ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ আগস্ট ২০২০, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

স্বামীকে বেঁধে রেখে গৃহবধূকে গণধর্ষন

স্টাফ রিপোর্টার, সাভার | প্রকাশের সময় : ১১ জুলাই, ২০২০, ৩:২০ পিএম

ঢাকার সাভারে পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে স্বামীকে বাগানের ভিতরে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে বাসা থেকে ডেকে এনে স্বামীর সামনেই গণধর্ষন করেছে একটি ইটভাটার সর্দার ও তার সহযোগীরা। এঘটনায় পুলিশ একজনকে গ্রেফতার করেছে।
শুক্রবার দুপুরে এই ঘটনার পরদিন শনিবার সাভার মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন ধর্ষিতা নারীর স্বামী।
গ্রেফতারকৃত মো: আলাউদ্দিন (৪০) মোগড়াকান্দা এলাকার এবিসি ইট ভাটার শ্রমিকদের সর্দার।
মামলায় ওয়াহিদ (৩০), জুয়েল (২০), মো: আলাউদ্দিন (৪০) ও শহিদুল (৪০)কে আসামী করা হয়েছে।
বাদী মামলার বিবরনীতে উল্লেখ করেছেন, সাভারের ভাকুর্তা ইউনিয়নের মোগড়াকান্দা এলাকার এবিসি ইট ভাটার শ্রমিকদের সর্দার মো: আলাউদ্দিনের অধিনে ইটভাটায় কাজ করাকালীন বাদী ৭হাজার ৪০০টাকা পেতেন। এই টাকার জন্য বাদী ৩/৪মাস ধরে আলাউদ্দিনের কাছে ঘুরাঘুরি করেছেন। অবশেষে শুক্রবার আলাউদ্দিন বাদীকে হিসাব করে টাকা নিয়ে যেতে বলে। পরে সে টাকা আনতে গেলে তার সহযোগী ওয়াহিদ ও শহিদুল তাকে ডেকে মোগড়াকান্দা এলাকায় মাহবুবের বাড়ির পাশে একটি বাগানে নিয়ে যায়। সেখানে তাকে টাকা দেয়ার পরিবর্তে হাত পা বেঁধে মারধর করে। পরে আরেক সহযোগী জুয়েল বাদীর বাড়িতে গিয়ে তার ১৯বছর বয়সী স্ত্রীকে বলে ‘তোর স্বামীর হাত পা বেঁেধ পুলিশের নিকট ধরিয়ে দিয়েছে, তুই না গেলে ছাড়বো না’ । স্বামীকে ছাড়াতে ছুটে আসে স্ত্রী।
তখন ওয়াহিদ ও জুয়েল মেহগুনী বাগানের ভিতরে তার স্ত্রীর হাত মুখ চেপে ধরে আলাউদ্দিন ও শহিদুলের সহযোগীতায় তারা গণধর্ষন করেন। পরে তার স্ত্রীর চিৎকারে এলাকাবাসী বেরিয়ে আসলে ধর্ষকরা পালিয়ে যায়।
মামলাটির তদন্তকারী কর্মকর্তা সাভার মডেল থানার পরিদর্শক মোহাম্মদ আল আমীন তালুকদার বলেন, এঘটনায় আলাউদ্দিনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। ধর্ষনের শিকার ওই নারীকে স্বাস্থ্য পরিক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন