ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

যুক্তরাষ্ট্রে স্কুল খোলার নয়া নির্দেশনা দেবে সিডিসিপি

দ্য নিউ ইয়র্ক টাইম্স | প্রকাশের সময় : ১০ জুলাই, ২০২০, ১২:০০ এএম

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কঠোর সমালোচনার মুখোমুখি হওয়ার কয়েক ঘণ্টা পর যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার ফর ডিজিস কন্ট্রোল এন্ড প্রিভেন্শন-সিডিসিপি স্কুলগুলো পুনরায় খোলার নয়া নির্দেশিকা জারি করবে বলে ঘোষণা দিয়েছে। গত বুধবার ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স হোয়াইট হাউসের করোনাভাইরাস টাস্কফোর্সে উপস্থিত হয়ে জানান, সংস্থাটি স্কুলগুলো পুনরায় খুলে দেয়ার জন্য আগামী সপ্তাহে নতুন সুপারিশ জারি করতে যাচ্ছে। তিনি বলেন, ‘প্রশাসনের কর্মকর্তারা চান না করোনাভাইরাস সংক্রান্ত কঠোর নির্দেশিকা স্কুলগুলো না খোলার কারণে পরিণত হোক।’

বুধবার সকালে ট্রাম্প এক টুইটার বার্তায় খোলাখুলি সিডিসিপি’র বর্তমান নির্দেশিকাগুলোর ঢালাও সমালোচনা করেন। এর আগে, সংস্থাটি দেশটির শিশুদের ক্লাসে ফিরিয়ে আনার বিষয়ে কঠোর প্রতিরোধমূলক পদক্ষেপের সুপারিশ করে। এতে করে ট্রাম্প হুমকি দেন যে, আসছে হেমন্তে স্কুলগুলো পুনরায় পুরোপুরিভাবে খুলতে অস্বীকৃতি জানালে তাদের সরকারি সহায়তা বন্ধ করে দেয়া হবে। এরপরই সিডিসিপি’র পরিচালক ড. রবার্ট আর রেডফিল্ড জানিয়েছেন, তার সংস্থাটির নির্দেশিকা স্কুল বন্ধ রাখার ন্যায্য কারণ হিসেবে ব্যবহার করা উচিত নয়। গত কয়েক মাসের মধ্যে এই বিষয়ে এটাই তার সর্বাধিক স্পষ্ট বক্তব্য ছিল।

সংস্থাটির প্রস্তাবিত ব্যবস্থাগুলোর মধ্যে ক্লাসরুমের জানালা খোলা রাখা, সম্ভব হলে অন্তত ৬ ফুট দূরে প্রতিটি ডেস্ক রাখা এবং ক্যাফেটেরিয়া বা খেলার মাঠের সরঞ্জাম ব্যবহার না করা অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। রেডফিল্ড বলেছেন, ‘আমরা প্রতিটি বিদ্যালয়ের সাথে কাজ করার জন্য প্রস্তুত, প্রতিটি এলাকায় তাদের নিজস্ব প্রস্তাবিত বিভিন্ন কৌশল নিরাপদে কার্যকরভাবে পরিচালিত করতে সহায়তা করবো, যাতে তারা এ স্কুলের জন্য সর্বোত্তম কৌশল ব্যবহার করতে পারে।’

স্কুল খুলে দেয়ার চাপ সত্বেও বিজ্ঞানীরা স্কুলের অভ্যন্তরীণ জায়গায় ভাইরাসের সংক্রমণ সম্পর্কে উদ্বিগ্ন। বেশিরভাগ মার্কিন সরকারি বিদ্যালয়ে দুর্বলভাবে বায়ুচলাচল করে এবং তারা বায়ূবিশুদ্ধকরণ সিস্টেম আপডেট করার জন্য অর্থায়ন পায় না। ১২ বছরের কম বয়সী বাচ্চাদের অসুস্থ হওয়ার ঝুঁকি কম বলে মনে করা হলেও তারা অন্য শিক্ষার্থী বা শিক্ষক এবং অভিভাবকদের মধ্যে ভাইরাস ছড়িয়ে দিতে পারে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যুক্তরাষ্ট্রের বেশিরভাগ অঞ্চলে ভাইরাসের সংক্রমণ ব্যাপকহারে বেড়ে চলেছে এবং হাসপাতালের বিছানাগুলো দ্রæত ভরে যাচ্ছে। কিছু শহর ও অঞ্চল সংক্রমণ বৃদ্ধির প্রতিক্রিয়া হিসাবে ভাইরাস প্রতিরোধে নতুন সতর্কতা অবলম্বন করেছে। তবে, জার্মানির মতো বেশ কয়েকটি দেশ করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে আনার পর তাদের স্কুলগুলি আবার চালু করেছে।

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন