিকল্প ভেজা তোয়ালে!

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ জুলাই, ২০২০, ১২:০০ এএম

লম্বা বিরতি শেষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরছে গতকাল। করোনা-বিরতি শেষে ক্রিকেট ফিরছে সাময়িকভাবে বদলে যাওয়া কিছু নিয়মকানুন নিয়ে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্রিকেট খেলতে বলে লালা মাখানো নিষিদ্ধ করেছে আইসিসি। বল চকচকে রাখার জন্য তাই বিকল্প খুঁজতে হচ্ছে পেস বোলারদের। গত কয়েক মাসে অনেকেই অনেক পরামর্শ দিয়েছেন। এবার দক্ষিণ আফ্রিকার পেসার লুঙ্গি এনগিডি নিয়ে এলেন তোয়ালে তত্ত¡ নিয়ে। এনগিডি মনে করেন ভেজা তোয়ালে দিয়ে মুছে বল চকচকে রাখা যেতে পারে।
এনগিডি ভাবছেন লালা মাখানো নিষিদ্ধ হওয়ায় বল চকচকে রাখা কঠিন হয়ে গেলেও ব্যাটসম্যানদের চোখ কিন্তু চকচক করছে, ‘যখনই বলা হলো লালা মাখানো যাবে না, কিছু ব্যাটসম্যান গ্রæপে (সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে) পোস্ট করল তারা একটু উঁচুতে ড্রাইভ খেলবে। দেখতেই পাচ্ছেন ব্যাটসম্যানরা কী দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে নামবে খেলতে।’ এই সমস্যার সমাধান খুঁজতে তাই বিকল্প ভেবে রেখেছেন এনগিডি, ‘বল সুইং করাতে এখন আমাদের নতুন পরিকল্পনা সাজাতে হবে। ভেজা তোয়ালেটাই সবচেয়ে ভালো হতে পারে, যাই হোক বল চকচকে রাখতে কোনো একটা উপায় খুজে বের করতেই হবে।’
বল সুইং করানো নিয়ে চিন্তিত যশপ্রীত বুমরাও। ভারতীয় পেসারও এনগিডির মতো বিকল্প খুঁজছেন। এনগিডির মতো বুমরাও ভাবছেন বিকল্প কিছু বা থাকলে খেলাটা বড্ড ব্যাটসম্যানদের দিকে আরও হেলে পড়বে, ‘লালার ব্যাপারটা নিয়ে ভাবছি। আমি জানি না যখন ফিরব কেমন নিয়মকানুন মেনে চলতে হবে, তবে আমি মনে করি বিকল্প কিছু থাকা উচিত। বলটাকে ঠিকঠাক যতœ করা না গেলে বোলারদের জন্য কাজটা কঠিন হয়ে যাবে। প্রতিদিনই মাঠ ছোট হচ্ছে, উইকেট আরও পাটা হচ্ছে। বলকে ঠিক রাখতে, শেষের দিকে রিভার্স পেতে কিংবা সাধারণ সুইং পেতে বিকল্প কিছু থাকতেই হবে।’ করোনার সময়ে ক্রিকেটে আসা অন্য সব নিষেধাজ্ঞা তার কোনো সমস্যা করবে না বলে ভাবছেন বুমরা, ‘আলিঙ্গন করাটা আমার ধাতে নেই! হাই-ফাইভও সেভাবে করি না। মনে হয় না এসব বন্ধ হওয়ায় আমার কোনো সমস্যা হবে।’

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন