ঢাকা, শনিবার, ০৮ আগস্ট ২০২০, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৭ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

সাজা মওকুফে ডেমোক্র্যাটদের তীব্র নিন্দা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ জুলাই, ২০২০, ১২:০৩ এএম

সাবেক উপদেষ্টা রজার স্টোনের জেলের সাজা মওকুফ করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বিচার কাজে বাধা, সাক্ষীর সাক্ষ্যকে টেম্পারিং করা ও কংগ্রেসে রাশিয়া কানেকশন নিয়ে মিথ্যাচারের জন্য রজার স্টোনকে অভিযুক্ত করে আদালত। এ জন্য তাকে ৪০ মাসের জেল দেয়া হয়। সেই সাজা শুরুর তারিখ বিলম্বিত করতে ওয়াশিংটন ডিসি কোর্ট অব আপিলে আবেদন করেছিলেন রজার স্টোন। কিন্তু আদালত তা প্রত্যাখ্যান করেছেন। এরপরই ট্রাম্প ওই শাস্তি মওকুফের ঘোষণা দেন। এমন সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন ডেমোক্র্যাটরা। তারা বলছেন, এর মধ্য দিয়ে ট্রাম্প ক্ষমতার অপব্যবহার করেছেন। যুক্তরাষ্ট্রে তিনি দুই ধরনের বিচার ব্যবস্থা চালু করেছেন। একটি হলো তার ক্রিমিনাল বন্ধুদের জন্য। অন্য হলো বাকি মানুষদের জন্য। ট্রাম্পকে ইতিহাসের সবচেয়ে ‘করাপ্ট’ প্রেসিডেন্ট হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন সিনেটর এলিজাবেথ ওয়ারেন এ খবর দিয়েছে অনলাইন বিবিসি। এতে বলা হয়, ২০১৬ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ নিয়ে আইন মন্ত্রনালয়ের তদন্তে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন যেসব কর্মকর্তা তার মধ্যে রজার স্টোন হলেন ট্রাম্পের ষষ্ঠ সহযোগী। ৬৭ বছর বয়সী স্টোনের শাস্তি ভোগের মেয়াদ শুরু হওয়ার কথা আগামী মঙ্গলবার। এদিন জর্জিয়াতে জেসাপ এলাকায় ফেডারেল জেলখানায় তার রিপোর্ট করার কথা। অর্থাৎ ওইদিন তার জেলে যাওয়ার কথা। ওদিকে বার্তা সংস্থা এপি’কে রজার স্টোন বলেছেন, শুক্রবারই তাকে ফোন করেছিলেন ট্রাম্প। তাকে শাস্তি মওকুফের বিষয় জানিয়েছিলেন। এমন সিদ্ধান্ত তিনি বন্ধুবান্ধবদের নিয়ে ফ্লোরিডার ফোর্ট লডারডেলে সেলিব্রেট করছেন। সেখানে শ্যাম্পেন পরিবেশন করা হচ্ছে। উৎসবের আমেজ বয়ে যাচ্ছে। কিন্তু তাকে দায়মুক্তি দেয়ার কড়া নিন্দা জানিয়েছেন প্রতিনিধি পরিষদের ইন্টেলিজেন্স কমিটি চেয়ারম্যান এডাম শিফ। ডেমোক্র্যাট দলের শীর্ষ এই প্রতিনিধি বলেছেন, এই ক্ষমা করে দেয়ার মাধ্যমে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এটা নিশ্চিত করলেন যে, যুক্তরাষ্ট্রে দুই রকম বিচার ব্যবস্থা আছে। একটি হলো তার ক্রিমিনাল বন্ধুদের জন্য। অন্যটি বাকি অন্যদের জন্য। ডেমোক্রেট ন্যাশনাল কমিটির চেয়ার টম পেরেজ বলেছেন, ট্রাম্প কি এর মাধ্যমে তার ক্ষমতার অপব্যবহার করেন নি? অন্যদিকে ডেমোক্রেট দলের সিনেটর এলিজাবেথ ওয়ারেন বলেছেন, এর মধ্য দিয়ে এটাই প্রমাণ হলো যে, ইতিহাসে সবচেয়ে দুর্নীতিতে নিমজ্জিত প্রেসিডেন্ট হলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে ট্রাম্পের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ব্যক্তিগত আইনজীবী রুডি গিলিয়ানি। তিনি বলেছেন, রজার স্টোনের শাস্তি দেয়াটা ছিল অন্যায়। বিবিসি, এপি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন