ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ আগস্ট ২০২০, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

অনিয়ম-দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরকার কঠোর

ভিডিও বার্তায় ওবায়দুল কাদের

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৩ জুলাই, ২০২০, ১:১১ এএম

স্বাস্থ্যখাতসহ সকল খাতের অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরকারের অবস্থান অত্যন্ত কঠোর বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের

তিনি বলেন, আমি আরও মনে করিয়ে দিতে চাই, শেখ হাসিনা সরকার কোন অন্যায়কারীকে ছাড় দেয়নি, দিবেও না। অপরাধীর কোন দল নেই। অপরাধ লুকাতে তারা দলের আলখেল্লা পরে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তারা নিজেদের রক্ষা করতে পারে না। দুর্নীতি অনিয়মের বিরুদ্ধে শেখ হাসিনা সরকার সবসময় কঠোর অবস্থানে। গতকাল সংসদ ভবনের সরকারি বাসভবন থেকে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে আয়োজিত এক অনলাইন ভিডিও বার্তায় এসব কথা বলেন। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, এ সকল অপরাধীদের পাকড়াও অভিযান শেখ হাসিনা সরকার নিজ উদ্যোগেই নিয়েছে। স্বাস্থ্যখাত এবং অন্যান্য খাতে দুর্নীতি ও অনিয়মকারীদের সাবধান করে দিয়ে বলছি, কেউ ছাড় পাবেন না। দুর্নীতি যেখানেই হবে, সেখানেই তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণের স্বাধীনতা দুদকের রয়েছে। এমনকি আমার নিজের মন্ত্রণালয়েও যে কোন দুর্নীতি বা অনিয়মের বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণে দুদকের প্রতি কোন বাধা নেই।

‘জনগণের জীবন জীবিকার উপর সরকার দায়িত্ব পালন করছে না’ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যর জবাবে তিনি বলেন, আমি প্রশ্ন রাখতে চাই, জীবন জীবিকা সচল রাখতে শেখ হাসিনা সরকার যখন নানামুখী সিদ্ধান্ত নিয়েছিল তখন আপনারা সমালোচনা করেছিলেন কেন? লকডাউনের জন্য চাপ তৈরি করে এখন তিনি জনগণের জীবন জীবিকার কথা বলছেন। বিএনপির সুবিধাবাদী রাজনৈতিক চরিত্র এবং ডাবল স্ট্যান্ডার্ড ইতোমধ্যে জনগণের কাছে পরিস্কার হয়ে গেছে।

রিজেন্ট হাসপাতাল ও জিকেজির প্রতারণার প্রসঙ্গ টেনে ওবায়দুল কাদের বলেন, করোনার পরীক্ষায় স¤প্রতি দু’টি প্রতিষ্ঠানের প্রতারণা মানুষকে বিস্মিত করেছে। মানুষের জীবন-মরণ, মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষা কিংবা অসুস্থতা নিয়ে এমন প্রতারণা অত্যন্ত নিন্দনীয় কাজ। দ্রæততার সাথে তদন্তপূর্বক অভিযুক্তদের আইনের আওতায় আনার জন্য আমি আইন প্রয়োগকারী সংস্থাসমূহের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

অনলাইনে কোরবানির পশু কেনা-বেচার ক্ষেত্রে লেনদেনে স্বচ্ছতা ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করার পাশাপাশি কেউ যেন প্রতারণার স্বীকার না হয় এর জন্য বিশেষ নজরদারি রাখার পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, যত্রতত্র পশুর হাট বসানো যাবে না। সড়ক মহাসড়ক কিংবা পাশে অনুমতি দেয়া যাবে না।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
jack ali ১৩ জুলাই, ২০২০, ১১:৪৮ এএম says : 0
They have destroyed the country and they always they just give lip service...
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন